fbpx
 

রাজশাহীতে প্রধান জামাতে হাজার মুসল্লির সঙ্গে মেয়র লিটন-মিনু

Pub: সোমবার, আগস্ট ১২, ২০১৯ ২:৪৫ অপরাহ্ণ   |   Upd: সোমবার, আগস্ট ১২, ২০১৯ ২:৪৫ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

রাজশাহীতে পবিত্র ঈদুল আজহার প্রধান জামাতে কোরবানি থেকে শিক্ষা নিয়ে সবাইকে ত্যাগের মহিমায় উদ্ভাসিত হওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। রাজশাহীর হযরত শাহমখদুম (র.) কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে সোমবার সকাল ৮টায় ঈদের এই প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

এতে ইমামতি করেন নগরীর জামিয়া ইসলামীয়া শাহমখদুম (র.) মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুফতি মাওলানা মো. শাহাদত আলী। তার সহকারী হিসেবে ছিলেন নগরীর হেতেমখাঁ বড় মসজিদের পেশ ইমাম ও খতিব মাওলানা মো. ইয়াকুব আলী।

এখানে কয়েক হাজার মুসল্লির সঙ্গে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, রাজশাহী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, রাজশাহী-৫ (পুঠিয়া-দুর্গাপুর) আসনের সংসদ সদস্য ডা. মুনসুর রহমান, সাবেক সিটি মেয়র বিএনপি নেতা মিজানুর রহমান মিনু ও মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, বিভাগীয় কমিশনার নূর-উর-রহমানসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা পবিত্র ঈদুল আজহার দুই রাকায়াত ওয়াজিব নামাজ আদায় করেন।

পরে তারা একে অপরের সঙ্গে কোলাকুলি করে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এর আগে মোনাজাতে বিশ্বের মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা করা হয়। দেশ ও জাতির উন্নতি এবং সমৃদ্ধিও কামনা করা হয় মোনাজাতে।

মুফতি মাওলানা মো. শাহাদত আলী তার বয়ানে বলেন, ত্যাগের এক মহান দৃষ্টান্ত কোরবানি করা। পশু কোরবানি করা হয় শুধুমাত্র মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি কামনায়। কোরবানির এই ত্যাগ থেকে শিক্ষা নিয়ে জীবনের অন্য ক্ষেত্রে প্রয়োগ করতে হবে। তিনি পবিত্র ঈদুল আজহার দিনে ত্যাগের মহিমায় উদ্ভাসিত হওয়ার জন্য সবার প্রাত উদাত্ত আহ্বান জানান।

ঈদের এই প্রধান জামাতে সতর্ক অবস্থায় ছিলেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে দৃষ্টি রাখা হয়েছিল ঈদগাহ ও এর আশপাশের রাস্তাগুলোর দিকে।

রাজশাহীতে একই সময় ঈদের দ্বিতীয় বড় জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে নগরীর টিকাপাড়া ঈদগাহ ময়দানে। একই সময় রাজশাহীর অন্যতম বড় ঈদের জামাত হয়েছে নগরীর সাহেববাজার বড় মসজিদ সংলগ্ন রাস্তায়।

তবে নগরীতে প্রথম দুটি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল ৭টায়। নগরীর আমচত্বর আহলে হাদীস মাঠ এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট) মাঠে অনুষ্ঠিত হয় এ দুটি ঈদ জামাত।

রাজশাহী জেলা ও মহানগরীর অন্যান্য ঈদগাহগুলোতে সকাল সাড়ে ৭টা থেকে সাড়ে ৮টার মধ্যে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

ঈদের নামাজের সময় রাজশাহীর কোথাও বৃষ্টিপাত হয়নি। ফলে মুসল্লিরা ঈদগাহেই ঈদের নামাজ আদায় করতে পেরেছেন।

নামাজ শেষে তারা মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি কামনায় পশু কোরবানি শুরু করেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ