স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম রাজবন্দী মুক্তিযুদ্ধের একজন সেক্টর কমান্ডার

Pub: মঙ্গলবার, নভেম্বর ১৯, ২০১৯ ৫:২৬ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম রাজবন্দী কোন রাজাকার বা আলবদর ছিল না, ছিল মুক্তিযুদ্ধের একজন সেক্টর কমান্ডার। ভারতীয় বাহিনি যখন পাকিস্তানিদের ফেলে যাওয়া অস্র ও গোলাবারুদগুলো ক্যান্টনমেন্ট খালি করে নিয়ে যাচ্ছিল আর আমাদের মিল-ফ্যাক্টরীর কলকব্জাগুলো পাচার করছিল ভারতে, তখন তাতে বাধা দিয়েছিল যে অসীম সাহসী মুক্তিযোদ্ধা, তার নাম ছিল মেজর জলিল।

মেজর এমএ জলিলের নিজ লেখনী থেকেই তাঁর ভারতবিরোধিতার কারণ জানা যায়। তিনি ‘অরক্ষিত স্বাধীনতাই পরাধীনতা’ নামক গ্রন্থে উল্লেখ করেন, ‘‘…………. এখানে একটা বিষয় সকলেরই পরিষ্কার হওয়া প্রয়োজন এবং তা হচ্ছে স্বাধীনতার সেই উষালগ্নে বিধ্বস্ত বাংলাদেশের সম্পদ রক্ষা করার যে আগ্রহ এবং বাসনা আমরা প্রদর্শন করেছি তা ছিল আমাদের জাতীয় সম্পদ রক্ষা করারই স্বার্থে কেবল, ভারত বিরোধী হয়ে উঠার জন্য নয়। জাতীয় সম্পদ রক্ষার চেষ্টা কেবল নিঃস্বার্থ দেশপ্রেমেরই লক্ষ্য, কারো বিরুদ্ধে শত্রুতা সৃষ্টি করার ষড়যন্ত্র মোটেও নয়। বন্ধু ভারত এখানে হিসেবে ভুল করেছে আর তাই দেশপ্রেমের পুরস্কার হিসেবে আমাকে যশোর থেকে ‘এমবুশ’ করে অর্থাৎ গোপনে ওঁৎ পেতে থেকে ভারত-বাংলাদেশ যৌথ বাহিনী সশস্ত্র উদ্যোগে গ্রেফতার করে। আমারই সাধের স্বাধীন বাংলায় আমিই হলাম প্রথম রাজবন্দী। ২১শে ডিসেম্বর বেলা ১০টা সাড়ে দশটায় আক্রমণকারী বাহিনীর হাতে বন্দী হয়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতার আসল রূপের প্রথম দৃশ্য দেখলাম আমি। ভারতীয় সৈন্যবাহিনীর মদদে বাংলাদেশ স্বাধীন করার অর্থ এবং তাৎপর্য বুঝে উঠতে আমার তখন আর এক মিনিটও বিলম্ব হয়নি।………..’’

(দৃশ্যপট একাত্তর

একুশ শতকের রাজনীতি ও আওয়ামী লীগ

Hits: 3


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ