আ’লীগের সাবেক এমপি ও সাধারন সম্পাদককে কেউ দাওয়াত দেয়নি !

Pub: শুক্রবার, নভেম্বর ২, ২০১৮ ৮:৫৮ অপরাহ্ণ   |   Upd: শুক্রবার, নভেম্বর ২, ২০১৮ ৮:৫৮ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আনিসুর রহমান ফারুক, ময়মনসিংহ :

ময়মনসিংহে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভায় দাওয়াত পায়নি জেলা আওয়ামীলীগের অনেক প্রবীন ও ত্যাগী নেতারা। তাদের একজন জেলা আওয়ামী লীগের টানা ১৩ বছর দায়িত্ব পালন করা সাবেক সাধারন সম্পাদক ও সাবেক এমপি আব্দুল মতিন সরকার।

ফলে দলের ভালোবাসার টানে বিশাল মিছিল নিয়ে জনসভা স্থলে আসলেও মঞ্চে বা মঞ্চ সংলগ্ন কোন স্থানে আসন পাননি তিনি।

পরে জনসভার অদূরে আবুল মনসুর সড়কের আবাহনী ক্লাবের সামনের রাস্তার উপরে তিনি একটি চেয়ারে বসে প্রধানমন্ত্রীর বক্তৃতা শুনেন। কিন্তু এতেও ঘটে বিড়ম্বনা।

জনসভার নিরাপত্তায় নিয়োজিত পুলিশ ও আর্মড পুলিশের সদস্যরা তাকে চেয়ার থেকে উঠিয়ে দিয়ে চেয়ার টেনে নিয়ে যেতে চেষ্টা করেন। তবে এ সময় এক পুলিশ সদস্য তার পরিচয় জেনে তাঁর পাশে দাঁড়ানো কর্মীদের সরিয়ে দিয়ে আব্দুল মতিন সরকারকে বসতে দেন।


শুক্রবার বিকেলে ময়মনসিংহ সার্কিট হাউজের আবুল মনসুর সড়কের আবহনী ক্লাবের সামনের এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ঘটনাটি দৃশ্যমান হলে জনসভায় আসা উপস্থিত আওয়ামীলীগ নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।

ঘটনাস্থলেই সালাম বিনিময়ে কথা হয় ত্রিশাল উপজেলার দুই বারের উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন সরকারের সাথে।

তিনি জানান, ছাত্রলীগ করেছি। কলেজের ভিপি ছিলাম। দুই বার উপজেলা চেয়ারম্যান ছিলাম। ময়মনসিংহ-৭ ত্রিশাল আসন থেকে একবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছি। জেলা আওয়ামীলীগের ১৩ বছর সাধারন সম্পাদকের দ্বায়িত্ব পালন করেছি। তিন বার জেল খেটেছি। অসংখ্য মামলা-হামলায় নির্যাতিত হয়েছি।

এ সময় তিনি আক্ষেপ করে বলেন, আয়োজকদের কেউ দাওয়াত দেয়নি। জনসভার প্রস্তুতি সভাতেও জানানো হয়নি। তবুও বঙ্গবন্ধুর আদর্শে দল করি। দলকে ভালোবাসি। তাই হৃদয়ের টানেই প্রধানমন্ত্রীর বক্তৃতা শুনতে মিছিল নিয়ে জনসভায় যোগদান করেছি।

এবিষয়ে জানতে ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাড.জহিরুল হক খোকা এবং সাধারন সম্পাদক অ্যাড. মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুলের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের বক্তব্য জানা যায়নি।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ

সংবাদটি পড়া হয়েছে 1943 বার