সিলেটে এক নিরীহ মহিলার বাসায় হামলা ভাংচুর

Pub: বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৭, ২০১৭ ৪:১০ অপরাহ্ণ   |   Upd: বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৭, ২০১৭ ৪:১০ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্টাফ রিপোর্টার :
সিলেটে বাসার তালা ভেঙ্গে এক নিরীহ মহিলার উপর হামলা ও ভাংচুর করে ৫ লক্ষ টাকার ক্ষতিসাধন করেছে দুর্বৃত্তরা। গত ৪ ডিসেম্বর এসএমপি’র শাহপরাণ থানাধীন উপশহর এলাকার ডি ব্লকের ৩১ নং রোডের ৪নং বাসায় এ ঘটনা ঘটে। বাসার তালা ভেঙ্গে ভাংচুর, ৫ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতিসাধন ও ২ বছরের শিশু ইফাজ সহ তাঁর উপর হামলার ঘটনায় গত ৪ ডিসেম্বর সোমবার শাহপরাণ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন ঐ বাসার মালিক মৃত হাজী চুনু মিয়ার মেয়ে ভুক্তভোগী সাজমিন আক্তার।
অভিযোগে উল্লেখ করেন, সাজমিন আক্তার উপশহর এলাকার ডি ব্লকের ৩১ নং রোডের ৪নং বাসার ২য়, ৩য় ও ৪র্থ তলার পূর্বাংশের উত্তরাধিকার সূত্রে মালিক হন। তাই তিনি মাঝে মধ্যে এ বাসাতে অবস্থান করেন এবং নিজে এ বাসা দেখাশুনা করেন। ৫ তলা বিশিষ্ট এ ভবনের ৩য় ও ৪র্থ তলা সাজমিন আক্তার ভাড়া দিয়েছেন এবং ২য় তলায় তিনি মাঝে মধ্যে অবস্থান করেন। গত ৪ ডিসেম্বর সোমবার সকাল সাড়ে ১১টায় তিনি বাসায় গিয়ে দেখতে পান কে বা কাহারা তার বাসার তালা ভেঙ্গে ভেতরে ঢুকে সোকেস, ওয়াড্রপ, সোফা ভাংচুর করে প্রায় ৫ লক্ষ টাকার ক্ষতিসাধন করে ও তাঁর বিভিন্ন জরুরী কাগজপত্র নিয়ে যায়। এমতাবস্তায় সাজমিন আক্তার অভিযোগে উল্লেখিত প্রধান আসামী তার আপন চাচা আনু জামিলকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করেন। এসময় আনু জামিল ক্ষিপ্ত হয় এবং তাকে গালি গালাজ করে। এক পর্যায়ে আনু জামিল তার সহযোগী রিয়াজ উদ্দিন ও আজমল আলীকে নিয়ে সাজমিন আক্তারের উপর হামলা করে। তার ২ বছরের শিশু পুত্র ইফাজ সহ তাকে এলোপাথারী কিল, ঘুষি ও লাথি মেরে তাদের শরীরে বিভিন্ন অঙ্গে ফুলা জখম করে। এসময় হামলাকারীরা তাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ঘটনাস্থল থেকে মাইক্রোবাস যোগে দ্রুত পালিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে শাহপরাণ থানার অফিসার ইনচার্জ আক্তার হোসেন জানান, ঘটনাস্থল পুলিশ পরিদর্শন করেছে এবং অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঘটনা তদন্তাধিন আছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ

সংবাদটি পড়া হয়েছে 1128 বার