fbpx
 

গোবিন্দগঞ্জে সাঁওতাল হত্যাকারীদের গ্রেফতার নির্যাতন বন্ধের দাবীতে বিক্ষোভ

Pub: Saturday, May 25, 2019 8:42 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে সাঁওতাল হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও মিল কর্তৃপক্ষের নির্যাতন বন্ধের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির আয়োজনে উক্ত মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।
রংপুর চিনিকল কর্তৃপক্ষ দীর্ঘদিন থেকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সাহেবগঞ্জ ইক্ষুখামারের ১৮শ’ ৪২ দশমিক ৩০ একর জমির মিথ্যা মালিকানা দাবী করছে এবং সাঁওতাল-বাঙালিদের কৃষিকাজ ও পশুপালনে বাঁধা দেয়া সহ বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি নির্যাতন করে আসছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সহ¯্রাধিক নারী-পুরুষ উপজেলার ঘোড়াঘাট আঞ্চলিক সড়কের কাটামোড় নামকস্থানে গতকাল শনিবার বেলা ১২টার দিকে ঘন্টাব্যাপি মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। সাহেবগঞ্জ বাগাফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সভাপতি ডা. ফিলিমন বাস্কের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন, সিপিবি গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি তাজুল ইসলাম, সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক স্বপন শেখ, কোষাধ্যক্ষ গণেশ মুরমু, কার্যকারী সদস্য রাফায়েল হাজদা, প্রিসিলা মুরমু, আজমল হোসেন ও সুফল হেমব্রম প্রমূখ।
বক্তারা বলেন, রংপুর চিনিকল কর্তৃপক্ষ ১৯৫৬-৫৬ সালে শুধুমাত্র আখ উৎপাদনের শর্তে জমি রিকুইজিশন করেছিল। তার মানে এই নয় তারা জমির মালিক হয়ে গেছে। তারা মিথ্যা মালিক দাবী করে জমিগুলো বেদখল করে রেখেছে। তাদের কোনো কাগজপত্র নেই। যার প্রমাণ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নিকট থেকে দেয়া হয়েছে। এর পরেও তারা কিভাবে মালিকানা দাবী করে। বক্তারা অনতিবিলম্বে সাহেবগঞ্জ ইক্ষুখামারের সকল কার্যক্রম স্থগিতের দাবী জানান।
বক্তারা আরও বলেন, ৩ সাঁওতালকে গুলি করে হত্যা, সাঁওতাল পল্লিতে হামলা, লুটপাট, বসতবাড়ীতে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়। উক্ত ঘটনার তিন বছর পেরিয়ে গেলেও থমাস হেমব্রমের করা মামলায় পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। উল্টো একের পর এক সাঁওতালদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে।
মানববন্ধন থেকে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নিকট হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেফতার, সাঁওতালদের বিরুদ্ধে করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং ৩ সাঁওতালকে গুলি করে হত্যা, বাপ-দাদার জমি ফেরত, সাঁওতাল পল্লিতে হামলা, লুটপাট, বসতবাড়ীতে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ক্ষতিপূরণ সহ সাতদফা দাবী বাস্তবায়নের দাবী জানানো হয়।
এরআগে একটি বিক্ষোভ মিছিল ব্যানার, ফেস্টুনসহ সহ¯্রাধিক নারী-পুরুষ সাঁওতাল পল্লির জয়পুরপাড়া ও মাদারপুর থেকে বের হয়ে গোবিন্দগঞ্জ-ঘোড়াঘাট সড়ক প্রদক্ষিণ করে কাটামোড়ে মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নেয়।
প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ৬ নভেম্বর রংপুর চিনিকলের সাহেবগঞ্জ ইক্ষুখামারের বিরোধপূর্ণ জমিতে চিনিকল কর্তৃপক্ষ আখ কাটার নামে সাঁওতালদের উচ্ছেদ করতে গেলে সাঁওতালরা বাধা প্রদান করেন। এসময় পুলিশ, চিনিকল কর্তৃপক্ষ ও সাঁওতালদের ত্রিমুখি সংঘর্ষ বাধে। এতে পুলিশের গুলিতে রমেশ টুডু, শ্যামল হেমব্রম ও মঙ্গল মার্ডি নামের ৩ সাঁওতাল নিহত হন। আহত হন উভয়পক্ষের কমপক্ষে ৩০জন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ