ভোটারের অনুপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো

Pub: মঙ্গলবার, মার্চ ১৩, ২০১৮ ১০:৪৫ অপরাহ্ণ   |   Upd: মঙ্গলবার, মার্চ ১৩, ২০১৮ ১০:৪৫ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের উপ-নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছে। সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়ে বিরতিহীনভাবে চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এ আসনের মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৩৮ হাজার ৫৫৬ জন এবং মোট ভোট কেন্দ্র ১০৯টি। তবে সকালে থেকেই ভোটারের উপস্থিতি ছিল খুবই নগন্য।

জামায়াত অধ্যুষিত বেলকা এমসি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটার রয়েছেন ৩ হাজার ৩৯০ জন। কিন্তু ভোট শুরুর প্রথম থেকেই ভোটারদের আনা-গোনা তেমন ছিলই না। ৫-৬ মিনিট পর পর পুরুষ ভোটারদের দুএকজনকে দেখা গেলেও নারী ভোটারের আকাল ছিল। অথচ এই কেন্দ্র নারী ভোটার পুরুষের চেয়ে ১১৬ জন বেশি।

অপরদিকে, ক্ষুদিরাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রটি আওয়ামী লীগের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত। ইতোপূর্বে একাধিক নির্বাচনে নৌকা প্রতীক প্রথম হয়েছে। কিন্তু এবার এই কেন্দ্রেও ভোটারদের টানতে পারেনি নৌকার সমর্থকরা।

এই কেন্দ্রে মোট ভোটার ৫ হাজার ৬৪ জন। ১১টা ৫০ পর্যন্ত ভোট পড়েছিল মাত্র ৯২৭টি। শতকরা হার ১৮ দশমিক ৩০ শতাংশ। নারী ভোটার রয়েছেন ২ হাজার ৬২২ জন। ভোট পড়েছিল ১৪ দশমিক ৭৫ শতাংশ।

এদিকে, উপ-নির্বাচনে কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করায় আওয়ামী লীগের চার নেতাকে আটক করেছে পুলিশ।

দুপুরে গোপাল চরণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে তাদের আটক করা হয় বলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম গোলাম কিবরিয়া জানান।

আটকরা হলেন, উপজেলার দহবন্দ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আশেক আলী (৪৫), উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল আলম রেজা (৪০), দহবন্দ ইউনিয়ন স্বেচ্ছসেবকলীগের সভাপতি জুয়েল রানা (৩৫) ও ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সদস্য দুদু মিয়া (৩০)।

ইউএনও বলেন, ওই চারজন কেন্দ্রের ভেতরে অবস্থান করে নৌকার প্রার্থীর পক্ষে প্রচার চালানোর চেষ্টা করলে কর্তব্যরত ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সামিউল আমিন তাদের আটক করে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন।

ভোট শেষে জরিমানা আদায় করে তাদের ছেড়ে দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

সংসদ সদস্য গোলাম মোস্তফার মৃত্যুতে আসনটি শূন্য হলে তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। ঘোষিত তফসিল অনুসারে মঙ্গলবার সকাল থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

শুরুকে ভোটার উপস্থিতি কম থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে উপস্থিতি বাড়তে থাকে বলে জানান নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান।

বেলা ১২টা পর্যন্ত গড় ভোট ২০ শতাংশ ভোট পড়েছে বলেও জানান তিনি।

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের আওয়ামী লীগ-দলীয় সাংসদ গোলাম মোস্তফা আহমেদ গত ১৯ ডিসেম্বর মারা যান। তার মৃত্যুতে শূন্য হওয়া এ আসনে চারজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরা হলেন- আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী নিহত সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের বোন আফরুজা বারী, জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) প্রার্থী জিয়া জামান এবং গণফ্রন্টের শরিফুল ইসলাম।

Print

শীর্ষ খবর/আ আ

সংবাদটি পড়া হয়েছে 1113 বার

 
 
 
 
মার্চ ২০১৮
রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
« ফেব্রুয়ারি   এপ্রিল »
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
 
 
 
 
WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com