ভালুকায় তথ্যের অভাবে মাঠ থেকে ছিটকে গেল রাজৈ ও মেদিলা স্কুল

Pub: বুধবার, সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৮ ৮:৪২ অপরাহ্ণ   |   Upd: বুধবার, সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৮ ৮:৪২ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

মোঃ রফিকুল ইসলাম রফিক,বিশেষ প্রতিনিধি ঃ নিয়ম মাফিক খেলোয়াড়দের ছাত্রত্বের তথ্যাবলী প্রদর্শনে ব্যার্থ হওয়ায় চলমান গ্রীষ্মকালীন খেলার মাঠ থেকে ছিটকে গেছে রাজৈ উচ্চ বিদ্যালয় ফুটবল দল ও মেদিলা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় ফুটবল দল। বুধবার দুপুর ও বিকেলে পৃথক দু’টি দলের খেলা অনুষ্টিত হওয়ার কথা ছিল। এ নিয়ে খেলোয়ার ও ছাত্র অভিভাবকগন সংশ্লিষ্ঠ স্কুলের শিক্ষকদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

সুত্র মতে,বাংলাদেশ জাতীয় স্কুল,মাদ্রাসা কারিগরি শিক্ষা ক্রীড়া সমিতি আয়োজিত গ্রীষ্মকালীন খেলাধুলার অংশ হিসেবে মাধ্যমিক স্তরের প্রতিষ্ঠান গুলোর মধ্যে ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু হয়েছে। উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের ১১টি ভ্যানু ও পৌর সভার ১টি ভ্যানু ছাড়াও ছাত্রীদের জন্য ১টি ভ্যানুসহ মোট ১৩টি ভ্যানুতে এক যোগে ফুটবল খেলা শুরু হয়। ইউনিয়ন পর্যায় শেষ করে মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছে ইউনিয়ন চ্যাম্পিয়নদের নিয়ে উপজেলা পর্যায়ের প্রতিযোগীতা।

ভালুকা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রতিদিন তিনটি করে খেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। মঙ্গলবার কয়েকটি দলের খেলোয়ারদের তথ্য উপস্থাপনে ব্যার্থতার কারনে কয়েকজন কে খেলা থেকে বিরত রাখলেও বুধবার ঘটে উল্টো। খেলায় মন্ত্রনালয়ের নির্দেশনা মোতাবেক পরিশিষ্ট ’ক’ তে একজন খেলোয়ারের তথ্যাবলীর ব্যাখ্যা দেয়া আছে যা প্রতিটি ভ্যানুতে সরবরাহ করা হয়েছে। নিদের্শনা মোতাবেক তথ্যাবলী প্রদর্শন করতে না পারার কারনে বুধবার দুপুর ২টার খেলায় রাজৈ উচ্চ বিদ্যালয় ও বিকেল ৪টার খেলায় মেদিলা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় দলকে বাতিল ঘোষনা করে খেলা কর্তৃপক্ষ। রাজৈ উচ্চ বিদ্যালয়ের সাথে ভালুকা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় এবং মেদিলা উচ্চ বিদ্যালয়ের সাথে আঃ গনি উচ্চ বিদ্যালয় দলের খেলা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

সে মাফিক ভালুকা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলোয়ারদের তথ্যাবলী সঠিক থাকায় না খেলে বিজয়ী হয় অপর দিকে তথ্যের অভাবে আঃ গনি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭জনকে বাতিল করা হলেও ৯জন নিয়ে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় বিজয়ী হয় তারা। বেলা ১১টায় অনুষ্ঠিত মল্লিকবাড়ী শহীদ নাজিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় ও বান্দিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলাটিতে যথাযথ তথ্য না থাকায় শহীদ নাজিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় দলকে ১০জন নিয়ে মাঠে নামতে হয়। তবে তারা ১০জনে খেলেই প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করে দলকে বিজয়ী করতে সক্ষম হয়েছে।

বাতিল হওয়া দলের মধ্যে মেদিলা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি’র সভাপতি জন্মম মিস্ত্রী সহ অন্যান্য অভিভাবকগন খেলার মাঠেই বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তাদের মতে চিঠির নির্দেশনা মোতাবেক তথ্যাদি সংরক্ষন ও সরবরাহ করেই মাঠে আসার কথা। এ অবস্থায় খেলার মাঠে এসে বিব্রত পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়েছে খেলোয়ারসহ অভিভাবক ও সমর্থকদের।

এ সময় খেলা কমিটি’র সদস্য সচিব ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ চান মিয়া,উপজেলা ক্রীড়া সংস্থা’র সাধারন সম্পাদক ওমর হায়াত খান নঈম,ভালুকা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আশেক উল্লাহ চৌধুরী,শহীদ নাজিম উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোজাম্মেল হক কিরন,

বান্দিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আইয়ুব হোসেন খান,সোনার বাংলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরুল ইসলাম মানিক,আশকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান, মেদিলা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খায়রুল আলম, ফুটবলার বোরহান উদ্দিন,শামীউল হক শামীম সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক ও সহঃ শিক্ষকবৃন্দ, খেলোয়ার, ছাত্র ও স্থানীয় সুধীজনরা উপস্থিত ছিলেন।

যথাযথ তথ্যের অভাবে প্রতিযোগীতা মুলক খেলা দুটি বাতিল হওয়ার পর রাজৈ উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলোয়াররা ফিরে গেলেও মেদিলা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় এবং আঃ গনি উচ্চ বিদ্যালয় দল প্রীতি ম্যাচ খেলায় অংশ নেয়। এতে মেদিলা আদর্শ স্কুল ২-০গোলে আঃ গনিকে পরাজিত করায় উপস্থিত দর্শকদের আফসোসের মাত্রা ও ক্ষোভকে আরো বাড়িয়ে দেয়।

Print

শীর্ষ খবর/আ আ

সংবাদটি পড়া হয়েছে 1284 বার

 
 
 
 
সেপ্টেম্বর ২০১৮
রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
« আগষ্ট    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  
 
 
 
 
WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com