জাবালে সাওর’ এর গুহায়

Pub: সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০১৯ ২:১৮ অপরাহ্ণ   |   Upd: সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০১৯ ২:১৮ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বদরুজ্জামান জামান
,
রৌদ্রের নিঃশ্বাসে উত্তপ্ত পাথর, মাথার উপর সূর্যের ছাদ, তপ্ত দুপুর পেরিয়ে- সূর্য পশ্চিমাকাশে অস্তাচল যাত্রী; আমরা ততক্ষণে ‘জাবালে সাওরে’র পাদদেশে । ৪৫৮ মিটার মাথা উঁচু করে আকাশ পানে দাঁড়িয়ে আছে জন্ম অবধি ।

ভাবাতুর অনুভূতি, অপলক তাকিয়ে থাকা, আমার চিন্তা, আমার বিশ্বাস সব একবৃত্তে। আমি দেখছিলাম- রাসুলুল্লাহর (সাঃ) অনুসারীদের, আমি দেখছিলাম মানুষ, আমি দেখছিলাম মানুষের চিন্তা-বিশ্বাস আর তৃপ্ত একাগ্রতা। যারা এসেছেন এবং আসছেন- বালি, পাথর, মরুভূমি, পর্বত, আকাশ, সমুদ্র পেরিয়ে দল বেঁধে কিংবা আমার মতো অনেকটা একা।

আমি দেখছিলাম- কিছু মানুষ সিজদাবনত, কিছু মানুষ হস্তদ্বয় তুলে দোয়া করছে, কিছু মানুষ গুহার পাথরে দেয়ালে মনের বাসনাগুলো লিখে রাখছে আবার কেউ কেউ গুহার পাথর মাটি মাহাত্ম্যপূর্ণ ভেবে কুড়িয়ে নিচ্ছে। সময়ের বিবর্তনে রাসুলুল্লাহর (সাঃ) কিছু উম্মতের অসুস্থ বিশ্বাস আর ঝড়োবস্তুর উপাসনামগ্নতা আমার দৃষ্টি বেয়ে পড়ছিল। অথচ আমি তো এসেছিলাম স্বজাতি পরিত্যাজ্য রাসুলের ঝরেপড়া কষ্ট আর ঘামের চিহ্ন খুঁজতে। আপন বিশ্বাসের দৃঢ়তা সুদৃঢ় করতে ।

একজন মহামানবের শান্তির আহ্বান প্রত্যাখ্যান করে একটি বর্বর গোষ্ঠী একটি বর্বর সমাজের বর্বরতা আর নির্যাতন দৃশ্যপট পাথরের প্রতিটি পরতে পরতে সহস্রাব্দ থেকে সহস্রাব্দব্যাপী বয়ে যাচ্ছে । নির্বাক এই পাথরের পাহাড়গুলো আমার মনে সখ্য গড়ে, দেড় সহস্রাব্দিক বুকের গভীরে জমে থাকা স্মৃতিগুলো আমাকে খুলে দেখায়, আমি দেখি- স্বজাতি পরিত্যাজ্য রাসুলুল্লাহর হিজরত যাত্রাদৃশ্য । আপাদমস্তক শিউরে উঠি । ‘

জাবালে সাওরে’ আত্মগোপনের তিন দিন তিন রাত অতিক্রান্ত রাসুলের হিজরত সঙ্গী আবু বকর ( রাঃ) শত্রুদের পদধ্বনি শোনে শঙ্কিত হলেন। শত্রুরা ‘জাবালে সাওরে’ এসে দেখতে পেল মাকড়সার জাল পরিবেষ্টিত একটি পরিত্যক্ত গুহা, শত্রুরা ব্যর্থ মনোরথে ফিরে গেল আর ভিতরে রাসুল তাঁর সাথীকে বলছেন- “ভয় করোনা, নিশ্চয়ই আল্লাহ আমাদের সাথে আছেন”।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ