fbpx
 

Pub: Saturday, October 5, 2019 8:05 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিরুত্তাপেই ভোটগ্রহণ হলো রংপুর-৩ আসনের উপ-নির্বাচনে। জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর থেকেই ভোটারদের আগ্রহ নেই ভোটে। ফলে সিটি করপোররেশন, উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রই দেখা যায় ভোটার শূন্য। ব্যতয় ঘটেনি রংপুরের উপ-নির্বাচনেও।

শনিবার (৫ অক্টোবর) সকাল ৯টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। তবে শুরু থেকেও কেন্দ্রগুলোতে ভোটারের উপস্থিতি ছিল না। প্রার্থী ও নির্বাচন সংশ্লিষ্ট আশা করেছি বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার উপস্থিত বাড়বে।

কিন্তু ভোট শূন্য কেন্দ্র নিয়ে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। সারাদিনই ভোটারদের জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে ভোটগ্রহণকারী কর্মকর্তাদের। কেউ ভোট দিয়ে গেলে আবারও পরবর্তী ভোটারের আগমনের জন্য অপেক্ষা করেছেন তারা।

রংপুরে যখন এই চিত্র তখন ঢাকায় আনন্দ উদযাপনে ব্যস্ত প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদাসহ পুরো কমিশন। ‘নেই কাজ তো খই ভাজ’ পরিস্থিতি, তাই মাছ শিকারে নেমে পড়েন সিইসি। 

শনিবার (৫ অক্টোবর) সরেজমিন দেখা যায়, দুপুরের পর থেকেই কর্মচারীরা লেক চত্বর সাজাতে থাকেন। সেখানে আসে শোফা, চেয়ার ইত্যাদি। একটু পরই আনা হয় ছয়টি বড়শি। ময়দার গুটি বানিয়ে তৈরি করা মাছের টোপ। বেলা সোয়া তিনটির দিকে নির্বাচন ভবনের ওপর থেকে নেমে আসেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা, নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, ইসি সচিব মো. আলমগীর, অতিরিক্ত সচিব মো. মোখলেছুর রহমানসহ অনেকে।

নির্বাচন কমিশনের লেকে বড়শি ফেলেই মাছ তুলে আনেন সিইসি। অন্যরা যখন একটা মাছও ধরতে পারেননি, সিইসি একাই ততক্ষণে তিনটি মাছ তুলে নিয়েছেন নিজের ঝুলিতে। কমিশনার শাহাদাত হোসেন, সচিব আলমগীর ততক্ষণে একটি করে মাছ তাদের বড়শিতে আটকাতে পেরেছেন।

সিইসির বড়শিতে একটু একটু পরপরই মাছ আটকে যাওয়ায় উচ্ছ্বাস প্রকাশে ব্যস্ত হয়ে পড়ে উপস্থিতি ইসি কর্মীরা। অনেককে বলতে শোনা যায়, অভিজ্ঞতার একটা দাম আছে।

কমিশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বলছেন, প্রকৃত অর্থেই নির্বাচন নিয়ে কোনো চাপ বা দুশ্চিন্তা নেই। ভালো নির্বাচন হচ্ছে। তাই ছুটির দিনে কাজ করতে এসে কমিশনের সদস্যরা একটু আনন্দ খুঁজছেন মাছ শিকারের মাঝে।

আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবন ও নির্বাচন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মাঝে একটু লেক তৈরি করা হয়েছে। ভেতরে আছে ফোয়ারাও। আর এতেই দেশি-বিদেশি নানা প্রজাতির মাছ চাষ করছে ইসি।

আলোচিত ৩০ ডিসেম্বরের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর এই লেক থেকে মাছ তুলে বারবিকিউ পার্টি করেছে কমিশন। এরপর আরও তিন দিন এখান থেকে মাছ শিকার করা হয়েছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ