fbpx
 

ফসলের ক্ষেতে তালায় ইটের পাজা স্থাপন স্থাস্থ্য ঝুঁকিতে এলাকাবাসী

Pub: শুক্রবার, জানুয়ারি ১৮, ২০১৯ ৮:৩০ অপরাহ্ণ   |   Upd: শুক্রবার, জানুয়ারি ১৮, ২০১৯ ৮:৩০ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি ॥
সরকারি নীতিমালা উপেক্ষা করে সাতক্ষীরার তালায় বানিজ্যিক ভিত্তিতে ”রিয়া ব্রিকস” নামে ইট প্রস্তুত কারখানা (পাজা) স্থাপনের অভিযোগ উঠেছে। জনবসতিপূর্ণ, ফসলের ক্ষেত ও ঘন অরণ্যের মধ্যে স্থাপিত ইট পাজার বিষাক্ত ধোঁয়ায় এলাকার সামগ্রিক পরিবেশ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। উর্বর ফসলি ক্ষেতের মাটি কেটে ইট প্রস্তুত ও তা পুড়াতে ব্যাপকভাবে কাঠ পুড়ালেও স্থানীয় প্রশাসন এক অজ্ঞাত কারণে কোন ভুমিকা নিচ্ছেননা।
এলাকাবাসীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে শুক্রবার বিকালে তালা সদর ইউনিয়নের আটারই গ্রামে ভেড়ার মাঠের রিয়া ব্রিকস গেলে দেখা যায়, ইট পাজা (ভাটার) চারপাশে ঘণ সবুজ ফলদ-বনজ বৃক্ষরাজি, ফসলের ক্ষেত, পানের বরজ ও জনবসতিপূর্ণ এলাকা। ভাটার মালিক স্থানীয় আটারই গ্রামের আবুল সরদারের ছেলে হালিম সরদার পাশ্ববর্তী আগলঝাড়া গ্রামের সিরাজুল ইসলাম নামে এক ব্যাক্তির কাছ থেকে জমি লীজ নিয়ে গড়ে তুলেছেন ঐ ভাটা।
এলাকাবাসী জানায়, হালিম সরদার প্রায় বছর খানেক যাবৎ সেখানে বানিজ্যিক ভিত্তিতে ইট ভাটা গড়ে তোলায় ভাটার বিষাক্ত ধোাঁয়ায় এলাকার সামগ্রিক পরিবেশ হুমকির মুখে পড়েছে। ফসলের ক্ষেত, বৃক্ষরাজি, পানের বরজের ব্যাপক ক্ষতি সাধনের পাশাপাশি সাধারণ মানুষ মারাতœক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছে। এব্যাপারে জরুরী ভিত্তিতে প্রশাসনের উদ্ধর্তন মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসি।
সূত্র জানায়, চলতি ইট প্রস্তুত মৌসুমে ইতোমধ্যে তারা চার’টি পাজা ইট পুড়িয়েছেন। এছাড়া পরবর্তী পাজাসাজাতে ইট ভাটা পাড়ানে কেটে রাখা হয়েছে লক্ষাধিক কাঁচা ইট, স্তুপকারে রাখা হয়েছে বিলুপ্ত প্রায় খেঁজুর গাছ, বাঁশের মুড়াসহ বিভিন্ন প্রজাতির ফলদ ও বনজ গাছের শ’শ’ মণ কাঠ।
সরকারি নীতিমালা বা ইট পুড়ানো নিয়ন্ত্রণ অধ্যাদেশ অনুযায়ী ইট পুড়াতে কাঠের ব্যবহার নিষিদ্ধ করে আইন তৈরী হলেও তারা আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে ইট পুড়াতে কয়লার পরিবর্তে শুধুমাত্র কাঠ ব্যবহার করে রীতিমত বৃক্ষ নিধনে মেতে উঠেছেন।
এব্যাপারে ভাটার মালিক মালিক হালিম সরদার বলেন, তারা আইন মেনে সবকূল ম্যানেজ করেই ভাটা পরিচালনা করছেন। এসময় ভাটার অনুমতি বা লাইসেন্স বলতে তারা স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের একটি ট্রেড লাইসেন্স নিয়েছেন বলেও জানান। বন ও পরিবেশ অধিদপ্তরের অনুমতি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা যৌথ মালিকানায় ভাটা স্থাপন করেছি। ওসব কিছু লাগবেনা।
এ ব্যাপারে তালা উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা (এসিল্যান্ড) অনিমেষ বিশ্বাস বলেন, যদি কেউ অনুমতিহীনভাবে ইটভাটা পরিচালনা করে পরিবেশ দূষণ করে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ