বগুড়ায় হিজড়াদের মাইক্রোবাসে ডাকাতি

Pub: বৃহস্পতিবার, জুন ২৭, ২০১৯ ১২:২৬ পূর্বাহ্ণ   |   Upd: বৃহস্পতিবার, জুন ২৭, ২০১৯ ১২:২৬ পূর্বাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) সদস্যদের মাইক্রোবাসে দুর্ধর্ষ ডাকাতি হয়েছে। ডাকাতদের মারধরে একজন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার মধ্যরাতে উপজেলার কাশিপাড়ায় শেরপুর-নন্দীগ্রাম সড়কে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত ১০-১২ জনের ডাকাত রাস্তায় কাটা গাছ ফেলে বেরিকেড দিয়ে হিজড়াদের বহনকারী মাইক্রোবাস থামায়। অস্ত্রের মুখে হিজড়াদের জিম্মি করে নগদ ৫ লাখ টাকা, ৪০ ভরি সোনার গহনা ও ১০টি মোবাইল ফোন লুট করে নিয়ে যায় ডাকাতদল। ডাকাতদের মারপিটে বিজলী (২৫) একজন আহত হয়েছেন।

তৃতীয় লিঙ্গ সংগঠনের রাজশাহী বিভাগীয় নেতা (গুরু মা) হীরা খান জানান, তারা ৮ জন মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে রাজশাহী থেকে একটি মাইক্রোবাসে বগুড়ার শেরপুরের কাশিয়ামালা গ্রামের গোলামের ছেলে সন্তোষের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে আসছিলেন। রাত ১২টার দিকে মাইক্রোবাসটি শেরপুর-নন্দীগ্রাম সড়কের শেরপুর উপজেলার কাশিপাড়া এলাকায় পৌঁছলে ১০-১২ জনের একদল ডাকাত রাস্তায় গাছ ফেলে ব্যারিকেড দেয়।
তারা রামদা, কুড়াসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে। এরপর নগদ ৫ লাখ টাকা, ৪০ ভরি স্বর্ণের গহনা ও ১০টি মোবাইল ফোন লুট করে দক্ষিণ দিকে চলে যায়। ডাকাতদের মারপিটে রাজশাহীর ছোটবন গ্রামের শাহারুল ইসলামের মেয়ে বিজলী আহত হন।

হীরা খান ও একই গ্রামের মৃত মোতালেবের মেয়ে তাহেরা জানান, নিষেধ সত্ত্বেও মাইক্রোবাসচালক তাদের ওই ঝুঁকিপূর্ণ সড়ক দিয়ে নিয়ে আসে।

শেরপুর থানার ওসি হুমায়ুন কবির জানান, মাইক্রোবাস চালক রাজশাহীর দূর্গাপুর উপজেলার আলিমুদ্দিনের ছেলে মামুনুর রশিদকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। ডাকাতদের গ্রেফতার ও লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধারে পুলিশের টিম মাঠে রয়েছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ