নারায়ণগঞ্জে ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী আকরামের গণসংযোগ আ’লীগের হামলা ও ভাংচুর

Pub: রবিবার, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৮ ৮:৪৯ অপরাহ্ণ   |   Upd: রবিবার, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৮ ৮:৪৯ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জ-৫ (সদর-বন্দর) আসনের ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী এসএম আকরামের উঠান বৈঠকে আলিরটেক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা মতিউর রহমানের নেতৃত্বে ভাঙচুর চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এদিকে রাত ৮টায় নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনায় অভিযোগ করেন। তিনি নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দায়ের করবেন বলে জানান।
নারায়ণগঞ্জ ৫ আসনের ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থীএসএম আকরামের গণসংযোগে মতি চেয়ারম্যানের নের্তৃত্বে বাধা প্রদানের অভিযোগ উঠেছে। রবিবার রাত সাড়ে ৭টায় এসএম আকরাম নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবে এক প্রেস ব্রিফিংএ এ অভিযোগ করেন।
রবিবার (১৬ ডিসেম্বর) বিকেলে বিএনপিসহ ঐক্যফ্রন্টের নেতাকর্মীদের সঙ্গে সদর উপজেলার আলীরটেকে নির্বাচনী প্রচারণায় যান এসএম আকরাম। আলীরটেক ইউনিয়নের পুরান বাজার এলাকায় উঠান বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল। এ সময় আওয়ামীলীগ নেতা মতিউর রহমান তাঁর অনুসারীদের নিয়ে পুরান বাজারে আকরামের উঠান বৈঠকে ভাঙচুর চালায়। এ সময় তারা চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর ও খাবার নষ্ট করে উঠান বৈঠক পন্ড করে দেয়।
এ বিষয়ে প্রতক্ষ্যদর্শীর ও এসএম আকরামের ঘনিষ্টজন ইকবাল কবির বলেন, বিকেলে আলীরটেক পুরান বাজারে আমাদের একটি সভা হবার ছিলো। যথা সময়ে আমরা সেখানে পৌছাই। ঠিক তখনই আওয়ামীলীগ সমর্থক উক্ত এলাকার চেয়ারম্যান মতিউর রহমান ও তার লোকজন আমদের সভায় হামলা করে। তখন তারা আমাদের সভা নষ্ট করে দেয়। চেয়ার ভাংচুর করেন, সভার জন্য তৈরি করা খাবার নষ্ট করে দেয়।
রবিবার (১৬ ডিসেম্বর) বিকেলে বিএনপিসহ ঐক্যফ্রন্টের নেতাকর্মীদের সঙ্গে সদর উপজেলার আলীরটেকে নির্বাচনী প্রচারণায় যান এসএম আকরাম। আলীরটেক ইউনিয়নের পুরান বাজার এলাকায় উঠান বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল। এ সময় আওয়ামীলীগ নেতা মতিউর রহমান তাঁর অনুসারীদের নিয়ে পুরান বাজারে আকরামের উঠান বৈঠকে ভাঙচুর চালায়। এ সময় তারা চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর ও খাবার নষ্ট করে উঠান বৈঠক পন্ড করে দেয়।
এ বিষয়ে প্রতক্ষ্যদর্শীর ও এসএম আকরামের ঘনিষ্টজন ইকবাল কবির বলেন, বিকেলে আলীরটেক পুরান বাজারে আমাদের একটি সভা হবার ছিলো। যথা সময়ে আমরা সেখানে পৌছাই। ঠিক তখনই আওয়ামীলীগ সমর্থক উক্ত এলাকার চেয়ারম্যান মতিউর রহমান ও তার লোকজন আমদের সভায় হামলা করে। তখন তারা আমাদের সভা নষ্ট করে দেয়। চেয়ার ভাংচুর করেন, সভার জন্য তৈরি করা খাবার নষ্ট করে দেয়। এস এম আকরাম সাংবাদিকদের বলেন, এ বিষয়ে আমরা এসপি সাহেবকে জানিয়েছি এবং সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে জানিয়েছি।
এদিকে আলীরটেক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মতিউর রহমান অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এখানে বিএনপির কোনো জনসভা ছিলো না। এরকম ঘটনা ঘটেনি।
এ বিষয়ে সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম বলেন, এই বিষয়ে কোন অভিযোগ থানায় জানানো হয়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেবো।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ