fbpx
 

রূপকথার জন্ম দিলো টটেনহ্যাম

Pub: বৃহস্পতিবার, মে ৯, ২০১৯ ৮:৫২ পূর্বাহ্ণ   |   Upd: বৃহস্পতিবার, মে ৯, ২০১৯ ৮:৫২ পূর্বাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

প্রথমার্ধে জোড়া গোল খেয়ে পিছিয়ে পড়া টটেনহ্যাম হটস্পার লুকাস মউরার হ্যাটট্রিকে দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়ায়। আর তাতে অসাধারণ এক জয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ফাইনালে ওঠে রূপকথার জন্ম দিলো ইংলিশ ক্লাবটি। 

ইয়োহান ক্রুইফ অ্যারেনায় বুধবার রাতে শেষ চারের ফিরতি পর্বের ম্যাচে আয়াক্স বিপক্ষে ৩-২ গোলে জিতে মাওরিসিও পচেত্তিনোর দল। অ্যাওয়ে গোলে এগিয়ে থাকায় ফাইনালের টিকেট পায় তারা। গত সপ্তাহে টটেনহ্যামের মাঠে ১-০ গোলে জিতেছিল আয়াক্স।

ম্যাচের পঞ্চম মিনিটেই গোল আদায় করে নেয় আয়াক্স। দারুণ হেডে দলকে এগিয়ে দেন মাতাইস দি লিট। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে চতুর্থ টিনএজার হিসেবে গোল করলেন দি লিট।

৩৫তম মিনিটে বাঁ দিক থেকে স্বদেশি মিডফিল্ডার ফন দে বেকের কাটব্যাক পেয়ে বাঁ পায়ের জোরালো কোনাকুনি শটে জাল খুঁজে নেন ডাচ মিডফিল্ডার হাকিম জাইয়েক। এতে দুই লেগ মিলে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় আয়াক্স।

কিন্তু বিরতির পর দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায় টটেনহ্যাম। ৫৫তম মিনিটে প্রত্যাশিত গোলের দেখা পায় অতিথিরা। পাল্টা আক্রমণে মাঝমাঠ থেকে বল পায়ে ছুটে একজনকে কাটিয়ে সামনে বাড়ান ডেলে আলি। আর দ্রুত ডি-বক্সে ঢুকে নিচু শটে ব্যবধান কমান মউরা।

এর চার মিনিট পর আলগা বল জটলার মধ্যে পেয়ে ঠান্ডা মাথায় ডিফেন্ডারদের কাটিয়ে বাঁ পায়ের শটে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার মউরা।

আর যোগ করা সময়ের ষষ্ঠ মিনিটে ডেলে আলি পাস ধরে ডি-বক্সে ঢুকে নিচু শটে পোস্ট ঘেঁষে বল জালে পাঠিয়ে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন মউরা। তাতেই আয়াক্সের ফাইনালে খেলার স্বপ্ন ভেঙে যায়।

কিছুক্ষণ পর শেষ বাঁশি বাজার সঙ্গে সঙ্গে হতাশায় মাটিতে লুটিয়ে পড়ে আয়াক্সের খেলোয়াড়রা। অন্যদিকে, ইতিহাস গড়ার উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়ে ‘স্পার্স’ নামে পরিচিত দলটি।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ