শিগগির ঘোষণা সিলেট জেলা ছাত্রলীগের কমিটি

Pub: বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৭, ২০১৭ ৪:০৬ অপরাহ্ণ   |   Upd: বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৭, ২০১৭ ৪:০৬ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি শিগগির ঘোষণা করা হবে বলে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সূত্রে জানা গেছে। কমিটিতে সভাপতি ও সেক্রেটারীসহ বিভিন্ন পদ প্রত্যাশি নেতারা জোর লবিংয়ে নেমেছেন। নতুন কমিটিতে কারা আসছেন, সেই আলোচনাও তুঙ্গে। বিশেষ করে সভাপতি পদে কে দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন, এ নিয়ে সিলেটে সংগঠনটির নেতাকর্মীদের বেশ আগ্রহ ও কৌতুহল রয়েছে।
সূত্র জানায়, সিলেট জেলা ছাত্রলীগের বিভিন্ন পদে আগ্রহী তিন শতাধিক নেতা নিজেদের জীবনবৃত্তান্ত জমা দিয়েছেন। তবে সদ্য বিলুপ্ত হওয়া কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার আলম সামাদ ও সাধারণ সম্পাদক রায়হান চৌধুরী নিজেদের জীবনবৃত্তান্ত জমা দেননি।
বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পদে অন্তত ১০ নেতাকে ঘিরে কম-বেশ আলোচনা চলছে। এসব নেতাদের মধ্য থেকেই কোনো একজনের কাঁধে সভাপতির দায়িত্ব বর্তাবে বলে মনে করছেন সাধারণ নেতাকর্মীরা।
নানা ধরনের বিতর্কিত কর্মকান্ড মধ্যে সিলেট জেলা ছাত্রলীগের কমিটি গত ১৮ অক্টোবর বিলুপ্ত করা হয়েছে। কমিটি বিলুপ্তের পরপরই নতুন কমিটি গঠনের জন্য পদপ্রত্যাশীদের কাছ থেকে জীবনবৃত্তান্ত আহবান করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। এজন্য তিন নেতাকে দায়িত্ব দেয় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।
এ তিন নেতা হচ্ছেন, ছাত্রলীগের সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সৃজন ঘোষ সজিব, কেন্দ্রীয় ক্রীড়া সম্পাদক চিন্ময় রায় ও উপ-সাহিত্য সম্পাদক রহমত উল্লাহ খান শাকুর।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হওয়ার ইচ্ছা নিয়ে জোর তদবির করে যাচ্ছেন বেশ কয়েকজন নেতা। এর মধ্যে ১০ ছাত্রলীগ নেতা সভাপতি পদে সবচেয়ে বেশি আলোচনায় আছেন বিপ্লব কান্তি দাস, শাহীন আলী, সালাউদ্দিন পারভেজ, রশিদুল ইসলাম রাশেদ, নাজমুল ইসলাম, অনিরুদ্ধ মজুমদার পলাশ, সাইফুর রহমান রাজন, জাওয়াদ ইবনে জাহিদ খান ও মুহিবুর রহমান হোসাইন আহমদ, দিদার হোসেন সাজু, সুহেল আহমদ মুন্নার নাম শুনা যাচ্ছে।
সাধারণ সম্পাদক পদে টিলাগড় গ্রুপ থেকে বখতিয়ার আকরাম চৌধুরী অনি, কনক পাল অরুপ, নাসির গ্রুপ থেকে জাওয়াদ খান, শাক্কুর আহমদ জনি, আনোয়ারুজ্জামান বলয়ের মুহিবুর রহমান, তাহমিদ আহমেদ নাদেল, দেলোয়ার হোসেন দিলাল, নুরুল হোসেন, বিধান গ্রুপ থেকে রাজেশ সরকারসহ কয়েক জনের নাম বেশ জোরেশোরেই শোনা যাচ্ছে।
সংগঠনটির জেলা শাখার শীর্ষ দুটি পদের নেতৃত্বে কারা আসছেন?
এ প্রশ্ন এখন শুধু দলীয় নেতাকর্মীই নয়, জেলা-উপজেলার রাজনৈতিক অঙ্গনেও ছড়িয়ে পড়েছে। নেতাকর্মীদের মধ্যে চলছে নানা জল্পনা কল্পনা, কারো আগ্রহের কমতি নেই কে হচ্ছেন ক্ষতাসীন দলের ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠন সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারাণ সম্পাদক।
জানতে চাইলে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসেন বলেন, ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী প্রকৃত ছাত্র, অবিবাহিত ও যাদের বিরুদ্ধে কোন মামলা বা অভিযোগ নেই তাদেরকেই মূল্যায়ণ করা হবে ।
বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, আজাদ-রনজিত নিয়ন্ত্রিত (টিলাগড় গ্রুপ) থেকে যারা আলোচনায় আছেন, তারা হলেন বখতিয়ার আকরাম চৌধুরী অনি, হোসাইন আহমদ, কনক পাল অরুপ ও নজমুল ইসলাম।
জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খানের অনুসারী (তেলিহাওর ব্লক) থেকে সম্ভাব্য যাদের নাম শুনা যাচ্ছে সালাউদ্দিন পারভেজ, সাইফুর রহমান রাজন, শাক্কুর আহমদ জনি, জাওয়াদ খান।
নতুন চমক হিসাবে যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী’র বলয় থেকে বিপ্লব কান্তি দাস, মুহিবুর রহমান, তাহমিদ আহমেদ নাদেল ও দেলোয়ার হোসেন দিলালের নাম শুনা যাচ্ছে।
এদিকে নতুন কমিটি নিয়ে প্রাণচাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে নেতাকর্মীদের মধ্যে। আসন্ন কমিটিতে ত্যাগী ও প্রকৃত ছাত্র, অবিবাহিত ও ক্লিন ইমেজের ছাত্রনেতাদের নিয়ে নতুন কমিটি গঠন করা হবে। এমনটাই দাবী ঊর্ধ্বতন নেতাদের প্রতি তৃণমূলের নেতা কর্মীদের।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ

সংবাদটি পড়া হয়েছে 1176 বার