সুন্দরগঞ্জে জাপার বিক্ষোভে ছাত্রলীগের হামলায় আহত২০: আটক-১

Pub: Thursday, February 13, 2020 9:30 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টি (জাপা) ও তার অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের বিক্ষোভ মিছিলে হামলা করেছে ছাত্রলীগের একাংশ। এ ঘটনায় উভয় পক্ষে আহত হয়েছে অন্ততঃ ১৫ জন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে জাপার শতাধিক নেতা-কর্মী একটি বিক্ষোভ নিয়ে উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স ভবনের সামনে অবস্থান নেয়। এ সময় ছাত্রলীগের একাংশের কতিপয় নেতা-কর্মী হামলা করে। এতে পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সুমন মিয়া, জুয়েল রানা ও যুবলীগের জনি মিয়াসহ ৫ জন আহত হয়েছে বলে আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম দাবি করেন। অপরদিকে উপজেলা জাপার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান মন্ডল দাবি করেন একটি শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে ছাত্রলীগের আকষ্মিক হমলায় পৌর জাপার সভাপতি আব্দুর রশিদ সরকার ডাবলু জাতীয় মহিলা পার্টির আক্তার বানু, জুল হালিফাসহ ৪ জন জাতীয় যুব সংহতি, জাতীয় ছাত্র-সমাজ ও সেচ্ছাসেবক পার্টির অন্ততঃ ১৫ নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে অন্যান্যরা হলেন- গোলাম রুবেল, আবুল কাশেম মন্ডল, আব্দুর রব সরদার, সাইফুল ইসলাম, সুজন মিয়া প্রমূখ। এরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় ছাপড়হাটি ইউনিয়ন শাখার জাতীয় ছাত্র সমাজের সেক্রেটারী ছাইফুল ইসলামকে পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে গেছে। তিনি আরও জানান, ঘটনার পর পৌর জাতীয় পার্টির সভাপতি আব্দুর রশিদ সরকার ডাবলুর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কতিপয় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মী হামলা চালায়। এ সময় অব্দুর রশিদ সরকার ডাবলুকে না পেয়ে তার ছোট ভাই আব্দুর রব সরদার পিএলকে মারপিট করে। পিএল কোন রাজনীতি করে না সে একজন ব্যবসায়ী।
ঘটনার পর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আশরাফুল ইসলাম ছাত্রলীগের ৫ নেতা-কর্মীর আহত হওয়াসহ মুজিব বর্ষের দিনক্ষণ গণণার মেশিন (ঘড়ি) ভাংচুরের দাবি করে মামলা করার ঘোষণা দিয়ে বিকেলে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করার কথা বলেন। এ সময় পৌর মেয়র আব্দুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শফিউল আলম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান উম্মে সালমাসহ উপজেলা আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের অন্যান্য নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু, বিকেল পেড়িয়ে গেলেও উপজেলা চেয়ারম্যানের পক্ষ থেকে কোন প্রকার সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়নি।
মহামান্য হাইকোর্টের আদেশকে শ্রদ্ধা জানিয়ে উপজেলা প্রকল্প বাস্তাবায়ন কর্মকর্তা নুরুন্নবী সরকার বলেন, এ পর্যন্ত বিজ্ঞ বিচার বিভাগের আদেশ যথাযথভাবে মেনে চলছি। একই সঙ্গে আমার উপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করছি। আমি অর্পিত দায়িত্বের অন্যথা করিনি বা বিজ্ঞ আদালতের আদেশ অমান্য করিনি। তিনি বলেন, ২০১৯ সালের ৫ সেপ্টেম্বর (বৃহস্পিতিবার) অফিসে দাপ্তরিক কাজে ব্যস্ত থাকায় সন্ধা ৬ টার পর ৩ জন সংবাদকর্মী এসে অনৈতিক প্রস্তাব ও দাবি উত্থাপণ করেন। এতে অসম্মতি জ্ঞাপন করলে তারা অফিস ও আমার ভিডিও চিত্র ধারণ করেন। এতে নিষেধ করলেও তারা গোপন ক্যামেরা ব্যবহার করেন। এরপর তারা তাদের নিজের দোষকে এঁড়িয়ে একতরফাভাবে আমার উপর দোষ চাপিয়ে দিয়ে সংবাদ পরিবেশন করেন। সে সব সংবাদ ও তাদের ধারণকৃত ভিডিও চিত্রের গড়মিল বা বিপরীতমূখী। ঐ সব সংবাদে তারা তাদের মনগড়া মত আমার দূর্নীতির কথা উল্লেখ করলেও উক্ত সময়ে দূর্নীতি বিষয়ে আমার কোন বক্তব্য তারা জানতে চাননি বা কোন প্রশ্নও করেননি। যা তাদের ধারণকৃত ভিডিও চিত্রিই প্রমাণ করে। তাছাড়া, উক্ত সংবাদগুলোর প্রেক্ষিতে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ ব্যাপকভাবে তদন্ত করেছেন। তদন্তে সংবাদ কর্মীদের মনগড়া মত পরিবেশিত সংবাদ উদ্দেশ্য প্রণোদিত বলে মনে করেন তিনি। ফলে বিজ্ঞ আদালতে মামলাও করেছেন।
থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহিল জামান জানান, উপজেলা পরিষদে লাগানো মুজিব বর্ষের দিনক্ষণ গণনার মেশিন (ঘড়ি) ভাংচুরের ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃত ব্যক্তি হলেন- সাইফুল ইসলাম (২৪)। সে ছাপড়হাটি ইউনিয়ন জাতীয় ছাত্র সমাজের সভাপতি ও উক্ত ইউনিয়নের দক্ষিণ মরুয়াদহ গ্রামের আজগর আলীর পুত্র। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোলেমান আলী বলেন, উপজেলা সমন্বয় কমিটির সভা শুরু করার পূর্ব আজকের এ অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে। এতে সভার বিঘœ ঘটে। মুজিববর্র্ষের দিনক্ষণ গণনার মেশিন (ঘড়ি) ভাংচুরের ঘটনায় তদন্ত চলছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ