fbpx
 

যথাযোগ্য মর্যাদায় আলতাব আলী দিবস পালন করলো টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল

Pub: Wednesday, May 8, 2019 11:37 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

যে বর্ণবাদী হত্যাকান্ড কমিউনিটিকে ঐক্যবদ্ধ করেছিলো, গভীর শ্রদ্ধায় সেই দিনটি স্মরণ করলো টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল। ১৯৭৮ সালের ৪ মে বর্ণবাদীদের হাতে নির্মমভাবে প্রাণ হারান বাঙালি যুবক আলতাব আলী। যে হত্যাকান্ডটি ছিলো পূর্ব লন্ডনে বর্ণ সম্পর্কের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ একটি বাঁক বদল, যা ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সর্বস্তরের মানুষকে এক কাতারে নিয়ে এসেছিলো। ২৫ বছরের আলতাব আলী ছিলেন একজন টেক্সটাইল কর্মী, যিনি নিহত হওয়ার কিছুদিন আগে বাংলাদেশ থেকে ইংল্যান্ড এসেছিলেন। তিনি কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে ব্রিক লেনের সন্নিকটে হোয়াইটচ্যাপল রোডস্থ একটি পার্কে ছুরিকাঘাতে নিহত হন। পার্কটি তার নামে আলতাব আলী পার্ক হিসেবে পরবর্তীতে নামকরণ করা হয়। তাঁর এই মৃত্যুর ঘটনা টাওয়ার হ্যামলেটসের কমিউনিটিগুলোকে সেদিন ঘৃণা ও অসহনশীলতার বিরুদ্ধে সোচ্চচার করেছিলো।
টাওয়ার হ্যামলেটস’ কাউন্সিলের উদ্যোগে গত ৪ মে শনিবার বিকাল ৬টায় নানা আনুষ্ঠানিকতায় পালন করা আলতাব আলী দিবস। ঐ দিন বারার সকল বাসিন্দা, কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ, ধর্মীয় গ্রুপ ও স্বেচ্চছাসেবী সংগঠনগুলো আলতাব আলী পার্কে সমবেত হয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন। বারার সকল বাসিন্দার পক্ষে আলতাব আলীর ছবিতে পুরুার্ঘ্য অর্পন করেন মেয়র জন বিগস। এছাড়া আলী ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করা হয়।


বৃষ্টিপাত উপেক্ষা করে বিপুল সংখ্যক মানুষ গানে, কবিতায়, স্মৃতিচারণ ও বর্ণবাদ বিরোধী আলোচনায় পালন করেন দিবসটি। মেয়র জন বিগস বলেন, আলতাব আলী নির্মম হত্যাকান্ডের ৪১তম বার্ষিকী আমাদের এটা মনে করিয়ে দেয় যে, কমিউনিটির সুদৃঢ় বন্ধনের গুরুত্ব কতটুকু এবং বর্ণবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাড়ানো প্রয়োজনীয়তার কথা কোন অবস্থাতেই ভুলে না যাওয়ার গুরুত্ব সম্পর্কে সজাগ থাকা। আলতাব আলী দিবস উপলক্ষে ঐদিন ব্রাডি আর্টস সেন্টারে মঞ্চায়িত হয় আলতাবী আলী করুণ মৃত্যুকে উপজীব্য করে জুলি বেগম রচিত বিশেষ নাটক। কেবিনেট মে“ার ফর কালচার, কাউন্সিলর আমিনা আলী বলেন, ৪১ বছর আগে আলতাব আলীর নির্মম হত্যাকান্ড আমাদের কমিউনিটিতে বর্ণবাদের বিরুদ্ধে গণ-বিক্ষোভের সূচনা করেছিলো। আশা, একতা ও সহাবস্থানের চেতনা ছড়িয়ে দিয়েছিলেন আলতাব আলী।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ