fbpx
 

কাবিননামায় ‘কুমারী’ শব্দ আর নয়, থাকতে হবে বরেরও বৈবাহিক পরিচয়

Pub: রবিবার, আগস্ট ২৫, ২০১৯ ৩:১৮ অপরাহ্ণ   |   Upd: রবিবার, আগস্ট ২৫, ২০১৯ ৩:১৮ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এখন থেকে বিয়ের কাবিননামায় (রেজিস্ট্রি ফরমে) ৫ নম্বর কলাম থেকে ‘কুমারী’ শব্দ তুলে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। তবে অবিবাহিতা, তালাকপ্রাপ্ত ও বিধবা শব্দগুলো থাকবে। আর ‘কুমারী’ শব্দের জায়গায় লিখতে হবে ‘অবিবাহিত’। একইসঙ্গে বিয়ের রেজিস্ট্রি ফরমে একটি কলাম যুক্ত করে এখন থেকে বরের ক্ষেত্রেও অবিবাহিত/বিপত্নীক/তালাকপ্রাপ্ত শব্দগুলো যুক্ত করা যাবে বলে রায়ে বলা হয়েছে। 

৫ বছর আগে করা এক রিটের চূড়ান্ত শুনানি নিয়ে রবিবার (২৫ আগস্ট) বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি খিজির আহমেদ চৌধুরীর হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন।

এদিন আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট জেড আই খান পান্না ও অ্যাডভোকেট আইনুন্নাহার।

২০১৪ সালে ব্লাস্ট, নারী পক্ষ ও মহিলা পরিষদ বিয়ের নিবন্ধনের ক্ষেত্রে কাবিননামার ৫ নম্বর কলামে উল্লিখিত কনের ক্ষেত্রে ‘কুমারী’ কিনা এমন বিধানের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন দায়ের করে। 

 উচ্চ আদালতে রায় ঘোষণার পর অ্যাডভোকেট পান্না সাংবাদিকদের বলেন, ‘বিয়ের কাবিননামায় দুটি কলামে বৈষম্যের প্রেক্ষিতে হাইকোর্টে করা রিটের শুনানি শেষে আদালত এ রায় দিয়েছেন। এক্ষেত্রে ছেলে-মেয়ের মধ্যে আর কোনও বৈষম্য থাকবে না।

এর আগে ২০১৪ সালে করা এ সংক্রান্ত রিটের শুনানি নিয়ে কাবিননামার ফর্মের (বাংলাদেশ ফর্ম নম্বর-১৬০০ ও ১৬০১) ৫ নম্বর কলাম কেন বৈষম্যমূলক ও বেআইনি ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে ওই বছরেরই সেপ্টেম্বরে রুল জারি করেছিল হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে কেন ‘কুমারী’ শব্দটি বিলোপ করে কাবিননামা সংশোধন করা এবং বরের বৈবাহিক অবস্থা-সম্পর্কিত কোনও ক্রমিক কাবিননামায় উল্লেখ করা হবে না রুলে তাও জানতে চেয়েছিলেন উচ্চ আদালত। 


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ