৫ মাসের শিশুটির প্রাণ গেল সড়কে

Pub: শনিবার, মে ১৮, ২০১৯ ১০:৫৩ পূর্বাহ্ণ   |   Upd: শনিবার, মে ১৮, ২০১৯ ১০:৫৩ পূর্বাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শিশু সিহাব। বয়স মাত্র পাঁচ মাস। বাবা-মায়ের  চোখের মণি। তাকে নিয়েই পরিবারের সবার আনন্দ-উল্লাস। কিন্তু এক নিমিষেই এই উল্লাসে নেমে আসে চরম বিষাদ।  বৃহস্পতিবার রাতে হঠাৎ সিহাব আক্রান্ত হয় ডায়রিয়ায়। তার শরীরে দেখা দেয় পানি শূন্যতা। ক্রমেই সে দুর্বল হয়ে পড়ছিল। প্রাথমিক চিকিৎসাতে মোটেই তার ডায়রিয়া বন্ধ হচ্ছিলো না। পরিবারের লোকজন কোন উপায়ন্তর  খোঁজে পাচ্ছিলেন না। তাই স্থানীয় চিকিৎসকের শরণাপন্ন হন। চিকিৎসকের পরামর্শেই শুক্রবার ভোরে স্বজনরা তাকে নিয়ে মহাখালীর কলেরা হাসপাতালের (আইসিডিডিআরবি) উদ্দেশ্য রওয়ানা হন। কিন্তু সিহাবের আর কলেরা হাসপাতালে যাওয়া হয়নি। পথিমধ্যে এক সড়ক দুর্ঘটনায় সিহাব চলে গেছে না ফেরার দেশে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল ঢাকার সাতরাস্তা এলাকায়। 

পুলিশ জানিয়েছে, গতকাল ভোর সোয়া পাঁচটার দিকে সিহাবকে নিয়ে তার স্বজনরা মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভার দিয়ে মহাখালী যাচ্ছিলেন।  তাদের বহনকারী সিএনজি চালিত অটোরিকশাটি সাতরাস্তা ঢাল থেকে নামার সময় মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় একটি পিকআপ ভ্যানের সঙ্গে। এতে দুমড়ে-মুচড়ে যায় সিহাবদের বহনকারী অটোরিকশাটি। সিহাব ছাড়া মারাত্মকভাবে আহত হন তার মা শারমিন আক্তার (২০), মামা আল-আমিন (২৫), নানী মলি বেগম (৫০) ও সিএনজি চালক শাহাদাত হোসেন (৩০)। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা সিয়ামকে মৃত ঘোষণা করেণ। 

তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) হান্নান মিয়া বলেন, সিহাবদের বাড়ি কেরানীগঞ্জের হাসনাবাদের ধলেশ্বর এলাকায়। সিহাব ওই এলাকার রাসেল মিয়ার ছেলে। ঘটনার পরপরই তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়েছিল। কিন্তু সিয়ামকে আর বাচানো যায়নি। পিকআপ ভ্যানটি জব্দ করা হয়েছে। কিন্তু চালক পালিয়েছে।  তিনি বলেন, আহতদের মধ্যে সিহাবের নানী মলি বেগম ও সিএনজি চালক শাহাদাতের মাথায় আঘাত লেগেছে। তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। আর তার মা ও মামাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। 


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ