কানাডার পথে এসকে সিনহা: ছুটি নেননি পদত্যাগও করেননি

Pub: শুক্রবার, নভেম্বর ১০, ২০১৭ ১১:২৪ অপরাহ্ণ   |   Upd: শুক্রবার, নভেম্বর ১০, ২০১৭ ১১:২৪ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিবেদক : সারাদেশের মানুষের মধ্যে এখন প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহা কেন্দ্রীক আলোচনা প্রাধান্য পাচ্ছে। যদিও বলা হচ্ছে, আপিল বিভাগের অন্য বিচারপতিরা প্রধান বিচারপতির সঙ্গে বসতে রাজি নন। কিন্তু সবাই এটা বুঝতে পারছে যে, মূলত সরকারের সঙ্গে প্রধান বিচারপতির সংঘাতময় পরিস্থিতিই এ সংকটের মূল কারণ। এটির্নি জেনারেলের বক্তব্যসহ সার্বিক পরিস্থিতিতে এটা নিশ্চিত যে সরকার কোনও ক্রমেই তাকে বসতে দিতে রাজি নয়। অন্যদিকে যতদূর জানা গেছে, এসকে সিনহাও এতো সহজে হাল ছেড়ে দিতে রাজি নন।
সংশ্লিষ্ট নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, এসকে সিনহা কৌশলগত কারণে সিঙ্গাপুর থেকে দেশে না ফিরে কানাডার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়েছেন। তিনি আশা করছেন, এখানকার পরিস্থিতি অনুকূলে আসবে শিগগিরই। তারপরই দেশে ফিরবেন। এখন তিনি স্বাভাবিক নিয়মে পদত্যাগও করবেন না। তাহলে কীভাবে এ সংকটের মীমাংসা হবে, সেটিই আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে সকল মহলে।
ইতিপূর্বে এমন খবর পাওয়া গিয়েছিল যে, প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহা সিঙ্গাপুর থেকে ১৩ অক্টোবর দেশে ফিরবেন। সেই অনুযায়ী প্রটোকলও চেয়েছিলেন সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসনের কাছে। দেশে ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। তবে যেহেতু পরিবেশ এখন তার অনুকূলে নয়, তাই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছেন।
গত ২ অক্টোবর প্রধান বিচারপতির এক মাসের ছুটি শুরু হয়। এরপর ছুটি বাড়িয়ে ১০ নভেম্বর পর্যন্ত করা হয়। আজ শুক্রবার এসকে সিনহার ছুটি শেষ। তবে শুক্র এবং শনিবার সরকারি ছুটি হওয়ায় প্রকৃতপক্ষে তার অফিস করার কথা রোববার থেকে। সেই হিসেবে শনিবারই তার দেশে ফেরার কথা।
কিন্তু, তিনি কানাডা যাওয়ার খবরে নতুন করে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। নতুন করে কোনও ছুটির আবেদনও করেননি। বলা হচ্ছিল, বিদ্যমান পরিস্থিতিতে এসকে সিনহা পদত্যাগ করতে পারেন। সেটিও তিনি করেননি। এই প্রেক্ষাপটে তার অনুপস্থিতিতে সংবিধানের ৯৭ ধারা অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি ব্যবস্থা নেবেন বলে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।
সংবিধানের ৯৭ ধারা অনুযায়ী প্রধান বিচারপতির অনুপস্থিতিতে রাষ্ট্রপতি আপিল বিভাগের পরবর্তী জ্যেষ্ঠতম বিচারপতিকে ভারপ্রাপ্ত দায়িত্ব দিতে পারেন। সেই অনুযায়ী আবদুল ওহাহাব মিয়া ভারপ্রাপ্ত দায়িত্বে থাকবেন প্রধান বিচারপতি দায়িত্বে যোগদান না করা পর্যন্ত অথবা পরবর্তী প্রধান বিচারপতি নিয়োগ না হওয়া পর্যন্ত। তবে পদত্যাগ বা অপসারিত না হওয়া পর্যন্ত এসকে সিনহা-ই দেশের প্রধান বিচারপতি। আগামী ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত তার মেয়াদ রয়েছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ

সংবাদটি পড়া হয়েছে 12713 বার