fbpx
 

চুয়াডাঙ্গায় বোমা বানাতে গিয়ে বিস্ফোরণ

Pub: সোমবার, জুলাই ১৫, ২০১৯ ২:৪৮ অপরাহ্ণ   |   Upd: সোমবার, জুলাই ১৫, ২০১৯ ২:৪৮ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আফজালুল হক, চুয়াডাঙ্গা :
চুয়াডাঙ্গায় দামুড়হুদার ধান্যঘরা গ্রামে বোমা বানাতে গিয়ে বিস্ফোরণে আব্দুল হাকিম (৪২) নামের এক যুবক গুরুতর জখম হয়েছেন। আজ (১৫জুলাই) সোমবার সকাল ৮ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
এসময় আব্দুল হাকিমের নিজ বসতবাড়ি বোমায় গুড়িয়ে গেছে। পরে স্থানীয়রা জখম আব্দুল হাকিমকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহীর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সোমবার সকাল ৮ টার দিকে ধান্যঘরা গ্রামের মৃত আবু বকর মন্ডলের ছেলে আব্দুল হামিকের বসতঘরের মধ্যে বোমা বিস্ফোরণের বিকট শব্দ হয়।
ওই ঘরের ছাদের টিনে উড়ে যায়। পরে স্থানীয়রা ঘরের বারান্দা থেকে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় হাকিমকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠায়। খবর পেয়ে দামুড়হুদা থানা পুলিশও ঘটনাস্থলে পৌঁছায় এবং বিস্ফোরণের আলামত সংগ্রহ করে।

আব্দুল হাকিমের ভাগ্নে সুজন হোসেন (২৫) জানায়, সে বাড়িতে সকালের খাবার খাচ্ছিল এমন সময় বিকট একটি শব্দ শুনতে পেয়ে বাইরে বের হয়। পরে মামার বাড়ির দিকে এগিয়ে এসে দেখে গুরুত্বর জখম অবস্থায় মামা আব্দুল হাকিম ঘর থেকে হামা গড়ি দিয়ে বেরিয়ে আসছে। স্থানীয়দের সহায়তায় রক্তাক্ত জখম অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের সার্জারি কনসালটেন্ট এহসানুল হক তন্ময় জানান, বিস্ফোরিত বোমার আঘাতে হাকিমের মাথা ও বাম পায়ে মারাত্মক জখম হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রাজশাহী বা ঢাকাতে রেফার্ডের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

দামুড়হুদা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সুকুমার বিশ্বাস জানান, ঘরের মধ্যে বোমা বানাতে গিয়ে বিস্ফোরণে আব্দুল হাকিম গুরুতর আহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে বোমা তৈরির বেশকিছু আলামতও উদ্ধার করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কানাই লাল সরকারসহ পুলিশের গোয়েন্দা ইউনিটের সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান বলেন, জখম আব্দুল হাকিমের নামে থানায় একটি মামলা আছে। এছাড়া হাকিম বেশ কিছুদিন ঘরে নিজে বোমা বানিয়ে সন্ত্রাসীদের সরবরাহ করতো বলে তথ্য পাওয়া গেছে। বিষয়গুলো নিয়ে আমরা কাজ করছি। একই সাথে তার স্ত্রীকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।
শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আশঙ্কাজনক অবস্থাই পুলিশের পাহারায় উন্নত চিকিৎসার জন্য আব্দুল হাকিমকে রাজশাহি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উদ্দেশ্য রওয়া দেয় পরিবারে সদস্যরা।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ