নওগাঁ-১ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী পরিবর্তন

Pub: বুধবার, ডিসেম্বর ২৬, ২০১৮ ৭:৫৯ অপরাহ্ণ   |   Upd: বুধবার, ডিসেম্বর ২৬, ২০১৮ ৭:৫৯ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ঢাকা : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মাত্র ৪ দিন আগে নওগাঁর নিয়ামতপুর-পোরশা- সাপাহার উপজেলা নিয়ে গঠিত নওগাঁ-১ আসনে উচ্চ আদালতের নির্দেশে বিএনপির প্রার্থী পরিবর্তন হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে উচ্চ আদালতের নির্দেশের কাগজপত্র যাচাই করে নির্বাচন কমিশনের অনুমতিক্রমে নওগাঁর জেলা প্রশাসক ও রিটানিং কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান নওগাঁ-১ আসনের বিএনপির প্রার্থী ডা. ছালেক চৌধুরীর প্রার্থীতা বাতিল করেন। পরে তার স্থলে উচ্চ আদালতের নির্দেশে মো. মোস্তাফিজুর রহমানকে বিএনপির বৈধ প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেন।

নওগাঁ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. শাহিনুর রহমান প্রামানিক জানান, বিএনপির বৈধ প্রার্থী দাবী করে মো. মোস্তাফিজুর রহমান উচ্চ আদালতে রিট করেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত ২০ ডিসেম্বর উচ্চ আদালতে বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ শুনানি শেষে বিএনপির বৈধ প্রার্থী হিসেবে মো. মোস্তাফিজুর রহমানকে ধানের শীষ প্রতীক দেওয়ার নির্দেশ দেন।

জানা গেছে, গত ২৩ ডিসেম্বর উচ্চ আদালতের নির্দেশের নথিপত্র নওগাঁ রিটানিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে এসে পৌছায়।

নওগাঁর জেলা প্রশাসক ও রিটার্নি কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান বলেন, নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে আলোচনা করে উচ্চ আদালতের নির্দেশে আমরা ইতিমধ্যে নওগাঁ-১ আসনের বিএনপির প্রার্থী হিসেবে মো. মোস্তাফিজুর রহমানের নাম ঘোষণা করেছি এবং নওগাঁ-১ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী পরিবর্তন হওয়ায় ব্যালট পেপার পরিবর্তন করার জন্য নির্বাচন কমিশন বরাবর অনুরোধপত্র পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, আমাকে বিএনপির হাইকমান্ড দলীয় মনোনয়ন দেওয়ার পর আমি নির্ধারিত সময়ে দলীয় সমর্থনের প্রত্যয়নপত্র নওগাঁর রিটানিং কর্মকর্তার কাছে জমা দিয়ে নির্বাচনী কাজ শুরু করি। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে শেষ সময়ে আমার পরিবর্তে নওগাঁ-১ আসনে ডা. ছালেক চৌধুরীকে মনোনয়ন দেয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে আমি উচ্চ আদালতে প্রার্থীতা ফিরে পাওয়ার আশায় রিট করি। গত ২০ ডিসেম্বর শুনানি শেষে উচ্চ আদালত আমাকে ধানের শীষ প্রতীক দেওয়ার জন্য নির্দেশ দেন।

তিনি বলেন, উচ্চ আদালতের নির্দেশে আমি এখন ধানের শীষের প্রার্থী হিসেবে নওগাঁর নিয়ামতপুর, পোরশা, সাপাহার উপজেলা এলাকায় গণসংযোগ, প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ