fbpx
 

ঘূর্নিঝড়ের প্রভাবে শরীয়তপুরে সকল নৌযান চলাচল বন্ধ

Pub: Saturday, November 9, 2019 4:40 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি ॥ ঘূর্নিঝড় বুলবুলের প্রভাবে শরীয়তপুর -চাদপুর ,শরীয়তপুর -ঢাকা রুটে ফেরী সহ সকল নৌযান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল ধরনের প্রস্তÍুতি রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে।
জেলা প্রশাসন ও ফেরীঘাট কতৃপক্ষ সূত্রে জানাগেছে, ঘূর্নিঝড় বুলবুলের প্রভাবে শনিবার সকাল থেকে শরীয়তপুর -চাদপুর ও শরীয়তপুর ঢাকা রুটে ফেরী চলাচল এবং সুরেশ্বর-টু সদরঘাট ,মাঝিরঘাট থেকে মাওয়া শিমুলিয়া ফেরীঘাট ,কাঠাল বাড়ি ফেরী ঘাট থেকে শিমুলিয়া ফেরীঘাটে ফেরী চলাচল সহ লঞ্চ, সিবোর্ড , ট্রলার সহ সকল নৌযান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে বলে ঘাট কতৃপক্ষ জানিয়েছেন। আবহাওয়া অধিদপ্তর পক্ষথেকে পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত কোন নৌযান চলা চল করা হবে না। ঘূর্নি ঝড় মোকাবেলায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জেলা দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা করে ঘূর্নিঝড় মোকাবেলায় সকল ধরনের প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে। আশ্রয় কেন্দ্র গুলো প্রস্তুত রাখা হয়েছে। স্বেচ্ছাসেবক ও বেসরকারী সংগঠনের প্রতিনিধিদের সতর্ক থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। শনিবার সকাল ১০টা থেকে শরীয়তপুর চাদপুর রুটে হরিনা ফেরীঘাটে সকল ফেরী চলাচল বন্ধ রাখায় আলুর বাজার ফেরী ঘাটে শতাধিক মাল বোঝাই যানবাহন আটকা পড়েছে।
মাঝিরঘাট ইজারাদার আঃ ওহাব মাঝি বলেন, ঘূর্নিঝড় বুলবুলের প্রভাবের কারনে শরীয়তপুর মাঝির ঘাট থেকে মাওয়া শিমুলিয়া ফেরীঘাট গামী সকল নৌযান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। আবহাওয়া অধিদপ্তর পক্ষথেকে পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত কোন নৌযান চলা চল করা হবে না।
হরিনা ফেরী ঘাটের বিআইডব্লিউটিসির ম্যানেজার আবদুল মোমেন বলেন, শনিবার সকাল থেকে সকল ফেরী গুলো বন্ধ রাখা হয়েছে। এ কারনে আলুর বাজার এলাকায় শতাধিক যানবাহন আটকা পড়েছে।
জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের বলেন, জেলা দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা করে ঘূর্নিঝড় মোকাবেলায় সকল ধরনের প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে। আশ্রয় কেন্দ্র গুলো প্রস্তুত রাখা হয়েছে। স্বেচ্ছাসেবক ও বেসরকারী সংগঠনের প্রতিনিধিদের সতর্ক থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ