প্রজন্মকে বই পড়ায় আকৃষ্ট করছে বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র,মাসুদ কামাল

Pub: শনিবার, জানুয়ারি ১২, ২০১৯ ১০:৩৫ অপরাহ্ণ   |   Upd: শনিবার, জানুয়ারি ১২, ২০১৯ ১০:৩৫ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোঃ রফিকুল ইসলাম রফিক,বিশেষ প্রতিনিধি : ভালুকা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ কামাল বলেছেন, নতুন প্রজন্মকে বই পড়ার দিকে মনোযোগী করতে বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র নিরলস প্রচেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের এ কর্মসুচীর ধারাবাহিক অংশ ভ্রাম্যমান বই মেলা। এ মেলার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা নতুন নতুন বইয়ের সাথে পরিচিতি লাভ করছে।

তারা বই দেখছে,পড়ছে এবং পছন্দ মাফিক কিনে নিচ্ছে। তিনি বলেন,সাহিত্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আবু সায়ীদ স্যারের এ প্রচেষ্ঠা নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়। ফেসবুক,মোবাইল গেমসহ ডিভাইস ভিত্তিক বিভিন্ন নেশা থেকে শিশুদের রক্ষা করে বই পড়ার দিকে ধাবিত করতে বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র যে কর্মসুচী নিয়েছে তা এগিয়ে নেয়া সকলের প্রয়োজন।

মাসুদ কামাল শনিবার বিকেলে ভালুকা সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের তিন দিন ব্যাপী ভ্রাম্যমান বই মেলার সমাপনী দিনে বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন শেষে গনমাধ্যমকে উপরোক্ত কথা বলেন। এ সময় ভালুকা সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিনুর রহমান চৌধুরীসহ আয়োজক সংশ্লিষ্ঠগন এবং মেলায় আগত বই প্রেমী পাঠকও দর্শনার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

আয়োজক সংশ্লিষ্ঠরা জানান,এ বছরের প্রথম প্রোগ্রাম ভালুকা দিয়ে শুরু হয়েছে।পর্যায়ক্রমে দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা শহরে এ আয়োজন চলতে থাকবে। এটি বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের ৬৯তম আয়োজন। তারা বলেন,বই বিক্রি হয়েছে আশাব্যাঞ্জক। পাঠকরা আকৃষ্ট হচ্ছে। প্রথম দিকে বুঝতে না পারলেও শেষের দিকে প্রচার বৃদ্ধি পাওয়ায় এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের আগমনে মেলাটি শেষ পর্যায়ে এসে জাঁকজমক হয়ে উঠে।

মেলার ব্যাপ্তি বিষয়ে জানতে চাইলে তারা বলেন, ভবিষ্যতে কেন্দ্রে আলোচনা করে এর স্থিতিকাল কিভাবে বৃদ্ধি করা যায় তা নির্ধারন করা হবে। আপাদত উপজেলা পর্যায়ে ৩দিন,জেলা পর্যায়ে ৪দিন এবং বিভাগীয় শহর গুলিতে ৫দিনের আয়োজন চলছে। এ দিকে মেলায় আগত শিক্ষার্থীরা হাতের কাছে দুর্লভ কালেকশান পেয়ে তারা অনেক খুশী হয়েছে। তবে প্রথম দিকে তারা বুঝতে সক্ষম হয়নি।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ