fbpx
 

পটুয়াখালীর ১ থেকে ৪ আসনে ভোটযুদ্ধে আছেন যারা

Pub: বুধবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৮ ৭:০৩ অপরাহ্ণ   |   Upd: বুধবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৮ ৭:০৩ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বরিশাল বিভাগের একটি গুরুত্বপূর্ণ জেলা পটুয়াখালী। সমুদ্র উপকূলের এই জেলাটির আয়োতন ৩২২০.১৫ বর্গ কি.মি.। জেলাটিতে মোট ৪টি সংসদীয় আসন।
পটুয়াখালী জেলার মোট ভোটার সংখ্যা ১১ লাখ ৬৪ হাজার ৪১৩জন।নারী ভোটার আছে ৫ লাখ ৮২ হাজার ৫৫০ জন এবং পুরুষ ভোটার ৫ লাখ ৮১ হাজার ৮৬৩ জন।

ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি এর পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো বরিশালের ১ থেকে ৪ আসন পর্যন্ত একদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন, প্রতিদ্বন্দ্বী এবং ভোটের হালচাল।

পটুয়াখালী-১
পটুয়াখালী-১ আসনটি জেলার মির্জাগঞ্জ উপজেলা, দুমকি উপজেলা ও পটুয়াখালী সদর উপজেলা নিয়ে গঠিত।এটি বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের ৩০০ আসনের ১১১ নং আসন।

ভোটার সংখ্যা: সর্বশেষ হালনাগাদ ভোটার তালিকা অনুযায়ী এ আসনে বর্তমানে ৩ লাখ ৯৩ হাজার ৬৬ জন ভোটার।

প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী:  
আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. শাহজাহান মিয়া। ২০১৪ সালের জনুয়ারির সংসদ নির্বাচনে এই আসনের মনোনয়নপ্রত্যাশী থাকলেও এ আসন চলে যায় মহাজোটের আরেক শরিক জাতীয় পার্টির দখলে। শাহজাহান মিয়া এ আসন থেকে দুইবার সাংসদ ছিলেন। তিনি সাবেক ধর্ম প্রতিমন্ত্রী।

বিএনপির প্রার্থী আলতাফ হোসেন চৌধুরী।তিনি কেন্দ্রিয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান। পটুয়াখালী জেলা বিএনপির সভাপতির দায়িত্বও তিনি পালন করেন।
আলতাফ হোসেন চৌধুরী ২০০১ সালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন।

পটুয়াখালী-১ আসনে বিগত নির্বাচনগুলোতে বিজয়ী যারা:
২০১৪ সালে এই আসনে মহাজোটের পক্ষে রুহুল আমিন হাওলাদার। এর আগে এ আসন থেকে বিএনপির আলতাফ হোসেন চৌধুরী সাংসদ ছিলেন। আওয়ামী লীগের শাহজাহান মিয়া এ আসনে দুইবার সাংসদ ছিলেন।

পটুয়াখালী-২
পটুয়াখালী-২ আসনটি জেলার বাউফল উপজেলা নিয়ে গঠিত।এটি বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের ৩০০ আসনের ১১২ নং আসন।

ভোটার সংখ্যা: সর্বশেষ হালনাগাদ ভোটার তালিকা অনুযায়ী এ আসনে বর্তমানে ২ লাখ ৫১ হাজার ৮৫৮ জন ভোটার।

প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী:  
আওয়ামী লীগের প্রার্থী আসম ফিরজ। তিনি পটুয়াখালী-২ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য। ১০ম জাতীয় সংসদের চীফ হুইফ। ফিরোজ ১ম সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন ১৯৭৯ সালের সাধারন নির্বাচনে রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের শাসনামলে জাতীয়তাবাদী দলের প্রার্থী হিসাবে। ১৯৮৬ সালের নির্বাচনে তিনি পুনরায় স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে সংসদ সদস্য হন। পরবর্তীতে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে যোগ দেন।

বিএনপির প্রার্থী সালমা আলম । বিএনপির দলীয় মনোনয়ন পাওয়া সাবেক সাংসদ মো. শহিদুল আলম তালুকদারের সহধর্মিণী সালমা আলম। শহিদুল আলমের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করায় রাজনীতিতে প্রথমবার উপস্থিত হয়েছেন সালমা আলম।

পটুয়াখালী-২ আসনে বিগত নির্বাচনগুলোতে বিজয়ী যারা:
২০১৪ সালে এই আসনে আওয়ামী লীগের পক্ষে মোহাম্মাদ ফিরোজ সংসদ সদস্য হন। এর আগে এ আসন থেকে বিএনপির শহিদুল আলম তালুকদার সংস্দ সদস্য ছিলেন।

পটুয়াখালী-৩
পটুয়াখালী-৩ আসনটি জেলার দশমিনা উপজেলা, গলাচিপা উপজেলা নিয়ে গঠিত। এটি বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের ৩০০ আসনের ১১৩ নং আসন।

ভোটার সংখ্যা: সর্বশেষ হালনাগাদ ভোটার তালিকা অনুযায়ী এ আসনে বর্তমানে ২ লাখ ৯৮ হাজার ৪৯৭ জন ভোটার।

প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী:  
আওয়ামী লীগের প্রার্থী এস এম শাহজাদা সাজু। তিনি বর্তমান সিইসির আপন বোনের ছেলে। শাহাজাদা স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতা ছিলেন। এবারই প্রথমবারের মতো দলের মনোনয়নে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন তিনি।

বিএনপির প্রার্থী গোলাম মাওলা রনি। তিনি ২০০৮ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়নে পটুয়াখালী-৩ আসন থেকে জাতীয় সংসদের সদস্য নির্বাচিত হন। পরবর্তীতে ২০১৮ সালের ২৬ নভেম্বার বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলে যোগদান করেন।

পটুয়াখালী-৩ আসনে বিগত নির্বাচনগুলোতে বিজয়ী যারা:
১৯৭৩ সালে হাবিবুর রহমান মিয়া বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে সংসদ সদস্য হন এ আসন থেকে। ১৯৭৯ সালে বিএনপির মনোনয়ন পেয়ে মোয়াজ্জেম হোসেন এ আসনের সংসদ সদস্য হন। ১৯৮৬ সালে জাতীয় পার্টি থেকে আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, ১৯৮৮ সালে মোহাম্মদ ইয়াকুব আলী চৌধুরী জাতীয় পার্টি থেকে, ১৯৯১ সালে আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন আওয়ামী লীগ থেকে, ১৯৯৬ সালে আবারো  আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন আওয়ামী লীগ থেকে এবং ২০০৮ সালে গোলাম মাওলা রনি এ আসন থেকে সাংসদ নির্বাচিত হয়। ২০১৪ সালে আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন আওয়ামী লীগ থেকে সাংসদ হিসাবে নির্বাচিত হয়।

পটুয়াখালী-৪
পটুয়াখালী-৪ আসনটি জেলার কলাপাড়া উপজেলা, রাঙ্গাবালী উপজেলা নিয়ে গঠিত। এটি বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের ৩০০ আসনের ১১৪ নং আসন।

ভোটার সংখ্যা: সর্বশেষ হালনাগাদ ভোটার তালিকা অনুযায়ী এ আসনে বর্তমানে ২ লাখ ৪৯ হাজার ৪৬ জন ভোটার।

প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী:  
আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোঃ মুহিবুর রহমান মুহিব। তিনি সাবেক ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতা। বর্তমানে জেলা আওয়ামী লীগের সহ সম্পাদক।

বিএনপির প্রার্থী এবিএম মোশাররফ। তিনি সাবেক ছাত্র নেতা এবং কলাপাড়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি।

পটুয়াখালী-৪ আসনে বিগত নির্বাচনগুলোতে বিজয়ী যারা:
২০১৪ সালে মো: হাবিবুর রহমান আওয়ামী লীগ থেকে এ আসনের সাংসদ ছিলেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ