fbpx
 

হল ছাড়বে না শিক্ষার্থীরা, তল্লাশি চালাবে পুলিশ

Pub: Wednesday, November 6, 2019 4:07 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের অপসারণ দাবিতে লাগাতার বিক্ষোভ-আন্দোলনের মুখে গতকাল মঙ্গলবার অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি)। একইসঙ্গে বিকেলের মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়। তবে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করেই শিক্ষার্থীরা আন্দোলন অব্যাহত রাখেন। রাতে বেশিরভাগ শিক্ষার্থীই হলে অবস্থান করেন।

বুধবার সকালে হল ত্যাগের নির্দেশনার প্রতিবাদে আবারও ক্যাম্পাসে ফুঁসে উঠে আন্দোলকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। এরইমধ্যে বুধবার দুপুর ১টার মধ্যে আবারও আবাসিক হল ত্যাগ করার নির্দেশ দেন জাবির প্রভোস্ট কিমিটির সভাপতি অধ্যাপক বশির আহমেদ। 

তিনি বলেন, ‘দুপুরের ১টার মধ্যে ছাত্রলীগ, আন্দোলনকারী ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা যদি হল ত্যাগ না করে তবে প্রয়োজনে ব্যাপক পুলিশি তল্লাশি চালানো হবে।’

এদিকে আন্দোলনকারী ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা বলছে, ‘ভিসির প্রত্যক্ষ সমর্থক ছাত্রলীগ নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে হলে থাকছে। তাহলে আমরা কেন হল ছাড়বো? ছাত্রলীগ যতক্ষণ হলে থাকবে আমরাও ততক্ষণ হলে থাকবো।’

বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা বলছে, যে কোনও পরিস্থিতিতে তারা হল ও ক্যাম্পাসে অবস্থান নিয়ে ভিসি বিরোধী চলমান আন্দোলন কর্মসূচি অব্যাহত রাখবে। ভিসিপন্থিদের হামলা, মামলা ও হুলিয়াকে পরোয়া করা হবে না বলেও জানান তারা। 

বুধবার বেলা ১১টার দিকে ভিসির অপসারণ দাবিতে সংহতি সমাবেশ করেছে আন্দোলনকারীরা। এসময় শহীদ মিনার থেকে একটি মিছিল বের হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবরও সংহতি সমাবেশে এসে যোগ দেয়। 

ইতোমধ্যে ভিসিবিরোধী আন্দোলনে সংহতি জানিয়েছেন অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক তানজিম উদ্দিন খান, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক অনিক রায়, ছাত্রফ্রন্টের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন প্রিন্স ও ছাত্রফ্রন্ট (মার্কসবাদ) সাধারণ সম্পাদক রাশেদ শাহরিয়ার প্রমুখ। 

দুর্নীতির অভিযোগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের অপসারণের দাবিতে বেশ কিছুদিন ধরেই ক্যাম্পাসে সাধারণ শিক্ষার্থীদের আন্দোলন চলছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত সোমবার ভিসির বাসভবনের সামনে অবস্থান নেয় বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে জাবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানার নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন চত্বর থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে এসে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালালে শিক্ষক, সাংবাদিক ও শিক্ষার্থীসহ অন্তত ৩৫ জন আহত হন।  


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ