স্বামীকে বাঁচাতে গিয়ে গুলিতে নিহত হলেন পারভীন

Pub: শুক্রবার, মার্চ ১৫, ২০১৯ ১১:১৭ অপরাহ্ণ   |   Upd: শুক্রবার, মার্চ ১৫, ২০১৯ ১১:১৭ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছেন সিলেটের হুসনে আরা পারভীন (৪০)। পারভীনের বাড়ি সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার লক্ষ্মীপাশা ইউনিয়নের জাঙ্গালহাটা গ্রামে। তার পিতার নাম আব্দুন নূর।

শুক্রবার (১৫ মার্চ) স্বামী ফরিদ উদ্দিন আহমদের সঙ্গে জুমার নামাজ আদায় করতে গিয়ে গুলিতে নিহত হন তিনি। 

জুমার নামাজের সময় মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় হুসনে আরা পারভীনের নিহতের ঘটনায় এলাকায় নেমে আসে শোকের ছায়া। নিহত পারভীন তার স্বামী, এক মেয়ে ও দুই ভাইবোনের সঙ্গে ক্রাইস্টচার্চে থাকতেন। তার স্বামী ফরিদ উদ্দিন আহমদের বাড়ি বিশ্বনাথ উপজেলার চকগ্রামে।

শুক্রবার জুমার নামাজ আদায় করার জন্য স্বামীকে নিয়ে ক্রাইস্টচার্চে একটি মসজিদে যান হুসনে আরা পারভীন। স্বামীকে পুরুষ মসজিদে দিয়ে নারীদের জন্য পৃথক জায়গায় নামাজ আদায় করার জন্য যান পারভীন।

এর কিছুক্ষণ পর গোলাগুলির শব্দ শুনে স্বামীকে খুঁজতে যান পারভীন। ওই সময় অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী তাকে এলোপাতাড়ি গুলি করলে ঘটনাস্থলেই নিহত হন তিনি।

পারভীন-ফরিদ দম্পতির ১৯৯৪ সালে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। এর কয়েক বছর পর তারা নিউজিল্যান্ডে যান। ২০০৯ সালে তারা বাংলাদেশে এসেছিলেন বলে জানায় সিলেটে বসবাসরত তাদের পরিবার ও স্বজনরা।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (১৫ মার্চ) দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে জুমার নামাজের সময় মসজিদে হামলা চালায় মুসলিম বিদ্বেষী অস্ট্রেলিয়ান এক নাগরিক। প্রথমে আল নূর মসজিদে হামলা চালায় সে। পরে পার্শ্ববতী লিনউড মসজিদ হামলা চালায়। নৃশংস ওই হত্যাকাণ্ডের পুরো ঘটনা ফেসবুক লাইভে প্রচার করে হামলাকারী।

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪৯ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

এদিকে এ ঘটনায় সেখানে অবস্থান করা বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেছেন। তারা ওই মসজিদে নামাজ পড়তে যাচ্ছিলেন। তারা মসজিদে প্রবেশের মুহূর্তে এই হামলা চালানো। ক্রিকেটাররা দৌড়ে সেখান থেকে নিরাপদে আশ্রয় নেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ

সংবাদটি পড়া হয়েছে 1090 বার