fbpx
 

স্ত্রী হত্যার পর অগ্নিসংযোগ: যুবলীগ নেতা কারাগারে

Pub: রবিবার, এপ্রিল ২৮, ২০১৯ ৯:২১ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মানিকগঞ্জ: স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার মামলায় কারাগারে পাঠানো হয়েছে ঢাকা জেলা পরিষদ সদস্য ও সাভার থানা যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি সেলিম মন্ডলকে। 

রোববার আদালতে আত্মসমর্পণ করলে মানিকগঞ্জের ভারপ্রাপ্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মঞ্জুর হোসেন তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

একই সঙ্গে আদালতের বিচারক মামলার পলাতক দুই আসামি আব্দুল হানিফ ও আব্দুল্লাহ আল মামুনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। আলোচিত এই হত্যা মামলায় দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় আদালতে জবানবন্দি দিয়েছিলেন আসামি সেলিম মন্ডল।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিংগাইর থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন জানান, পারিবারিক কলহের জেরে ২০১৮ সালের ২ আগস্ট পিটিয়ে স্ত্রীকে মেরে ফেলার কথাও স্বীকার করেছে আসামি সেলিম মন্ডল। মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার পর সহযোগীদের নিয়ে লাশ গোপন করার জন্য সাভারের মজিদপুর ভাড়া বাসা থেকে নিজের গাড়িতে করে তার স্ত্রীর মৃতদেহ মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার বায়রা  ইউনিয়নের স্বরুপপুর নামক স্থানে ফেলে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় সে। এসময় তার সাথে আরও বেশ কয়েকজন ছিল।

গত ৩ আগস্ট সিংগাইর উপজেলার বায়রা গ্রাম থেকে আগুনে ৯০ শতাংশ ঝলসানো একটি তরুণীর লাশ উদ্ধার করে সিংগাইর থানা পুলিশ। পুলিশ অজ্ঞাত পরিচয় হিসেবে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠায়।

ময়নাতদন্ত শেষে আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলামের মাধ্যমে লাশটি মানিকগঞ্জ পৌরসভা কবরস্থানে দাফন করা হয়। সিংগাইর থানা পুলিশ অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের আসামি করে একটি হত্যা মামলা করে।

এ ঘটনার পর মরদেহের ছবি দেখে আত্বীয়স্বজন আয়েশা আক্তার বকুলের বলে শনাক্ত করেন। আয়শার বড় ভাই উজ্জল হোসেন এ ঘটনার সেলিম মন্ডলকে প্রধান আসামি করে সিংগাইর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

মামলায় প্রধান অভিযুক্ত সেলিম বেশ কিছুদিন পালিয়ে থেকে গত ২৮ আগস্ট উচ্চ আদালতে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত তাকে অস্থায়ী জামিন দেন। অস্থায়ী জামিনে থাকা অবস্থায় সেলিম মন্ডল গত ৫ সেপ্টেম্বর  রাতে দেশ থেকে পালিয়ে ইতালি যাওয়ার সময় হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরের ইমেগ্রেশন পুলিশের হাতে আটক করে। 
গত ৬ সেস্টেম্বর আদালতে সেলিম মন্ডলকে হাজির করে তিনদিনের রিমান্ডে নেয় সিংগাইর পুলিশ। পরবর্তীতে পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত তার বিরুদ্ধে আরও পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। তবে রিমান্ড শেষ হওয়ার আগেই  সেলিম মন্ডল আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

এর পর সেলিম মন্ডল হাইকোট থেকে জামিন নিয়ে কারাগার থেকে বের হন। আপিল বিভাগের আদেশে রোববার তিনি বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করলে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠান।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ