fbpx
 

চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৩টি আসনে কার সঙ্গে কার লড়াই

Pub: বুধবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৮ ২:২৩ অপরাহ্ণ   |   Upd: বুধবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৮ ২:২৩ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি:
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চাঁপাইনবাবগঞ্জের তিনটি সংসদীয় আসনে ১৩ জন বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রতিন্দ্বন্দ্বিতা করবেন। জেলার সর্বত্র বইছে নির্বাচনী আমেজ। আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি ও জামায়াতসহ অন্য দলের মনোনীত প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণা শুরু করেছেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১
শিবগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত এই আসনে মোট প্রতিন্দ্বন্দ্বী ৭ জন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগের ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল (নৌকা), বিএনপির শাহজাহান মিঞা (ধানের শীষ), নুরুল ইসলাম জেন্টু (টেলিভিশন) ও ইসলামী আন্দোলনের মনিরুল ইসলাম (হাতপাখা)।

ভোটারদের দাবি- এখানে নৌকা ও ধানের শীষের মধ্যেই মুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে। এই আসনে ১৯৯১, ৯৬ ও ২০০১ সালে টানা সাংসদ নির্বাচিত হন বিএনপির শাহজাহান মিঞা। ২০০৮ সালে মুহাম্মদ এনামুল হক এবং ২০১৪ সালের গোলাম রাব্বানী বিনা প্রতিন্দ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। এর আগে ১৯৮৬ ও ১৯৮৮ সালে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ছিল।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২
নাচোল, গোমস্তাপুর ও ভোলাহাট উপজেলা নিয়ে গঠিত এই আসনে মোট প্রতিন্দ্বন্দ্বী ৩ জন। এরা হলেন আওয়ামী লীগের মুহাম্মদ জিয়াউর রহমান (নৌকা), বিএনপির আমিনুল ইসলাম (ধানের শীষ) ও ইসলামী আন্দোলনের ইব্রাহিম খলিল (হাতপাখা)।

এই আসনেও নৌকা ও ধানের শীষের মধ্যেই মুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে। এই আসনে গত ৮ টি সংসদ নির্বাচনে ১৯৭৩ সালে, ১৯৭৩ সালে আওয়ামী লীগের খালেদ আলী মিঞা, ১৯৭৯ সালে বিএনপির সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন, ১৯৮৬ সালে জামায়াতের মীম ওবায়দুল্লাহ, ১৯৮৮ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত টানা তিন সংসদ নির্বাচনে জয় হয় বিএনপরি সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন আর ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগের জিয়াউর রহমান এবং ২০১৪ সালে গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস নির্বাচিত হন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩
সদর উপজেলা নিয়ে গঠিত এই আসেন প্রতিন্দ্বন্দ্বিতা করছেন ৬ জন প্রার্থী। এরা হলেন- আওয়ামী লীগের আব্দুল ওদুদ (নৌকা), বিএনপির হারুনুর রশিদ হারুন (ধানের শীষ), জামায়াতের সমর্থিত স্বতন্ত্র নুরুল ইসলাম বুলবুল (আপেল), কামরুজ্জামান খান (টেলিভিশন), ইসলামী আন্দোলনের কাদের (হাতপাখা ) ও জাকের পার্টি বাবলু হোসেন (গোলাপফুল)।

জামায়াত অধ্যুষিত এই আসনে লড়াই হবে ত্রিমুখী। এখানে বিএনপির পাশাপাশি স্বতন্ত্র হিসেবে জামায়াতও প্রার্থী দিয়েছে। ১৯৮৬ সালে জামায়াতের লতিফুর রহমান, ১৯৮৮ সালের জাতীয় পার্টির এহসান আলী খান, ১৯৯১ সালে জামায়াতের লতিফুর রহমান, ১৯৯৬ ও ২০০১ সালে বিএনপির হারুনুর রশিদ, ২০০৮ এবং ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগের আব্দুল ওদুদ নির্বাচিত হোন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ