fbpx
 

সুনাম দেবনাথ রিফাত শরীফ হত্যার নির্দেশদাতা, তাঁকে কেন আসামি করা হয়নি?

Pub: মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ৩, ২০১৯ ৯:০৯ অপরাহ্ণ   |   Upd: মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ৩, ২০১৯ ৯:০৯ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বরগুনা : বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় সেখানকার সাংসদ পুত্র সুনাম দেবনাথকে আসামি না করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এই মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া আসামিরা। আজ মঙ্গলবার দুপুরের দিকে আদালত থেকে ফেরার সময় আসামিরা সাংবাদিকদের দেখে এই প্রতিক্রিয়া দেখান।

আজ সকালে রিফাত হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার ১৪ আসামিকে বরগুনার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। পরে আদালতের কার্যক্রম শেষে তাঁদের কারাগারে নেওয়ার জন্য আদালত চত্বর থেকে প্রিজনভ্যানে তোলা হয়। প্রিজনভ্যানে তোলার সময় আসামিরা উপস্থিত স্বজন ও ব্যক্তিদের উদ্দেশ্যে বলেন , তাঁদের সঙ্গে যা হচ্ছে তা অন্যায়। সুনাম দেবনাথ রিফাত শরীফ হত্যার নির্দেশদাতা। তাঁকে কেন এই হত্যা মামলায় আসামি করা হয়নি।

সুনাম দেবনাথ বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এবং বরগুনা-১ আসনের সাংসদ ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুর ছেলে।

এ প্রসঙ্গে সুনাম দেবনাথ আজ দুপুরে সাংবাদিকদের বলেন, ‘এটা আমার ও আমার পরিবারের বিরুদ্ধে একটা ষড়যন্ত্র। আমাদের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ এই ষড়যন্ত্র করছে। আমার নাম কি ১৬৪ ধারার জবানবন্দিতে এসেছে, রিমান্ডে কোনো আসামি বলেছে? আপনারা বুঝতে পারছেন এটা আমার বিরুদ্ধে কি রকম ষড়যন্ত্র।’

সুনাম আরও বলেন, ‘মামলার প্রধান দুই আসামি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেনের ভায়রার ছেলে। তাঁরা আমাদের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ।’

আদালত সূত্রে জানা গেছে, মামলার দিন ধার্য থাকায় আজ সকালে রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া ১৪ আসামিকে বরগুনার জ্যেষ্ঠ বিচার হাকিম আদালতের বিচারক মো. সিরাজুল ইসলাম গাজীর আদালতে হাজির করা হয়। গ্রেপ্তার ছয় আসামি অপ্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় তাদের যশোরে শিশু-কিশোর সংশোধনাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

আদালত সূত্র আরও জানায়, এই মামলার অপর আসামি আয়শা সিদ্দিকা ইতিমধ্যে উচ্চ আদালত থেকে জামিন পাওয়ায় তাঁকে আজ আদালতে হাজির করা হয়নি। আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর এই মামলার পরবর্তী দিন ধার্য করা হয়েছে।

আসামি পক্ষের আইনজীবী মাহবুবুল বারী বলেন, বয়স ১৮ বছরের কম হওয়ায় আদালত যে ছয় আসামিকে যশোর শিশু-কিশোর সংশোধনাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন তারা হলো, রিশান ফরাজী, তানভীর, চন্দন, অলি উল্লাহ, নাজমুল ও আরিয়ান। আর বাকি আসামিরা প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় তাঁদের বরগুনার জেলা কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ