৫৪ দিনের স্মৃতি ‘হারিয়ে ফেলেছেন’ সাংবাদিক কাজল!

Pub: Tuesday, May 5, 2020 1:49 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

রাজধানী ঢাকা থেকে নিখোঁজ হওয়ার ৫৪ দিন পর যশোরের বেনাপোলের সাদিপুর ভারতীয় সীমান্ত থেকে উদ্ধার হওয়া চিত্র সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজলকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। 

গ্রেফতারের পর তাকে প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তবে নিখোঁজ থাকার ৫৪ দিনের ইতিহাস তার স্মৃতিতে নেই। দীর্ঘ বন্দিজীবনে অপহরণকারীরা তাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করেছে।

নির্ভরযোগ্য সূত্র বলছে, অপহরণ করার পর অপহরণকারীরা সারাক্ষণ হাত, পা, চোখ, মুখ বেঁধে রেখেছে। শুধু খাওয়ার সময় মুখ ও চোখ খুলে দেওয়া হতো। 

জিজ্ঞাসাবাদের পর পুলিশের এক সূত্র দাবি করেছেন, সাংবাদিক কাজল এত দিন কোথায় ছিলেন সে সম্পর্কে কোনো তথ্য দিতে পারেননি পুলিশকে। তিনি সারাক্ষণই ছিলেন আতঙ্কগ্রস্ত।

তবে সাংবাদিক কাজল ‘কী বলেছেন’, তা জানতে চাইলে এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা বিজিবির সূত্র ধরেই জিজ্ঞাসাবাদ করেছি। কবে কীভাবে ভারতে গেছেন- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি চুপ ছিলেন। তদন্তের প্রয়োজনে তাকে আবারও জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে।’ 

তবে আরেকটি সূত্র বলছেন, কাজল তার অপহরণ নিয়ে মুখ খুলেছেন পুলিশের কাছে। তিনি ধারণা দিয়েছেন, পাপিয়াকান্ডে দেশের কিছু রাঘববোয়ালের ছবি ছেপে ফেসবৃকে মন্তব্য করায় তাকে অপহরণ করা হতে পারে।

সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজলকে হাতকড়া পরিয়ে আদালতে নিয়ে যাওয়ার ছবি প্রকাশ হবার পর বিভিন্ন মহল থেকে নিন্দার ঝড় উঠেছে।

কাজলের হাত পিছমোড়া করে হাতকড়া পরানোর মাধ্যমে নেপথ্যের কুশীলবেরা কী বার্তা দিতে চাইলেন সাংবাদিক সমাজকে? তাই সংবাদকর্মীসহ অনেকেই এই ঘটনার সমালোচনা এবং ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

তবে এ বিষয়ে নাভারন সার্কেল এএসপি জুয়েল ইমরান ও বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মামুন খান জানান, আইনের বাইরে যাওয়ার ক্ষমতা তাদের নেই। আসামি যে-ই হোক পুলিশের আইনে এভাবেই হাতকড়া লাগানোর নিয়ম।

তারা বলেন, ‘উনি শুধু অবৈধ অনুপ্রবেশের আসামি নন, তার নামে ডিজিটাল আইনেও একাধিক মামলা থাকায় নিরাপত্তার বিবেচনায় হাতকড়া লাগানো হয়েছে। আইন সবার জন্যই সমান।’

Hits: 9


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ