এই মাছ বার্তা দেয় ভয়ানক ভূমিকম্পের!

Pub: Friday, July 24, 2020 2:16 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওর ফিস। লম্বার ১৩ ফুট। দৈত্যাকার এই মাছের পরিচিতি অবশ্য অন্য কারণে। কারণ, এটি ভূমিকম্পের মাছ বলে পরিচিত। মনে করা হয়, এই মাছ ধরা পড়া মানেই সামনে আসছে ভয়ানক কোনও ভূমিকম্প। ২০১১ সালে ফুকুশিমা ভূমিকম্পের আগেও এই একই মাছ ধরা পড়েছিল।

রবিবার ম্যাক্সিকোর উপকূলে এই মাছ ধরা পড়েছে। আর সেই খবর রটে যেতেই আতঙ্ক ছড়িয়েছে মানুষের মধ্যে কারণ, অনেকেই মনে করছেন, সুনামির মতো তীব্র ভূমিকম্প আসছে।

স্থানীয় মানুষদের কথা অনুসারে, এই অংশে তীব্র ভূমিকম্পের আগে এই মাছ ধরা পড়ে। এবারেও তাই সাধারণ মানুষ আলাদা করে চিন্তায় আছে, কী হতে চলেছে। রবিবার এই দৈত্যাকার মাছ উদ্ধার করেন ফার্নান্ডো ক্যাভেলিন ও ডেভিড নামে দু’‌জনে। এই মাছের একটি ছোট ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। যেখানে হাতে করে এই দৈত্যাকার মাছ ধরে থাকতে দেখা যাচ্ছে দুই উদ্ধারকারীকে।

তবে তারা দুঃখের বিষয় জানিয়েছেন, এই মাছটি ধরা পড়ার অনেক আগেই মরে গিয়েছে। এর শরীরে পচন ধরার আগের মুহূর্তে এটি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এটি আর কোনও কাজে লাগবে না, এমনটা কিন্তু বলা যায় না।

বিশেষজ্ঞরা পরীক্ষা করে বলেছেন, মাছের প্রোটিন কখনই নষ্ট হয় না। মরা মাছ উপকূলে ভেসে এসেছে ঠিকই, কিন্ত এটিকে কাজে লাগিয়ে অনেককিছুই করা সম্ভব। কিন্তু এর সঙ্গেই ম্যাক্সিকোর নিজস্ব লোকগাথার এক কাহিনি জড়িয়ে রয়েছে। যেখানে বলা হয়েছে, এই মাছের দেখা পাওয়া মানেই ভূমিকম্প হতে পারে।

অনেক কনস্পিরেসি থিওরিস্টকে দেখা যায়, যারা বলেন, ভূমিকম্পের আন্দাজ প্রাণীকূল আগে পায়। আর সেই কারণে সমুদ্রের গভীরতম তল থেকে তারা আগে ওপরের দিকে উঠে আসে। আর সেই উঠে আসাই হল বড়সড় প্রাকৃতিক দুর্যোগের ইঙ্গিত। এই মাছের ক্ষেত্রেও বিষয়টি তেমন। লোকগাথায় এভাবেই মাছের দেখা পাওয়ার সঙ্গে ভূমিকম্পের যোগাযোগ স্থাপন করা হয়েছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ