আ’লীগের দূর্দিনে ত্যাগী ও নির্যাতিত যোগ্য পিতার, সুযোগ্য সন্তানকে মনোনয়নের দাবী

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আনিসুর রহমান ফারুক, ময়মনসিংহ :

সময় যতই ঘনিয়ে আসছে, ময়মনসিংহের সদর উপজেলা পরিষদের সম্ভাব্য প্রার্থীদের নির্বাচনী দৌড় ঝাপ ততই বাড়ছে।

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে চেয়ারম্যান পদে বিভিন্ন সম্ভাব্য প্রার্থীরা ভোটের মাঠে সাধারন ভোটারদের কাছে ছুটে যাচ্ছে। সদর উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসাবে কয়েকজন প্রার্থী প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে।

আসন্ন পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সদর এলাকায় প্রত্যন্ত পল্লীর সার্বিক উন্নয়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ও বর্তমান সরকারের চলমান উন্নয়নের সারথি হতে আওয়ামী লীগ থেকে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন চেয়ে প্রার্থী হয়েছেন আওয়ামীলীগের চরম দু:সময়ের কান্ডারী বিগত বিএনপি-জামাত জোটের শাসনামলে আওয়ামীলীগ বিরোধীদল থাকাকালীন সময়ে দলের তৃনমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ করে রেখেছিলেন।

রাজপথের আন্দোলন সংগ্রামসহ সকল কর্মসূচী গুলোতে অর্থনৈতিক সার্পোট দেয়া থেকে শুরু করে সকল কারান্তরীন নেতাকর্মীদের জামিনে মুক্ত করতে ব্যাপক ভূমিকা নেয়ায় তৎকালীন বিএনপি জোটের নেতাকর্মীদের দ্বারা চরম অত্যাচার নির্যাতিত হতে হয়েছে দলের জন্য।

ময়মনসিংহে আওয়ামী রাজনীতিতে দলের দূর্দিনের সাথী হয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের জন্যে যে পরিমাণ ত্যাগ-স্বীকার করে নিজের পরিবারের সুখ শান্তি বিসর্জন দিয়ে দু:সময়ে সকল অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের দলীয় কর্মসূচী গুলোতে অর্থের সাথে নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কাজে ব্যবহৃত ট্রাক দিয়ে সদরের প্রত্যন্ত পল্লী থেকে নেতাকর্মীদের আসা-যাওয়ার জোগান দেওয়াসহ রাজপথে বিরোধী দলের আন্দোলনে জোরালো অবস্থান নিয়ে সাংগঠনিক ভিতকে শক্তিশালী করতে তৃনমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের খোঁজ-খবর নেয়াসহ তাদের পরিবারের সাংসারিক খরচও বহন করেন আওয়ামী রাজনীতিতে।

দলের দু:সময়ের সঙ্গী হয়ে থাকা স্বত্বেও মূল্যায়িত করেনি স্বার্থনেশী একটি পক্ষ। গত ২০০৯ সালে সদর উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে তৃনমূল নেতাকর্মীদের জোড়ালো দাবীতে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগসহ সকল অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা সমর্থন দিলেও একটি পক্ষ নাটকীয়ভাবে মনোনয়ন থেকে বঞ্চিত করেন দূর্দিনের সময় ত্যাগ স্বীকার করেও মূল্যায়ন না করলেও সব হিসেবের বাইরে; তবুও যেভাবে আছেন, তাতেও সন্তুষ্ট।

এখনো বয়োবৃদ্ধ বয়সে দলের জন্য কাজ করে চলেছেন নিবেদিত প্রাণ হয়ে। দলের জন্য এখনো পরিশ্রম করে যাচ্ছেন নিঃস্বার্থভাবে।আকুয়া মোড়লপাড়ার কৃতি সন্তান, বর্ষীয়ান আওয়ামীলীগ নেতা, জেলা মোটরযান শ্রমিকদের আস্হা, বিশিষ্ট শ্রমিক নেতা, ময়মনসিংহ মোটরযান শ্রমিক ইউনিয়নের উপদেষ্টা, আলহাজ্ব আব্দুল মান্নান।পরবর্তীতে ওয়ান-ইলেভেন সময়ে মেজর শাহরিয়ারের নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল মান্নানের সন্তানদের ও পরিবারকে দফায় দফায় নির্যাতন করে এবং ষড়যন্ত্র করে একটি হত্যা মামলায় ফাঁসিয়ে ব্যাপক নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে।

ময়মনসিংহে আওয়ামী রাজনীতিতে ত্যাগ-তিতীক্ষায় কঠিন অগ্নিপরীক্ষায় উর্ওীণ, বর্ষীয়ান আ’লীগের সেই শ্রমিক নেতা আলহাজ্ব আব্দুল মান্নানের সুযোগ্য সন্তান, শৈশব থেকেই ছাত্রলীগের রাজনীতিতে নিজেকে জড়িয়ে ফেলেন তাকে। নগরীর মুকুল নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০০৪ইং সালে এসএসসি পাশ করে। মোমেনশাহী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ থেকে ২০০৬ইং সালে এইচএসসি পরীক্ষায় কৃতীত্বের সাথে পাশ করার পর ত্রিশালে প্রতিষ্ঠিত জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে বিগত
২০০৬ ইং সালে প্রথম ব্যাচে ভর্তি হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের রাজনীতি প্রতিষ্ঠায় শিক্ষার্থীদের উজ্জ্বীবিত করে ছাত্রলীগের প্রথম কমিটি গঠন করেছিল বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাস্পাসে।

ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে ক্যাম্পাস ছাড়াও ময়মনসিংহে ছাত্রলীগের একজন নিবেদিত কর্মী হয়ে পিতার রাজনীতিতে নিজেকে সক্রিয়ভাবে জড়িয়ে পিতার সাথে আওয়ামী দূর্দিনের রাজনীতিতে সেই শৈশব থেকেই রাজপথে সক্রিয় থেকে রাজনীতিতে জড়িয়ে নির্যাতনের শিকারের সাথে বহু ত্যাগস্বীকার করেছেন যোগ্য পিতার সুযোগ্য সন্তান, রাজনীতিতে মেধাবী ও পরিচ্ছন্ন কর্মী হয়ে যৌবনে নিজেকে জড়িয়েছেন যুব সমাজের রাজনীতিতে।

তিল তিল করে রাজনীতির মাঠে উঠে আসা ছাত্রলীগের সেই নিবেদিত একজন কর্মী আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়ে মনোনয়নের দৌড়ে আলোচনার শীর্ষে, ভোটের মাঠে লড়তে যুবসমাজের মাঝে থেকে এবার তরুণ প্রার্থী হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান ও যুব জাগরণের মহানায়ক আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরীর সৃষ্টিশীল আবিষ্কার মেধা মননের চর্চায় যুবলীগ নেতাকর্মীদের নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন তারুণ্যদীপ্ত যুবনেতা ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক মোহাম্মদ শাহীনুর রহমান মন্ডল।

এবার উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে যুবসমাজের আইকন, তরুন সমাজের কাছে জনপ্রিয় ও তারুণ্যদীপ্ত যুবনেতা শাহীনুর রহমান মন্ডলকে দলের দু:সময়ে রাজপথের অগ্রসৈনিক, রাজনীতিতে চরম নির্যাতনের শিকার, আওয়ামী পরিবারের সন্তানকে সদর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন দেয়ার দাবীতে একাট্রা হয়ে মাঠে নেমেছে যুবসমাজসহ সদর এলাকার আওয়ামীলীগের তৃনমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। ইতিমধ্যে যুবলীগ আহ্বায়ক প্রার্থী হওয়ায় সাধারণ ভোটারদের মাঝে সাড়া ফেলেছে ব্যাপক ভাবে। সদরের প্রতিটি পথে প্রান্তরের চায়ের দোকান, পাড়া-মহল্লা, মাঠঘাট, হাটবাজার, দলীয় কার্যালয়সহ সর্বত্র সাধারণ মানুষের মাঝে চলছে সরগরম আলোচনা চলছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ফোনঃ +৪৪-৭৫৩৬-৫৭৪৪৪১
Email: [email protected]
স্বত্বাধিকারী কর্তৃক sheershakhobor.com এর সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত