৫ কোটি টাকার ব্রিজের সংযোগে কাঠের সিঁড়ি!

Pub: Sunday, February 16, 2020 10:56 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

দুই বছর আগে ৫ কোটি টাকায় সম্পন্ন ব্রিজের দু’পাশের সংযোগ সড়ক করা হয়নি দীর্ঘদিনেও। চিড়াই কাঠ (তক্তা) দিয়ে স্থানীয়ভাবে তৈরি করা হয়েছে সংযোগ সড়ক। আর এ সড়ক দিয়েই সীমাহীন দুর্ভোগে ১৫ গ্রামের স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীসহ নানা শ্রেণিপেশার মানুষকে পারাপার হতে হয়। 
 
জানা যায়, পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার সুজাপুর-কদমতলীহাট সড়কে ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ব্রিজটি নির্মিত হয়েছিল। দুই বছর আগে নির্মাণ শেষ হলেও আজো ব্যবহার উপযোগী না করায় কোমলমতি শিক্ষার্থীসহ নানা পেশার কয়েক হাজার মানুষ ঝুঁকি নিয়ে ব্রিজটি পার হচ্ছেন প্রতিদিন। আর এতে এই সড়কে চলাচলরত ১৫টি গ্রামের মানুষকে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সুজাপুর-কদমতলীহাটের সংযোগের জন্য রত্নাই নদীর ওপর দিয়ে ৯৬ দশমিক ২০ মিটার দৈঘ্য পিসি গার্ডার ব্রিজটির কাজ শেষ হয় প্রায় দুই বছর আগে। কিন্তু ঠিকাদারের অবহেলায় দুইপাশে সংযোগ সড়কের কাজটুকু এখনও সম্পন্ন হয়নি। ফলে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছেন স্থানীয় লোকজন।

সুজাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আক্কেল আলী জানান, গ্রামের মানুষ এই ব্রিজ দিয়ে আটঘরিয়া-চাটমোহর উপজেলাসহ বিভিন্ন এলাকায় যাতায়াত করেন। এই ব্রিজ দিয়ে কদমতলী মহিলা মাদরাসা, ফৈলজানা উচ্চ বিদ্যালয় ও সুজাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী এবং এলাকার সাধারণ মানুষ চলাফেরা করেন। কিন্তু সংযোগ সড়ক না থাকায় ব্যবহৃত কাঠের সিঁড়ির কারণে ব্রিজের দুইপাশে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা।

আটঘরিয়া উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী (এলজিইডি) এএইচএম রবিউল আলম রিজভী বলেন, রত্নাই নদীর ওপর নির্মিত এই ব্রিজটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ৫ কোটি ৫ লাখ ৬৩ হাজার ১২২ টাকা। সংযোগ সড়ক নির্মাণে ঠিকাদারকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। দ্রুতই ব্রিজটির সংযোগ সড়ক নির্মাণ করা হবে এমন দাবি তার।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ