fbpx
 

ময়মনসিংহে যুবলীগ আহ্বায়কসহ নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার

Pub: মঙ্গলবার, আগস্ট ২৮, ২০১৮ ৮:৫১ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আনিসুর রহমান ফারুক, ময়মনসিংহ :

অবশেষে বহুল আলোচিত ময়মনসিংহ মহানগর যুবলীগের আহবায়ক শাহীনুর রহমানের নামে বাবুল চিশতীর দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে নিয়েছে মামলার বাদী মো:রবিউল ইসলাম।

মামলার বিবরণীতে জানা গেছে, বিগত ১৩জানুয়ারী ২০১৮ইং তারিখে ময়মনসিংহ মহানগর যুবলীগের আহবায়ক শাহীনুর রহমানসহ যুবলীগের ৭০/৮০জনের নামে ১০কোটি টাকার চাঁদাদাবীর মামলা দায়ের করেছিলেন বাবুল চিশতীর কোম্পানীর প্রকৌশলী মো.রবিউল ইসলামকে বাদী করে

একটি মামলা দায়ের করেন যার মামলা নং-৫৬ (০১)১৮, পরে মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন যার জি আর নং-৫৬/১৮ ধারা আইন শৃঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধ দ্রুত বিচার (সংশোধনী)এর ৪/৫ধারা। অদ্য ২৮ আগষ্ট ২০১৮ইং ময়মনসিংহের দ্রুত বিচার আদালতে মামলাটির তারিখ থাকায় বাদী মো.রবিউল ইসলাম স্বশরীরে উপস্হিত থেকে বিজ্ঞ আদালতে মামলাটি প্রত্যাহার ও পরিচালনা না করার জন্য আদালতে এফিডেফিট দাখিল করেন

এ বিষয়ে মামলার বাদী রবিউল ইসলাম জানান,তিনি চিশতি সাহেবের কোম্পানীতে চাকুরীরত ছিলেন তাই উনার নির্দেশ মোতাবেক ঘটনাস্হলে উপস্হিত না থেকেও আমি মামলাটি দায়ের করেছিলাম,আমি আমার ভুল বুঝতে পেরে ও ভবিষৎতের কথা ভেবে মামলাটি তুলে নিয়েছি ও আদালতে এফিডেফিট দাখিল করেছি।

এ ব্যাপারে ময়মনসিংহ মমহানগর যুবলীগের আহবায়ক শাহীনুর রহমান বলেন, বাবুল চিশতি ফারমার্স ব্যাংক থেকে আমাকে লোন দেয়ার কথা বলে আমার ৫কোটি টাকার মূল্যের জমি রেজিস্ট্রি করে নেয়,এর মধ্যে দেড়কোটি টাকার সেকশন করে ৭০লাখ টাকা উনি নিজেই নিয়ে নেন,পরর্বতীতে আমার নিজ জমিতে সিরামিক ফ্যাক্টরীর করার কথা বলে আমার কাছ থেকে আরো দুই কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়

কিন্তু আমার জমিতে ফ্যাক্টরী না করে এবং আমার পাওনা টাকা না দেয়ার পায়তারা শুরু করলে আমি আইনজীবীদের সাথে পরামর্শ করে ময়মনসিংহের জেলা ও দায়রা জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করি মামলা নং-(৫)২০১৭। বিজ্ঞ আদালত সেটি আমলে নিয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনকে তদন্তের জন্য নির্দেশ দেন। মূলত এরই জের ধরে আমিসহ আমার যুবলীগের নেতাকর্মীদের নামে কয়েকটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন বাবুল চিশতি।আমি এসব ঘটনায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে সুষ্ঠু বিচার কামনা করছি।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ