লেবাননে বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত এর ত্রিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত

Pub: বুধবার, জুলাই ১০, ২০১৯ ১:২২ অপরাহ্ণ   |   Upd: বুধবার, জুলাই ১০, ২০১৯ ১:২২ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়াসীম আকরাম, লেবানন থেকেঃ- মান্যবর রাষ্ট্রদূত আবদুল মোতালেব সরকার ৯ জুলাই মঙ্গলবার দুপুরে বৈধ কাগজপত্র বিহীন প্রবাসীদের বৈধকরণ নিয়ে ত্রিপক্ষীয় বৈঠক করেন।

রাষ্ট্রদূত প্রথমে লেবাননের কাউন্সিল অব মিনিস্টারস এর সেক্রেটারী জেনারেল জাস্টিস মোহাম্মদ ম্যককিয়ের সাথে তাঁর অফিসে বৈঠক করেন।
এবং পরবর্তীতে জাস্টিস ম্যাককিয়ে, শ্রমমন্ত্রী ক্যামিল আবু স্লেইমান ও রাষ্ট্রদূতের মধ্যে ত্রিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে বৈধ কাগজপত্র বিহীন বাংলাদেশী কর্মীদেরকে জরিমানা ব্যতীত একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ ফী প্রদানের মাধ্যমে বৈধকরণ এবং লেবাননের পার্লামেন্টে দ্রুত এ বিষয়ে একটি আইন/ডিক্রি পাসের বিষয়ে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রথমে ২০০১ এবং ২০০৬ইং হয়তো তিনবার অবৈধকে বৈধ হওয়ার সুযোগ দিয়েছিল বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের জন্য।দীর্ঘ বছর আর কোন সুযোগ দেনাই লেবানন সরকার। সেই সময় নিয়ম করেছিল যে কোন দেশের এন্ট্রি ভিসা বা সাদা পাসপোর্টে স্বদেশে ফেরত যেতে হলে ৬ লক্ষ লেবানিজ লিরা জরিমানা দিয়ে যাওয়া যেত।আর এই জরিমানা দিয়ে মালিক ঠিক করে কাগজপত্র বানিয়ে কাজ করারও সুযোগ করে দিয়েছিল লেবানন সরকার।

প্রসঙ্গতঃ বর্তমানে ১ লক্ষ ৬০ হাজারের অধিক বাংলাদেশী বিভিন্ন পেশায় কর্মজীবি এখানে বসবাস করছে। নিজেদের ইচ্ছায় বা দালালদের প্রতারণায় এবং মালিক পক্ষের দুর্বলতায় প্রায় দশ থেকে পনের হাজার বৈধ কাগজপত্র হীন হয়ে পড়ছে। এমন অবৈধ প্রবাসীরা এখন কাজের অভাব অনুভব করতে হচ্ছে।অবৈধকে বৈধকরন করে বাংলাদেশের রেমিট্যান্স বৃদ্ধিসহ প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানে বৈরুত বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকার পর্যাক্রমে একের পর এক আলোচনার বৈঠক করে যাচ্ছেন। অন্যদিকে এমন আলোচনায় সুফল বয়ে আনবে বলে প্রবাসীদের বিশ্বাস।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ