fbpx
 

যেন আলোকচিত্রীর ইচ্ছাপূরণ করল ঈগল

Pub: Thursday, May 30, 2019 5:54 AM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বেশ কয়েকবার চেষ্টার পর হয়তো একটা মনের মতো ছবি উঠানো যায়। অনেক সময় প্রথম ক্লিকেই উঠে যায় দারুণ ছবি। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে একজন আলোকচিত্রীকে ছবি শিকার করতে হয়। একটা ভালো ছবি তোলার জন্য সময় দিতে হয়।

আলোকচিত্রীকে সব সময় নিজের পছন্দের মুহূর্তটি ক্যামেরাবন্দির ধান্দায় থাকেন। তবে সময় ও পরিস্থিতি তাতে বাধা হয়ে দাঁড়ায়। তেমনি এক আলোকচিত্রীর ইচ্ছে ছিল, শিকারের অপেক্ষায় থাকা ঈগলকে ক্যামেরায় বন্দি করা। দীর্ঘদিন অপেক্ষার পর ছবিটা তুলতে পেরেছেন তিনি। তবে এর জন্য পোড়াতে হয়েছে অনেক কাঠ-খড়।

কানাডিয়ান আলোকচিত্রী স্টিভ বায়রো। সম্প্রতি তার তোলা একটি ঈগলের ছবি ইন্টারনেট জগতে ভাইরাল হয়েছে। ছবিটি তোলার জন্য রীতিমতো প্রশংসায় ভাসছেন তিনি।

ছবিটিতে দেখা যায়, ধারালো হলুদ-কমলাটে ঠোঁট, একজোড়া চোখ। তীক্ষ্ণ তার নজর। শিকার ধরার লক্ষ্যে নিবিষ্ট সে। দুই পাশে বিশাল ডানা মেলে এক্ষুণি যেন পানিতে ডুব দেবে। ছোঁ মেরে তুলে আনবে দীর্ঘক্ষণ টার্গেটে রাখা শিকার। এমনই অবস্থায় ঈগলটিকে ক্যামেরাবন্দি করেন স্টিভ। নিখুঁত ফটোগ্রাফি যেটাকে বলা হয়, এ ছবিটা ঠিক তাই।

স্টিভ বায়রোর বলেন, ব্যাল্ড ঈগলটি তাকে মুগ্ধ করেছে। তিনি এর নাম দিয়েছেন ব্রুস। পাখিদের অভয়ারণ্য কানাডিয়ান র্যাপটর কনজারভেন্সিতে ছবিটি তোলেন তিনি। পরে তা ফেসবুকে আলোকচিত্রীদের একটি গ্রুপে দেয়ার পর ভাইরাল হয়। ঈগলটির ছবি ছাড়াও ওই দিন আরও বেশ কয়েকটি পাখির ছবি তুলেছিলেন স্টিভ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি বছর মে মাসের শুরুর দিকে কানাডাতে এই ছবি তোলেন স্টিভ। প্রায় ১০ বছর ধরে তিনি অ্যামেচার ফটোগ্রাফি করছেন। তাই কখন কীভাবে এমন মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি করতে হয়, তা বেশ ভালোই জানা আছে তার।

তিনি বলেন, এক বছর আগেও ঈগলের এমন মুহূর্ত ক্যামেরায় ধরতে চেয়েছিলাম। কিন্তু পারিনি। তখন বুঝেছিলাম আমার অবস্থান ঠিক নেই। যা চাচ্ছি ঠিক সেই ছবিটা তুলে আনতে পারছি না।

তবে এবার আর সুযোগটা হাতছাড়া করেননি স্টিভ। তিনি জানান, এবার ঈগলটির আশপাশে ক্যামেরা নিয়ে চুপচাপ বসেছিলাম। তারপর ঈগলটা আসতেই নদীর ধারে একটি পাথরে ভর দিয়ে প্রায় শুয়ে পড়ে ছবিটা তুলি। ছিপ দিয়ে মাছ ধরার মতো ঘাপটি মেরে তোলা স্টিভের এই ছবিটি এখন ইন্টারনেটে ঘুরছে। এমন চমৎকার ছবি তোলোর জন্য তার প্রশংসা করছে সবাই।

মূলত উত্তর আমেরিকাজুড়ে বিচরণ করে এই ব্যাল্ড ঈগল প্রজাতির ঈগল। পাখিটি যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় প্রতীক। দেশটির প্রায় অর্ধেক বেশি এলাকায় ব্যাল্ড ঈগলের বাস। তবে কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়ায় এ প্রজাতির ঈগল চোখে পড়ে বেশি।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ