fbpx
 

সমাবর্ত‌নের দাবি‌তে জবি‌তে বি‌ক্ষোভ, আল্টিমেটাম

Pub: রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৮ ৭:৫৪ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) সমাবর্তন আয়োজনের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রশাসনিক ভবন অবরোধ করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। প্রশাসনিক ভবন অবরোধ করলে এসময় জবি উপাচার্য তার কক্ষে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন। প‌রে বি‌কেলে তি‌নি প্রশাস‌নিক ভবন থে‌কে বের হ‌তে গে‌লে বি‌ক্ষোভকারীরা তার গাড়ির সাম‌নে স্লোগান দি‌তে থাকেন। এসময় তারা ২ দি‌নের আল্ট‌িমেটাম দেন সমাবর্ত‌নের তা‌রিখ ঘোষণার।

রবিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টায় সমাবর্তন আয়োজন করার দা‌বি‌তে কাঠাল চত্বর থেকে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল বের করে।

এসময় বিক্ষোভ মিছিল থেকে ‘সমাবর্তন চাই’, ‘প্রশাসনের কালো হাত, ভেঙ্গে দাও’ স্লোগান দিয়ে তারা প্রশাসনিক ভবনের ফটক বন্ধ করে তার সাম‌নে অবস্থান নেয়।
এদিকে প্রক্টরিয়াল টিমের সদস্য ও প্রশাসনিক কর্মকর্তারা কয়েকবার চেষ্টা করেও ফটক খুলতে পারেনি। এমতাবস্থায় প্রশাসনিক ভবনে অবস্থানরত উপাচার্যসহ প্রশাসনিক সকল কর্মকর্তা অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন। এদিকে বেলা ৩টার দিকে উপাচার্য প্রশাসনিক ভবন থেকে বের হয়ে গাড়িতে বসলে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের গাড়ি আটকে বিক্ষোভ করতে থাকে।

এসময় প্রক্টরিয়াল টিমের সদস্যরা শিক্ষার্থীদের সাথে উপাচার্যের আলোচনার প্রস্তাব করলে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা ২ দি‌নের আল্টিমেটাম দিয়ে ভাস্কর্য চত্বরে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে।

সমাবেশে ‘আমরা সমাবর্তন চাই’ আন্দোলনের আহ্বায়ক আকতার হোসেন বলেন, ‘আমাদের দাবি সমাবর্তনের দাবি। প্রশাস‌নের গাফিলা‌তি আর উদাসীনতার কার‌ণে দীর্ঘ ১৩ বছর হতে চললো এখনও কোনও সমাবর্তন আয়োজন করতে পারেনি প্রশাসন। প্রশাসন অতিদ্রুত সমাবর্তনের ব্যাপারে কোনও আশ্বাস না দিলে আমাদের আন্দোলন আরো তীব্র হবে।’

সমা‌বে‌শে বক্তরা দা‌বি ক‌রেন, সমাবর্তন নি‌য়ে এ‌তদিন প্রশাসন দায়সারা বক্তব্য দি‌য়ে আস‌ছে। যেখানে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজন কর‌তে পে‌রে‌ছে সেখানে জ‌বি কেন পার‌বে না?

এ ব্যাপারে জবি উপাচার্য ড. মীজানুর রহমান বলেন, ‘সমাবর্তন করার জন্য বিশাল জায়গার প্রয়োজন। যা আমাদের নেই। তবে এ ব্যাপারে লিখিত কোনো দাবি পেলে বিভিন্ন অনুষদের ডিন ও ছাত্র প্রতিনিধিদের একসাথে দায়িত্ব দিয়ে দেবো। তারাই সমাবর্তনের আয়োজন করবে।’

Hits: 0


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ