English Version   
আজ সোমবার,২৪শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং, ১১ই বৈশাখ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৬শে রজব, ১৪৩৮ হিজরী

প্লেব্যাক চত্বরে বাংলার কোন নায়িকারা

এপ্রিল ২১, ২০১৭ ৪:৩২ পূর্বাহ্ণ

 

শীর্ষ খবর:

আলিয়া ভট্টের ‘তেনু সমঝওয়াঁ’ বা ‘এক কুড়ি’ এখনও চার্টবাস্টার। পার্টিতে লোকে শুনবেই। আর তিনি তো বোধহয় গাইতে না পেলে ইদানীং ছবিতে সই করছেন না। ‘রক অন টু’তে শ্রদ্ধা কপূর গেয়ে ফাটিয়ে দিয়েছেন। পরিণীতি চোপড়া রীতিমতো ট্রেনড গায়িকা। ‘মেরি পেয়ারি বিন্দু’ মুক্তি পেলে অনেকে শুধু তাঁর গান শুনতেই হল’এ দৌড়বে! ‘মানা কি হম’ গানটা ইতিমধ্যেই হিট। ফলে বলিউডের নায়িকারা সুযোগ পেলেই প্লেব্যাক করে নিচ্ছেন। শ্রেয়া ঘোষালরা আছেন ঠিকই নিজেদের জায়গায়, কিন্তু সোনাক্ষী সিংহও লাইভ শো করছেন! আরও একটু পপুলার যদি হওয়া যায়, ক্ষতি কী! গানবাজনা তো অভিনয়েরই পার্ট। কিন্তু টলিউডের গ্ল্যামার গার্লরা কী বলছেন? বাংলায় তো হরেদরে সব ছেলেমেয়েই হারমোনিয়ম বাজিয়ে বড় হয়! তাঁদের প্লেব্যাকের হাল-হকিকত দেখল ‘ওবেলা’।

জয়া আহসান
শুধু গানই কেন, বলিউডের অভিনেতারা অভিনয়ের পাশাপাশি অনেক কিছুই করছেন। আমার গানের গলাটা একেবারেই ভাল নয়। আমার গান শেখা নিয়ে ইন্টারনেটে অনেক তথ্য রয়েছে। এমনকী, উইকিপিডিয়ায় কেন জানি না লেখা আছে, আমি নাকি রবীন্দ্রসংগীতে ডিপ্লোমা পেয়েছি। ক্লাসিক্যালি ট্রেন্‌ড! বাজে কথা। বরং ছবি আঁকাটা মন দিয়ে শিখেছিলাম।

সোহিনী সরকার
‘মণিহারা’র পরিচালক (শুভব্রত চট্টোপাধ্যায়) আমাকে বলেছিলেন, গান গাইতে। খুব চেষ্টাও করেছিলেন, যাতে গাই। কিন্তু করিনি। আর কেউ বলেননি। থিয়েটার করি বটে! মাঝে মধ্যে কিছু প্রয়োজনীয় আওয়াজ, শব্দ তৈরি করি নিজেই। তবে সিনেমায় নিজের গলায় গান গাওয়ার বিষয়টা বাড়াবাড়ি! থাক বাবা! পরিণীতি চোপড়ার গানটা শুনেছি। বেশ ভাল লেগেছে। আলিয়া ভট্টের গাওয়া গানগুলোও বেশ ভাল লাগে।

 

 

 

ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত – প্রিয়ঙ্কা সরকার  – সোহিনী সরকার

ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত
ছোটবেলায় অল্প ক’দিন গান শিখেছিলাম। যেমন সকলেই একটু-আধটু শেখে আর কী। এখন আর একেবারেই চর্চা নেই। প্রভাত রায় প্রথম আমাকে দিয়ে গাইয়েছিলেন ‘তুমি এলে তাই’ ছবিতে। তারপর ‘মুক্তধারা’য় প্লেব্যাক করেছিলাম ‘আমরা সবাই রাজা’ গানটা। মীরের সঙ্গে ‘পতি পরমেশ্বর’ বলে একটা ছবিতে কমেডি সংও করেছি। আসলে বিভিন্ন সময়ে পরিচালকেরা আমায় দিয়ে গাইয়ে নিয়েছেন। ভবিষ্যতে এরকম প্রস্তাব আবার এলে অবশ্যই ভেবে দেখব।

প্রিয়ঙ্কা সরকার
খুব ছোটবেলাতেই হারমোনিয়াম বাজিয়ে গান গাইতে গিয়ে টের পেয়েছিলাম, আমার মতো বেসুরো কমই আছে! একদমই গাইতে পারি না। সেই জন্য, স্টেজ শো’এ দেখবেন পারফর্ম করার সময় নাচটাই করি। তবে আলিয়া ভট্ট, সোনাক্ষী সিংহরা তো দেখি গান-টান না শিখেও দিব্যি গাইছেন। এখানে কেউ তেমন করে না কেন কে জানে! সায়নী (ঘোষ) যেমন খুব ভাল গান গায়। ও চাইলে গানকে অল্টারনেটিভ কেরিয়ার বানিয়ে ফেলতেই পারে। আসলে সবচেয়ে বড় কথা হল, গান গাইতে পারাটা একটা স্কিল। সেটা যাদের আছে, তারা গাইলেই ভাল। শেষ পর্যন্ত তো জিনিসটা শুনতে ভাল হতে হবে! তবে কোনও পরিচালক যদি আমায় স্ক্রিপ্টের খাতিরে বলেন যে গাইতে হবে, অসুবিধে নেই। তিনি তো বুঝবেন, আমি কতটা বেসুরো!

 

 

পাওলি দাম – সায়নী ঘোষ

সায়নী ঘোষ
অভিনেতারা যদি প্রফেশনালি গান গাইতে না পারেন, তাহলে গাওয়া উচিত নয়। অ্যাশ কিংগের সঙ্গে ‘কঠিন তোমাকে ছাড়া একদিন’ গানটা গেয়েছিলাম। তারপর অনেকেই আমাকে গান গাওয়া নিয়ে প্রশ্ন করেন। কিন্তু আমি আপাতত অভিনয়েই মন দিতে চাই। একজন গায়ক যদি অভিনয় করেন, তাঁর অভিনয়ে যে খুঁতগুলো ধরা পড়বে, এক্ষেত্রেও ব্যাপারটা নিশ্চয়ই তাই হবে। আমার মনে হয়, অভিনেতাদের দিয়ে গান গাওয়ানোর মধ্যে একটা পাবলিসিটি স্টান্টের ব্যাপারও রয়েছে।

পাওলি দাম
গান আমার জীবনে ভাল লাগার একটা জায়গা। প্রথাগত কোনও ট্রেনিং না থাকলেও, গাইতে ভালবাসি। আমার থিয়েটারে হাতেখড়ি ছোটবেলায়। থিয়েটারের প্রয়োজনে বহুবার প্লেব্যাক করেছি। কিছুদিন আগেই সত্রাজিতের (সেন) সঙ্গে কথা হয়েছিল রবীন্দ্র সংগীতের একটা অ্যালবাম করার ব্যাপারে। কিন্তু ডেট’এর কারণে কাজটা শেষ অবধি করে উঠতে পারিনি। ‘নাটকের মতো’ ছবিতে প্লেব্যাক করেছিলাম। ভবিষ্যতে সুযোগ পেলে অ্যালবাম বা ছবিতে আবার প্লেব্যাক করব। ‘মেরি পেয়ারি বিন্দু’তে পরিণীতি চোপড়ার গাওয়া গানটা শুনেছি। ভাল লেগেছে! আলিয়ার গানগুলোও বেশ ভাল লাগে। তবে এ ব্যাপারে শিল্পীর কতটা আগ্রহ রয়েছে, সেটাও গুরুত্বপূর্ণ। বলিউডে আর এক অভিনেতার কথা না বললে নয়। আয়ুষ্মান খুরানা। এত ভাল গায় ও! টালিগঞ্জে জিৎ এবং অঙ্কুশ যেমন গাইতে ভালবাসে।

Print Friendly
 
সংবাদটি পড়া হয়েছে 1045 বার
 
শীর্ষ খবর/আ আ

 

ফেইসবুক লাইকবক্স

 
 
 
 
 
 

সম্পাদকীয়

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

ক্যালেন্ডার

 
 
 

জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:


কপিরাইট ©২০১০-২০১৬ সকল সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত শীর্ষ খবর ডটকম

প্রধান সম্পাদক : ডাঃ আব্দুল আজিজ
পরিচালক বৃন্দ : সামছু মিয়া, আব্দুল আহাদ
তোফায়েল আহমদ

ফোন নাম্বার: +447536574441
ই-মেইল: info.skhobor@gmail.com
ই-মেইল: info@sylheteralap.com