fbpx
 

তুলসি পাতার এতো গুণ!

Pub: Wednesday, August 7, 2019 9:25 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

তুলসি পাতা আদিকাল থেকেই নানা রোগে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। প্রাচীন আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে তুলসি পাতার নানা গুণের কথা উল্লেখ রয়েছে। আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানেও তুলসি একটি ওষুধী গাছ হিসেবে স্বীকৃত। চলুন তুলসি পাতার নানা গুণের কথা জেনে নেয়া যাক…

সর্দি-কাশি ও জ্বর কমাতে: তুলসিকে বলা হয় প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক। তুলসি পাতা জ্বর এবং সর্দি-কাশি সারাতে খুবই কার্যকরী ভূমিকা রাখে। যেসব ভাইরাসের কারণে জ্বর বা সর্দি-কাশি হয়ে থাকে তুলসি পাতা তা ধ্বংস করতে সাহায্য করে।  

মাথা ব্যাথা কমাতে: তুলসি পাতায় থাকা সিডেটিভ এবং ডিসইনফেকটেন্ট যে কোন ধরনের মাথা দূর করে। সাইনাস ও মাইগ্রেনের সমস্যায়ও তুলসি পাতা দারুণ কার্যকর। 

রক্ত পরিশোধনে: প্রতিদিন সকালে খালি পেটে যদি  দুই থেকে তিনিটি তুলসি পাতা খাওয়া যায় তাহলে রক্তে উপস্থিত ক্ষতিকর উপাদান বেরিয়ে যায়।  এর ফলে শরীর যেমন চাঙ্গা হয়ে ওঠে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বৃদ্ধি পায়।  

ব্রণ কমাতে: যারা ব্রণের সমস্যায় ভুগছেন, তাদের জন্য আর্শিবাদ হতে পারে তুলসি পাতা। তুলসিতে থাকা অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এজেন্ট শরীরে প্রবেশ করার পর ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া এবং জীবাণু ধ্বংস করে। এর ফলে এটি ব্রণ কমাতে সহায়তা করে। ব্রণের চিকিৎসায় তুলসি পাতা খেতেও পারেন আবার সরাসরি মুখে পেস্ট বানিয়ে লাগাতে পারেন। 

ডায়াবেটিস দূর করে: তুলসি পাতা খেলে রক্তে শর্করার মাত্রা কমতে থাকে। তুলসি পাতা ইনসুলিনের কর্মক্ষমতাও বৃদ্ধি করে। এর ফলে শরীরের সুগারের মাত্রা বাড়ার আশঙ্কা কমে যায়। এছাড়া তুলসি পাতা মেটাবলিক ড্য়ামেজের হাত থেকে লিভার এবং কিডনিকে বাঁচাতে সাহায্য করে।

ক্যান্সারকে দূরে থাকে: তুলসি পাতায় থাকা ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট শরীরে ক্যান্সারের সেল জন্ম নিতে বাধা দেয়। গবেষণায় দেখা গেছে তুলসি পাতা লিভার, ওরাল এবং স্কিন ক্যান্সারের প্রতিরোধে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

স্ট্রেস কমায়: তুলসি পাতা খেলে কর্টিজল হরমোনের ক্ষরণ কমে যায়। কর্টিজল হরমোন কম থাকলে স্ট্রেসও কমে যায়। 

দৃষ্টিশক্তি বাড়ায়: তুলসি পাতা চোখের দৃষ্টিশক্তি বাড়ানোর পাশাপাশি ছানি এবং গ্লকোমার মতো চোখের রোগ থেকে মুক্তি দিতে সহায়তা করে। 


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ