শরীয়তপুরের নড়িয়ায় ৩ ডাকাত আটক

Pub: শনিবার, মে ১১, ২০১৯ ৩:১০ অপরাহ্ণ   |   Upd: শনিবার, মে ১১, ২০১৯ ৩:১০ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি ॥ শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার চরআত্রা ট্রলারঘাট এলাকা থেকে জনতা ৩ ডাকাতকে আটক করে গনধোলাই দিয়ে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে। এ ঘটনায় নড়িয়া থানায় মামলা দায়ের করার প্রক্রিয়া চলছে। আহত ডাকাতদেরকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
নড়িয়া থানা পুলিশ সূত্র জানায়, শরীয়তপুরের গোসাইরহাটের কতিপয় গরু ব্যবসায়ী গোসাইরহাটের দাসের জংগল গরুহাট থেকে শুক্রবার গরু কিনে ট্রলার যোগে রাতে বিক্রি করার জন্য গরু নিয়ে চাঁদপুর যাচ্ছিল। রাত অনুমান ১টায় মেঘনা নদীর তারাবুনিয়া নামক স্থানে পৌছিলে ১৬/১৭জনের একদল দুর্ধষ ডাকাত ব্যবসায়ীদের অস্ত্রের মুখে আটক করে ৭টি গরু ছিনিয়ে নিয়ে যায়। লুটে নেয়া গরু ঐ রাতেই নড়িয়া উপজেলার চরআত্রা নামক স্থানে এক গরু ব্যবসায়ীর কাছে বিক্রি করার জন্য তাকে ফোন করে। ব্যবসায়ী গরু কেনার লোভ দেখিয়ে ডাকাতদের আশ্বস্ত করে। এ ফাকে ব্যবসায়ী স্থানীয় লোকজনদের খবর দিয়ে জড়ো করে। ভোর অনুমান ৫টায় স্থানীয় লোকজন ডাকাতদের ধাওয়া করে ৩জনকে আটক করে গনধোলই দেয়। বাকি ডাকাতরা পালিয়ে যায়। নড়িয়া থানা পুলিশ আহত ৩ ডাকাতকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপালে ভর্তি করে। ডাকাতরা হচ্ছে নড়িয়া উপজেলার কানারগাও গ্রামের মৃত রহমত উল্লাহর ছেলে এবাদুল বেপারী(৩২),বিশুরগাও গ্রামের মৃত আলেক বেপারীর ছেলে সেলিম বেপারী (৫০) ও নওয়াপাড়া তাতি কান্দি গ্রামের সাহেব আলী বেপারীর ছেলে নুরে আলম বেপারী(৪০)। এ ঘটনায় নড়িয়া থানায় মামলা দায়ের করার প্রক্রিয়া চলছে।
নড়িয়া থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ আবু বকর বলেন, মেঘনা নদীর মোহনা তারাবুনিয়া এলাকা থেকে ব্যবসায়ীদের ৭টি গরু ডাকাতি করে নিয়ে নড়িয়া উপজেলার চরআত্রা বিক্রি করতে গিয়ে জনতার হাতে গনধোলাই খেয়ে আহত হয়। পুলিশ তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। এ ঘটনায় নড়িয়া থানায় মামলা দায়ের করার প্রক্রিয়া চলছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ

সংবাদটি পড়া হয়েছে 1068 বার