fbpx
 

কুমিল্লায় সীমানা প্রাচীর করে খাল দখল জন দুর্ভোগ

Pub: বৃহস্পতিবার, জুন ২৭, ২০১৯ ৩:১১ অপরাহ্ণ   |   Upd: বৃহস্পতিবার, জুন ২৭, ২০১৯ ৩:১১ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বারী উদ্দিন আহমেদ বাবর, কুমিল্লা প্রতিনিধি॥
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলায় খাল দখল করে সীমানা প্রাচীর নির্মান করায় চরম জন দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে। উপজেলার কে কে নগর (সাহেবের টিলা) গ্রামের প্রভাবশালী সাদেক মিয়া ও ছায়েদুল হক কালীকৃঞ্চনগর গ্রামের একটি ব্রিজের পাশে সীমানা প্রাচীর নির্মান করেন পানি বন্ধ করে রাখে। এ ঘটনায় কে কে নগরের মৃত আতাউর রহমানের ছেলে আবদুর রহমান বাদী হয়ে কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে থানা পুলিশ সরেজমিন তদন্ত করেছেন।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সাহেবের টিলা যাওয়ার রাস্তায় কালীকৃঞ্চনগর গ্রামের মধ্যে ব্র্রিজের দক্ষিণ পাশে খালের উপর সীমানা প্রাচীর নির্মান করেন সাহেবের টিলা গ্রামের মৃত কালা মিয়ার ছেলে প্রভাবশালী সাদেক মিয়া ও আবদুল কাদেরের ছেলে ছায়েদুল হক। এই সীমানা প্রাচীরের কারনে খালটি সরু হয়ে যায়। এতে ওই এলাকার কালীকৃঞ্চনগর, শিবপুর, বাটবাড়ী, চকলক্ষীপুর, আন্দিকোনা ও কৈয়াসহ কয়েক গ্রামের পানি নিষ্কাশনের একমাত্র খালটি বন্ধ হয়ে যায়। এছাড়াও ভারতীয় পাহাড়ের পানি নিন্মাঞ্চলে নামারও একমাত্র খাল এটি। সীমানা প্রাচীর নির্মানের ফলে খালটি সরু হয়ে ¯্রােতধারা বন্ধ হওয়ায় সামান্য বৃষ্টিতে ভারতীয় পাহাড়ের পানি নেমে এই কয়েকটি গ্রাম ভেসে যায়। ফলে এসব গ্রামের মানুষের বর্ষা মৌসুমে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়।
আদালত থেকে অভিযোগের তদন্তভার পেয়ে সরেজমিনে তদন্ত করে এসে চৌদ্দগ্রাম থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আরিফ হোসেন জানান, ব্র্রিজের দক্ষিণ পাশে খালের উপর সীমানা প্রাচীর নির্মান করায় সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ বেড়েছে। আমি তদন্ত করে এর সত্যতা পেয়েছি। তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে পাঠানো হবে। আদালত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবে বলে আমি আশাবাদী।
জানতে চাইলে অভিযুক্ত সাদেক মিয়া বলেন আমি জমি কিনে সীমানা দেয়াল তুলেছি। এতে কার পানি কিভাবে যাবে আমার দেখার দরকার কি। আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করা হয়েছে আমি আদালতে এর জবাব দিবো।
এ বিষয়ে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) দীপন দেব নাথ বলেন, জনসম্পৃক্ত কোন জায়গা দখল করে কেউ জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করতে পারে না। এমনটা যদি কেউ করে থাকে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ