নুসরাতের রিসেপশনে চাঁদের হাট

Pub: শুক্রবার, জুলাই ৫, ২০১৯ ১:৪১ অপরাহ্ণ   |   Upd: শুক্রবার, জুলাই ৫, ২০১৯ ১:৪২ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাইপাসের ধারে একটি পাঁচতারা হোটেলে হয়ে গেল অভিনেত্রী নুসরাত জাহানের গ্র্যান্ড রিসেপশন। তাকে আর্শীর্বাদ জানাতে সেখানে হাজির ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছিলেন ইন্ডাস্ট্রিতে নুসরাতের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ বন্ধু অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। এছাড়া ছিলেন আরও অনেক বিনোদন ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। এককথায় চাঁদের হাট বসেছিল নুসরাতের রিসেপশন পার্টিতে।

দীর্ঘ দিনের বয়ফ্রেন্ড ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের সঙ্গে গত ১৯ জুন তুরস্কের বোদরুম শহরে রূপকথার বিয়ে হয় নায়িকার। এই বিয়ে নিয়ে এ পর্যন্ত কম কথা শুনতে হয়নি নুসরাতকে। উড়ে এসেছে একের পর এক মন্তব্য। মুসলিম হয়েও সিথিঁতে সিদূর ও গলায় মঙ্গলসূত্র পরায় হতে হয়েছে সমালোচিত। নূসরাত ধর্ম পাল্টে হিন্দু হয়ে গেছেন বলেও মন্তব্য করেছেন অনেকে।

তবে এই সবকিছুর একটাই উত্তর দিয়েছেন নুসরাত। তিনি বলেছেন, ‘আমি এমন এক ভারতবর্ষে বাস করি যেখানে ধর্ম সবকিছুর উর্ধ্বে। একজন মানুষের ভালোবাসাই সেখানে মুখ্য। আমি আমার ধর্মে বিশ্বাস করি। জন্মসূত্রে আমি মুসলিম এবং মুসলিমই থাকব। কিন্তু আমার মন আর হৃদয় যা বলবে আমি তাই করব।’

নুসেরাতের এটি দ্বিতীয় বিয়ে। এর আগে গোপনে তিনি বিয়ে করেছিলেন ভিক্টর নামে একজনকে। যাকে তিনি সবসময় বন্ধু বলে পরিচয় দিতেন। কিন্তু চলতি বছরের জানুয়ারিতে আদালতের মাধ্যমে তাদের ডিভোর্স হলে বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসে। এই ডিভোর্স পাওয়ার জন্য ভিক্টরকে মোটা অংকের টাকা দেন নুসরাত। প্রথম স্বামীকে ডিভোর্সের পাঁচ মাসের মাথায় নায়িকা বিয়ে করলেন নিখিলকে।

এদিকে সদ্য রাজনীতিতেও পা রেখেছেন ওপার বাংলার জনপ্রিয় এই নায়িকা। ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের ব্যানারে মুসলিম অধ্যুষিত বসিরহাট কেন্দ্র থেকে বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছেন তিনি। ইতোমধ্যে শপথও নিয়েছেন। প্রথমবার সাংসদ হয়েই দিল্লিতে গিয়ে নিজের কেন্দ্রে একটি কেন্দ্রীয় বিদ্যালয় স্থাপনের দাবি জানিয়ে এসেছেন নায়িকা।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ