fbpx
 

প্রশাসনকে শামীম ওসমানের হুশিয়ারি আগুন নিয়ে খেলবেন না

Pub: শনিবার, সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৯ ৮:৪৪ অপরাহ্ণ   |   Upd: শনিবার, সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৯ ৮:৪৪ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের প্রভাবশালী এমপি শামীম ওসমান হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, নারায়ণগঞ্জের প্রশাসনের ভাইয়েরা শুদ্ধি অভিযান চালান। আমি একটা মানুষ। তার মানে এইটা না যে, আমার কথা শুইনাই সবসময় আমার কর্মীরা চলবে। কারণ সবারই আত্মসম্মানবোধ আছে।
শনিবার (৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে শহরের মিশনপাড়া মোড়ে নবাব সলিমউল্লাহ সড়কের উপর অনুষ্ঠিত বিশাল জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন।
প্রশাসনের উদ্দেশ্যে বলেন, শুদ্ধি অভিযান চালান প্রশাসনের ভেতরে। নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগ মানেই আগুন নিয়ে খেলা। সুতরাং খেলবেন না। শেখ হাসিনা ইতোমধ্যে বলেছেন তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে অন্যায় আচরণ হলে কাউকে ছাড় দিব না। আমি সেই শেখ হাসিনার কর্মী। আমরা চাইলে নারায়ণগঞ্জকে অবরুদ্ধ করতে পারি। সুতরাং আমাদের সাথে খেলবেন না। কাকে খেলা শেখাবেন, আমরাতো অনেক ছোট বেলার খেলোয়ার। তিনি বলেন, পুলিশ সুপারকে ডেকেছিলাম। অনেক চৌকশ পুলিশ অফিসার। সিদ্ধিরগঞ্জের ঘটনার পর আমি কথা বলেছিলাম। ঘটনা ঘটেছে ১নং ওয়ার্ডে। ৭৫ জনের নাম উল্লেখসহ ৪৯৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। তারা সকলেই আ’লীগের সাচ্চা কর্মী ও ব্যবসায়ী। সিদ্ধিরগঞ্জ হলো নারায়ণগঞ্জের গোপালগঞ্জ। পুলিশ সুপার আশ^াস দিয়েছিলেন নিরপরাধ কাউকে হয়রানী করা হবে না। অতি উৎসাহী পুলিশ অফিসার ষড়যন্ত্র করছে। অনেক পুলিশ অফিসার অনেক নেতার বিরুদ্ধে নিউজ করতে সাংবাদিকদের ম্যানেজ করছে।
জনসভায় শামীম ওসমান বলেন, হঠাৎ কইরা একেকজনের সাথে একেকটা সমস্যা হবে। নারায়ণগঞ্জ আ’লীগ মানে আগুন নিয়ে খেলা। কারোর কথায় আগুন নিয়ে খেলবেন না। পারবেন না। জিয়া, এরশাদ, খালেদা জিয়া পারে নাই। আর এটাতো শেখ হাসিনার বাংলাদেশ।
তিনি আরও বলেন, আমরা যারা এমপি, মন্ত্রী তাদের প্রধানমন্ত্রী একটা কথাই বলেছেন সব মানবো, সব ছাড় দেবো কিন্তু তৃণমূলের নেতাকর্মীকে যদি কোন মন্ত্রী, এমপি অসম্মান করেন আমি ছাড় দেবো না। আমি সেই শেখ হাসিনার কর্মী। তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সাথে আছি, ছিলাম, থাকবো। যে কয়দিন শরীরে প্রাণ আছে ততদিন আপনাদের সাথে আছি।
জনসভায় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ মো. বাদল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা, সহ-সভাপতি চন্দন শীল, এড. ওয়াজেদ আলী খোকন, যুগ্ম সম্পাদক শাহ্ নিজাম, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুজিবুর রহমান, ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম সাইফুল্লাহ বাদল, সাধারণ সম্পাদক এম শওকত আলী, সোনারগাঁ থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক শামসুল ইসলাম ভূইয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর সোহেল আলী, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন ভূইয়া সাজনু, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রফেসর শিরিন বেগম, মহানগর মহিলা লীগের সভাপতি ইসরাত জাহান স্মৃতি, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুয়েল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ও নাসিক ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সাইফুদ্দিন আহমেদ দুলাল প্রধান, নাসিক ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নাজমুল আলম সজল, নাসিক ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আব্দুল করিম বাবু, নাসিক ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শফিউদ্দিন প্রধান, জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম চেঙ্গিস, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. নাজিমউদ্দিন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হাসান নিপু, সাফায়েত আলম সানি, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি হাসান ফেরদৌস জুয়েল, সাধারণ সম্পাদক মোহসিন মিয়া, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আজিজুর রহমান আজিজ, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসমাঈল রাফেল, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান রিয়াদ, সাধারণ সম্পাদক হাসনাত রহমান বিন্দু প্রমুখ।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ