fbpx
 

জিয়া,শহীদ জিয়া : আব্দুল হাই শিকদার

Pub: Thursday, November 7, 2019 1:17 AM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

হৃদয়ে তোমার বন পলাশের প্রাণ হু হু পর্বত
দু’চোখে ফুটেছে জোসনার ধান শীষ
বন্ধু আমার কোন পাহাড়ের নির্জনতার দেশে
বেদনার পাশে একা পড়ে আছো ব্যথিত কদমফুল
তুমি ঘুম ঘুম রাঙ্গুনিয়ার পাঁজর মথিত গান
মেঘের মোহন ডানার গহীনে জলের জঙ্গমতা
ক্রিসেন্ট লেকের পাথরে পাথরে বেদনার গোঙরানি
বাতাসে ব্যাকুল রক্তের ঝলকানি।

আমার সোনার দেশ নদী আর নীলাকাশ
আমার সোনার দেশ চাষীদের ক্যাম্পাস
ঈমানের কোণে ঘন হয়েছিলো শতাব্দী-বঞ্চনা
দুয়ারে দুয়ারে অন্ধাকারের দেয়াল
লন্ডভ- বিদেশী পিশাচ বুটের শব্দ কেবল
ফকির মজনু শাহ তোমাকে ডাকি
তিতুমীর বাঁশের কেল্লা তোমাকে ডাকি
ঈশা খাঁ এগার সিন্ধু ঘুমিয়ে পড়েছো?
শেরে বাংলা আবুল হাশিম ভাসানী ভাসানী?

১৯৭১ সাল রক্তের বন্যা
কোথায় উদ্ধার তীর কোথায় স্বজন
নায়ক আমার
অকস্মাৎ জেগে উঠে সিংহশাবক
ভুরুঙ্গামারীর প্রতি জনপদে
রৌমারী আর জাফলং থেকে
ঝড় ওঠে আসে স্বপ্ন পাহাড়
নায়ক তোমার শব্দের ভয়াবহ
ছলাৎ ছলাৎ ঢেউ নেচে ওঠে কমলকলি
জেগে ওঠে দেশ মুক্তিযুদ্ধ
নায়ক আমার বুকের রক্ত মুক্তিযুদ্ধ
রাত কেটে যায়। পূর্বের সূর্য
উঁকি দেয় মাঠে কোথায় স্বদেশ?

সকালের সুখ বিকেলেই মরে যায়
মুখ কালো করে সূর্য ডুবেছে মাঠে
নতুন বর্গী লুণ্ঠন আর
কুৎসিত সব শোষণ শোষণ
নায়ক তোমার দু’চোখ কিসের পানি?

সকালের বদলে আসে জোহাকের দাঁত ঘষটানি
আসে আগ্রাসন আসে হাহাকার
হাঙর কুমির আসে মানুষ আসে না
মহামারী দুর্ভিক্ষ আসে মানুষ আসে না
গোর্কি জলোচ্ছ্বাস আসে মানুষ আসে না
বুলেট বেয়োনেট আসে মানুষ আসে না
মানুষের রক্ত মাখে মানুষের হাত
মানুষ আসে না।

তোমার বুকের মধ্যে জেগে ওঠে ভোরের আকাশ
তোমার বুকের মধ্যে জেগে ওঠে শাহজালালের আযান
তোমার বুকের মধ্যে জেগে ওঠে হানিফার তরবারি
মেঘের আর্দ্র শরীরে তোমার বিজয়ের বিদ্যুৎ
নায়ক তোমার দু’চোখের পানি মুক্তার মত ঝরে
বাংলার আকাশ থেকে দূর হয় শকুনের ডানা
বাংলার মাদুর থেকে নেমে যায় দূষিত দানব
রক্তে রাঙানো মাঠে দুলে ওঠে সবুজ ফসল
সুপ্ত সন্তান শিয়রে রোরুদ্যমান জননী-
বহুদিন পর গোলাপের মতো হাসেন।
পাখি ডাকে ফুল ফোটে
বাতাসে কেবল জীবন আর জীবনের কানাকানি
প্রথম এবং জীবন বাংলাদেশ।

তোমার হৃদয়ের আয়তন ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইল
তোমার চোখের উপমা এশিয়ার গভীর আকাশ
মাঠে ও বিলে কেবল তোমার স্বপ্নের কলরব
এতোটা স্বপ্ন এমন স্বল্প
কে দেখেছে আর তোমার চাইতে
তোমার চাইতে বড় করে আর
কে দেখেছে বলো বাংলাদেশ
তোমার চাইতে বেশি করে আর
কে ভালো বেসেছে বাংলাদেশ।
হঠাৎ গুলির শব্দ
হঠাৎ তপ্ত সিসা
চট্টলা থেকে রক্তের ছিটা তেঁতুলিয়া গিয়ে লাগে
পদ্মা মেঘনা কর্ণফুলী সহসা মুহ্যমান
এগারো কোটি মানুষের মাটি চিৎকার করে ওঠে
আকাশ ফাটায় মানুষের আহাজারি,
এ কার রক্ত? এ কার রক্ত?
ঘাতক! ঘাতক!
নারীর জঠরে জন্ম কি তোর নয়?
-মূর্ছিত মা’র বুকের ওপরে লুটায় বাংলাদেশ!
জীবন তোমাকে ঘুমুতে দেয়নি কর্মের ব্যস্ততা
স্বপ্ন ছড়িয়ে ফিরেছো চারণ-কবি
ক্লান্তিবিহীন মানুষের যুবরাজ
ক্রিসেন্ট লেকের পাথরে পাথরে নেমেছে কি তাই ঘুম?
ঘুম নামে নাই
তোমার পৃথিবী ঘুমের সময় নাই
স্বপ্ন তোমার সারা দেশময় ওড়ে
আমরা ঘুমালে তোমার জন্য গর্জন করে সাগর
আমরা ঘুমালে তোমার স্বপ্ন পতাকায় লেগে থাকে
তোমার জন্য আকাশে আকাশে পাখিদের কলরব
তোমার জন্য টেকনাফ জাগে সূর্য ওঠারও আগে
তোমার জন্য পদ্মা বালু বাতাসে বিরহ বোনে
তোমার জন্য ধানের গন্ধ কষ্টের মতো লাগে
তোমার জন্য সেই মেঠো পথ হৃদয় বিছিয়ে কাঁদে
তোমার জন্য কচি লাউডগা বাতাসে বিলাপ করে
তোমার জন্য পথ চেয়ে একা জেগে থাকে মা
নতুন কালুর ঘাটের পথে আর তুমি আসবে না ?


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ