fbpx
 

প্রতিহিংসা নয়,ভালোবাসার জয় হউক….

Pub: শনিবার, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২০ ১২:০৩ পূর্বাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ইয়াসমিন আক্তার,
শীর্ষ-খবর,লন্ডন প্রতিনিধি

“কিছু কথা”

“রাজ এবং নীতি- এই দুই বাক্যের সমন্বয়ে তৈরি
রাজার নীতি মানে রাজনীতি”, এটি একটি আদর্শের লড়াই ।এ লড়াই নিজেকে বিলিয়ে দিয়ে দেশ ও জাতির কল্যাণের জন্য করতে হয়
। আদর্শের এই লড়াইকে এগিয়ে নিতে দল ও দলের নেতৃত্বের প্রতি আস্তা ভলোবাসা রেখে এগিয়ে যেতে হয় আর না হয় গন্তব্য অনিশ্চিত।আজকাল এই আস্তা বিশ্বাস কি যে হচ্ছে সেটা বলে আর লজ্জিত হতে চাইনা ।

রাজনীতি আমার পেশা নয়,নেশা । প্রবাসে এসে দলের সাথে সম্পৃক্ত হয়েছিলাম মঈন-ফখরের নির্যাতনের শিকার হয়ে প্রিয় নেত্রী যখন জেলে গেলেন এবং দেশনায়ক যখন নিপীড়িত হয়ে চলে আসেন যুক্তরাজ্যে তখন থেকে, সম্পৃক্ত হবার পর থেকেই বিভিন্ন নেতৃত্বের সাথে কাজ করার সুযুগ হয়েছে,হউক আংশিক অথবা পূর্ণাঙ্গ, নির্বাচিত অথবা অনির্বাচিত, বিএনপি অথবা যুবদল যখন যাকে নেতা হিসাবে পেয়েছি, বড় ভাই হিসাবে পেয়েছি সম্মান করেছি,মেনে নিয়েছি,কাজও করেছি আজও করে যাচ্ছি এবং ভবিষ্যতেও এর ব্যতিক্রম হবার নয় কারণ আমি যে
“শহীদ জিয়ার”রেখে যাওয়া আদর্শের সৈনিক ।

যুক্তরাজ্যে যুবদল করার বদৌলতে সুযোগ হয়েছিলো বড় ভাইয়ের সাথে কর্মী হিসাবে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতায় সম্পৃক্ত হওয়ার এবং সেই প্রতিযোগিতাকে ভুলবশত কখনো প্রতিহিংসায় রূপ দেয়নি বা আমার সহকর্মী কাউকেও সেই উশৃঙ্খলতায় উৎসাহও দেইনি ।। আমরা পরাজিত হয়েছিলাম মেনে নিয়েছিলাম এবং নিজের চাহিদা মতো দলীয় মূল্যায়ন পাবো না জেনেও বিজয়ীদের সাথে মিলেমিশে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার প্রতিজ্ঞাও করেছিলাম এবং করেছিও তাই কারণ এটা যে রাজনীতির নেতৃত্বের নিয়ম যাকে বলে চেইন অফ কমান্ড এবং সাংগঠনিক নিয়ম ও বাদ্য বাদকথা আমি ভালো করেই জানি ।। রাজনীতিতে আজ আমি-কাল আপনি কিন্তু তাই বলে নেতৃত্ব অপছন্দ হওয়া মাত্রই সহযুদ্ধাদের অবমাননা করবো, বিরুদ্ধাচারণ করবো,বিশুদ্গার করে বেড়াবো,তাদের চরিত্র হনন করবো ? না মোটেওনা,অন্তত আমি একজন জিয়ার আদর্শের সৈনিক হিসাবে তা আমার চরিত্রের সাথে যায় না ! দুঃখজনক হলেও সত্য যে যুক্তরাজ্য যুবদলের নেতৃদ্বয় সতর্কতামূলক নোটিশ জারি করতে হচ্ছে কিছু ভাইদের জন্য যে তারা দলীয় শৃঙ্খলা বঙ্গ থেকে বিরত থাকার জন্য, আমিতো মনে করি এটা আপনাদের রাজনৈতিক ব্যর্থতা !! নেতৃত্বকে সম্নান করবেন না, বিরুধীতার খাতিরে শুদু বিরুধীতা আর প্রতিহিংসাই করে যাবেন, তা টিক নয় ।। রাজনীতির নেতৃত্ব কৌশলের খেলা এখানে নিয়মবহির্ভূত উগ্র পেশী শক্তি কারো জন্য শুভফল বয়ে আনেনা !!

তবে আপনাদের উদ্দেশ্যে করে একটা কথা বলতে চাই আপনারা যারা নেতৃত্বের জন্য উদগ্রীব হয়েছেন বা নেতৃত্বে আসতে চান-প্রতিহিংসা পরিহার করে প্রতিযোগিতায় সামিল হউন,জিয়াউর রহমানের সংগঠনের মানুষের আত্মা অনেক বড় হয়, আপনারা ভিন্নমতের মানুষদের কাছে টানুন তাদের প্রতি সেই উদারতা দেখান দেখবেন সফলতা দুয়ার উন্মোচিত হচ্ছে ।। রাজনীতির মাঠে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতায় হারজিত থাকবেই এরপরও আপনার নিজের যোগ্যতার প্রতি আত্মবিশ্বাস রাখবেন দেখবেন সময়মতো ঠিকই সফল হয়ে গেছেন ।।

তবে দৃঢ়তার সাথে এতটুকু বলতে পারি ভবিষ্যতে যদি রাজনীতির পালাবদলে নেতৃত্বের পরিবর্তন আসে আর এতে যদি আমাদের কোনো অবস্থান বা সুযোগ নাও থাকে তাহলে ঘরে বসে বসে আপনার কুৎসা রটনা আপনার সমালোচা আপনাদের বিরুদ্ধাচরণও করবো না কারণ শহীদ জিয়ার দলের কর্মীর আদর্শ স্বভাব চরিত্র আমাকে এ শিক্ষা দেয়নি,আমার মুখের বাসা ও ব্যবহার যেমন আমার পরিবার বংশের পরিচয় বহন করে তেমনি দলের চরিত্রও বহন করে ! অতএব কুনু জায়গায় পরাজিত হলেও দল ও দেশের জন্য লড়ে যাবো,রেগে যাবো না,হেরেও যাবো না, কারণ কথায় আছে রেগে গেলেনতো হেরে গেলেন !

পরিশেষে বলবো ”জিতলেও আছি হারলেও আছি—পাইলেও আছি না পাইলেও আছি ।। এই স্লোগান মাতায় রেখে দল ও দেশনেত্রীর এই চরম ক্রান্তিলগ্নে চলুন প্রতিহিংসা ভুলে গিয়ে প্রতিযোগিতার মাধম্যে দল ও দেশের জন্য ঐক্ষবদ্ধ হয়ে কাজ করি ।। এতে আপনি বাঁচবেনআমি বাঁচবোদল বাঁচাবো_দেশ বাঁচাবো ।।

“জয় হবে সত্যের
জয় হবে মানবতার”

নুরুল আলী রিপন
যুগ্ন সম্পাদক
যুক্তরাজ্য যুবদল

Hits: 209


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ