fbpx
 

বিশ্বনাথে হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার উদ্যোগে আরো অগ্রগতি

Pub: শনিবার, জুলাই ২৭, ২০১৯ ৮:৩৫ অপরাহ্ণ   |   Upd: শনিবার, জুলাই ২৭, ২০১৯ ৮:৫৩ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

প্রয়োজনীয় ভূমি বন্দোবস্ত, বেড়েছে আর্থিক ডোনেশনের প্রতিশ্রুতি

লন্ডন : বিশ্বনাথে বেসরকারিভাবে হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় আরো অগ্রগতি সাধিত হয়েছে। ব্রিটিশ দাতব্য সংস্থা ওয়ান পাউন্ড হসপিটাল ইউকের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠতব্য হাসপাতালটির ভবন নির্মাণের জন্য প্রাথমিকভাবে প্রয়োজনীয় ১৮০ ডিসিমেল ভূমির বন্দোবস্ত হয়েছে। একই সাথে বেড়েছে আর্থিক ডোনেশেনের প্রতিশ্রুতি। প্রথম সভায় প্রাপ্ত প্রতিশ্রুত ডোনেশন ৭২ হাজার থেকে বেড়ে ইতোমধ্যে তা ১২৫ হাজারে গিয়েছে পৌঁছেছে। সর্বস্তরের মানুষের ব্যাপক সাড়া উদ্যোক্তাদের ব্যয়বহুল হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার মতো বিশাল কার্যক্রম বাস্তবায়নে উৎসাহ যোগাচ্ছে। তারা আশাবাদী যে, সম্মিলিত সহযোগিতায় সমাজের সুবিধাঞ্চিত মানুষকে বিনামূল্যে সেবা দানের মানবিক এই উদ্যোগে অচিরেই সফলতার মুখ দেখবে। দ্বিতীয় মতবিনিময় সভায় উপস্থিত সূধিবৃন্দ ও ওয়ান পাউন্ড হসপিটাল ইউকের সংশ্লিষ্টরা স্বাস্থ্যসেবার মতো একটি জরুরী ও মৌলিক চাহিদা পুরণে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদানের লক্ষ্যে হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার এই মহতি উদ্যোগ বাস্তবায়নে বৃটেনে বসবাসকারী বিশ্বনাথবাসীসহ সর্বস্তরের মানুষকে সার্বিক সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে এগিয়ে আসার অনুরোধ জানান।

গত ২৩ জুলাই, সোমবার বিকালে পূর্ব লন্ডনের একটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় ওয়ান পাউন্ড হসপিটালের সূচনাকথা এবং তা জনসমক্ষে নিয়ে আসার বিস্তারিত তুলে ধরেন এই ওয়ান পাউন্ড হসপিটালের সিইও বিশিষ্ট চিকিৎসক ডা. শানুর আলী মামুন। তিনি প্রজেক্টরের মাধ্যমে কার্যক্রমের সূচনা এবং পরিবর্তী ধাপগুলো বাস্তবায়নে করণীয় তুলে ধরেন। ডা. শানুর তাঁর বক্তব্যের সূচনায় শুরু থেকে যারা এই মহতি উদ্যোগে সাড়া দিয়ে এগিয়ে এসেছেন এবং বৃটেন, আমেরিকা ও বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে যারা সার্বক্ষণিক সহযোগিতা করে যাচ্ছেন তাদের সবার প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানান।

ওয়ান পাউন্ড হসপিটাল চ্যারিটি সংস্থার উপদেষ্টা ও বিশ্বনাথের প্রাচীনতম বিদ্যাপীঠ রামসুন্দর মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক এম আবুল হাশিমের সভাপতিত্বে এবং সংস্থার ট্রাস্টি ও টাওয়ার হেলমেটের কাউন্সিলর কবি শাহ সোহেল আমীনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভার শুরুতে মহাগ্রন্থ আল কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন আরেক অন্যতম ট্রাস্টি মাওলানা সিরাজুল ইসলাম সাদ।

চ্যারিটি সংস্থাটির সেক্রেটারি জেনারেল ও ডাইরেক্টর অব ফাইনান্স, টাওয়ার হ্যামলেটসের সাবেক স্পিকার কাউন্সিলার আয়াস মিয়া হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার কার্যক্রমের অগ্রগতি তুলে ধরে বলেন, গরীব ও অসহায় রোগীদের চিকিৎসা সেবায় বিশ্বনাথে একটা জেনারেল হাসপাতাল অতীব জরুরী এবং এখন সময়ের দাবী। যা থেকে শুধু বিশ্বনাথ নয় সিলেটসহ পুরো বাংলাদেশের গরীব রোগীরা এর সুবিধা ভোগ করতে পারবে। তিনি সবার সহযোগিতা কামনা করে বলেন, বিশ্বনাথসহ সিলেটের অনেক দানশীল মানুষজন আছেন যারা এগিয়ে আসলে এটা বাস্তবায়ন মোটেই অসম্ভব নয়। ইতিমধ্যে বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়নে অত্যন্ত সুন্দর লকেশনে প্রয়োজনীয় জাগার ব্যবস্হাও হয়েছে। আপনাদের দান এই মহত কাজকে তরান্বিত করতে পারে।

বৃটেন সফররত ওয়ান পাউন্ড হসপিটালের আমেরিকা চ্যাপ্টারের চাফ কো-অর্ডিনেটর সাংবাদিক গোলাম সাদাত জুয়েল বলেন, কোনো মানবিক কার্যক্রম কোন এলাকায় বা কোন দেশে হচ্ছে তা আমার কাছে বড় বিষয় নয়। তিনি ক্ষণস্থায়ী জীবনের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে বলেন, সেবামূলক কার্যক্রম পৃথিবীর যে প্রান্তেই হোক না কেন আমি তাতে নিজেকে সম্পৃক্ত করতে চাই। জুয়েল সাদাত বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ব্যক্তিগতভাবে পরিচালিত কিছু সমাজহিতকর কার্যক্রমের উদাহরণ তুলে ধরে বলেন, মৃত্যুর পর একে একে যখন সবাই ভুলে যাবে তখন এই সৎ কর্মগুলো যেন পরকালের অনন্ত জীবনের পাথেয় হয় সেই ভাবনা থেকেই আমার এসব মানবিক কাজে নিজেকে সাধ্যমতো সম্পৃক্ত রাখার প্রয়াস।
সংস্থার ডাইরেক্টর অব মার্কিটিং, ইমিগ্রেশন এডভাইজার আনসার হাবিব তাঁর স্বাগত বক্তব্যে বলেন, যে কোনো মহৎ কার্যক্রম বাস্তবায়নে সর্বাগ্রে নিয়তের বিশুদ্ধতা অপরিহার্য। তিনি বলেন, সেই সুন্দর বিশুদ্ধতা নিয়ে আমরা সবাই একটি বিশাল কার্যক্রম বাস্তবায়নে উদ্রোগি হয়েছি। আমরা সবাই যদি যে কোনো ধরনের সুনাম খ্যাতি প্রাপ্তির বিষয়টি ভুলে গিয়ে কেবল মানবকল্যাণের বিষয়টিকে অগ্রধিকার দিয়ে এগিয়ে যেতে পারি তাহলে এই মহতি উদ্যোগের বাস্তবায়নে কোনোই বেগ পেতে হবে না এবং তা অচিরেই তা সফলতার মুখ দেখবে।
সভার সভাপতির বক্তব্যে মাস্টার এম এ হাশিম হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় প্রাথমিক পর্যায়ে যে ভূমির প্রয়োজন তা বন্দোবস্তু করতে বিশ্বনাথ এলাকার বৃটেনবাসী বিভিন্নজনের কাছে রাতদিন ছোটাছুটি এবং অবশেষে কয়েকজন হৃদয়বান মানুষের সাড়া পাওয়ার বিষয়টি সবাইকে অবহিত করেন। তিনি মানবসেবার গুরুত্ব তুলে ধরে বলেন, নিঃসন্দেহে এটা এক মহতি উদ্যোগ এবং ছদকায়ে জারিয়ার নিয়তে মুক্ত হস্তে দান খয়রাত প্রদানের এক যথাযথ প্লাটফরম। আমি আনন্দিত আপনাদের ১২৫ জন ইতিমধ্যে ফাউন্ডার মেম্বার হিসাবে প্রতিশ্রুতি প্রদান করেছেন। আপনাদের প্রথম একশত জনের নাম ভূমি দাতা হিসাবে হাসপাতালের ‘ওয়ান অব ওনার’ এ অনন্তকাল লেখা থাকবে উল্লেখ করে তিনি দলমত নির্বিশেষে হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় এগিয়ে আসার অনুরোধ জানান।
উল্লেখ্য, ব্রিটিশ চ্যারিটি কমিশন কর্তৃক রেজিষ্টার্ড সংস্থা ওয়ান পাউন্ড হসপিটাল ইউকে গত কয়েক বছর থেকে সফলতার সাথে ফ্রি ফ্রাইডে ক্লিনিক ও ফ্রি মেডিক্যল ক্যাম্পের মাধ্যমে বিশ্বনাথে বিনামুল্যে অসহায় রোগীদের সেবা দিয়ে আসছে। এই সেবা প্রতি সপ্তাহে অব্যাহত রাখার পাশাপাশি স্থায়ী একটি হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণের পর তা বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছে। এই কর্যক্রমের অংশ হিসেবে লন্ডনে অনুষ্ঠিত প্রথম সভায় উপস্থিত প্রায় সবাই খুশিমনে ১ হাজার পাউন্ড প্রদান করে ফাউন্ডার মেম্বার হিসেবে নিজেদের হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় সম্পৃক্ত করেন। তম্মধ্যে অনেকে নিজে একজন ফাউন্ডার মেম্বার হওয়ার সাথে সাথে আত্মীয়স্বজন ও বন্ধুবান্ধবদের অনুপ্রাণিত করে আরও অন্তত দশজন করে ফাউন্ডার মেম্বার করার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন এবং সেই আলোকেই সকল কার্যক্রম দ্রুত এগিয়ে চলছে।
সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রস্তাবিত হাসপাতালের ভূমিদাতাদের অন্যতম আশরাফ হাসান, হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য প্রবীণ সাংবাদিক রহমত আলী, মিডিয়া কো-অর্ডিনেটর সাংবাদিক কাইয়ূম আবদুল্লাহ, সাংবাদিক জাকির হোসেন কয়েস, বিশ্বনাথ এইডের চেয়ারপার্সন আব্দুর রহিম রঞ্জু, বিশ্বনাথ এইট ইউকের সেক্রেটারি এসআই খান, প্রবাসী অলংকারী ইউনিয়ন এন্ড ডেভেলপমেন্ট ট্রাস্ট ইউকের কোষাধক্ষ্য এম এ সালাম, মো. কামাল উদ্দিন সাবলু, কমিউনিটি নেতা ফারুক মিয়া, পোর্টসমাউথের কমিউনিটি নেতা আসাব আলী, আবু তাহের বাহার, সানাম মিয়া আতিক, আব্দুস সোবহান ফারুক, মাওলানা রুহুল আমীন, আব্দুস সোহবান, আবু বকর সিদ্দিক। এছাড়াও অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কমিউনিটি নেতা যথাক্রমে জাহেদ চৌধুরী, মঈনুল ইসলাম খালেদ, মজিবুর রহমান, বাসির আহমদ, আবু এস এম সুহেল প্রমুখ।
সভায় বাংলাদেশ চ্যাপ্টারের চেয়ারপারসন মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের সাবেক অতিরিক্ত সচিব মো. মঈন উদ্দিনের শুভেচ্ছা বাণী পড়ে শোনান প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও ট্রাস্ট শেখ হারুনুর রশীদ। জনাব মঈন তার বক্তব্যে বলেন, ‘আজকের মহতি সভায় উপস্হিত সকলের প্রতি আমার সালাম ও শুভেচ্ছা।
এ মহতি কাজে আমি সংশ্লিষ্ট হতে পারায় আল্লাহ তালার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আমি আপনাদের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এ স্বপ্ন বাস্তবায়ন কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি। আপনাদের দান ও প্রচেষ্টা সফল হোক এ প্রার্থনা আল্লাহর দরবারে।’
সভায় বৃটেন সফররত ওয়ান পাউন্ড হসপিটালের আমেরিকার চীফ কো-অর্ডিনেটর সাংবাদিক-কলামিস্ট জুয়েল সাদাতকে আমেরিকায় বসবাসকারী বিশ্বনাথসহ বাংলাদেশী প্রবাসীদের সম্পৃক্ততায় অনন্য ভূমিকা রাখার জন্য তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি একটি সম্মননা স্মারক প্রদান করা হয়। এছাড়াও হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার জন্য ভূমি প্রদানসহ যারা বিভিন্নভাবে ভূমিকা রেখে যাচ্ছেন তাদের ফুল দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বরণ করা হয়।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ