লেবাননে সরকার বিরোধী আন্দোলনের এক বছর পূর্তি উদযাপন!

Pub: Sunday, October 18, 2020 1:39 AM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়াসীম আকরাম :-গত বছর ১৭ অক্টোবর ২০১৯ সালে সরকার কিছু কর নির্ধারন করাকে কেন্দ্র করে তাহা বাতিলের জন্য জনগণ বিক্ষোভ আন্দোলন শুরু করেছিল।দেখা দেয় রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও ডলার সংকট। আর বিক্ষোভ আন্দোলন তোপের মুখে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরি পদত্যাগ করেন।আন্দোলনকারীদের দাবী ছিল পুরা পার্লামেন্ট ভেঙ্গে দিয়ে নতুনভাবে গঠনের। কিন্ত প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরি পদত্যাগ করলেও বাকীরা স্ব- স্বপদে থেকে জান।পরে গঠন করা হয় নতুন প্রধানমন্ত্রী এতে দায়িত্ব পান হাসান দিয়াব।

হাসান দিয়াব প্রধানমন্ত্রী কালীন গত ৪ আগষ্ট বৈরুত বন্দরে ঘটে যায় ভয়াবহ বিস্ফোরণ। এতে প্রায় দুই শতকের অধিক প্রাণ হারায় এবং প্রায় ছয় হাজারের অধিক আহত হন। লেবাননের ইতিহাসে এটি সবচেয়ে বড় বিস্ফোরণ।
বিস্ফোরণের পর আবার লেবাননের জনগণ বিক্ষোভ আন্দোলন শুরু করেন এবং এতে প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব পদত্যাগ করেন। বর্তমানেও হাসান দিয়াব তত্ত্বাবধায়ক দায়িত্বে আছেন।

হাসান দিয়াব তত্ত্বাবধায়ক দায়িত্বে থাকাকালীন আবার গঠন করা হয় নতুন প্রধানমন্ত্রী এবং এতে প্রধানমন্ত্রী স্হান পান মোস্তফা আদিব। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরি পক্ষ থেকে মোস্তফা আদিব ‘কে সম্পূর্ণ সহযোগিতা করা হলেও লেবাননের যে সকল মন্ত্রীপরিষদের গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট আছে সেগুলো সংস্করণ করতে গিয়ে নিজের ব্যর্থতা এবং লেবাননের জনগণের নিকট দূঃখ প্রকাশ করে পদত্যাগ করেন।

তার পদত্যাগ বেশকিছু দিন অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত নতুন কেহ আর প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পান নাই। এরমধ্যে গত বৃহস্পতিবার লেবাননের রাষ্ট্রপতি মিশেল আউন প্রধানমন্ত্রী গঠনে বাধ্যবাধকতা সংক্রান্ত সংসদীয় পরামর্শ সভার কথা থাকলেও পরবর্তীতে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ২২ অক্টোবর ২০২০ইং পর্যন্ত এক সপ্তাহের জন্য নির্ধারিত বাধ্যবাধকতা সংক্রান্ত সংসদীয় পরামর্শ স্থগিত ঘোষণা করেন।

অন্যদিকে এর আগে রাষ্ট্রপতি মিশেল আউন এর সাথে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরি সাক্ষাত শেষে দেয়া ভাষণে তিনি বলেন, লেবাননের বিভিন্ন সংকট নিরসনে আগামীর প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব নিতে প্রস্তুত এবং প্রধানমন্ত্রী পদে প্রার্থী হবেন। এছাড়াও বলেছেন যে, ফরাসি সমর্থিত সংস্কারের জন্য অতিরিক্ত সমর্থন আদায়ের জন্য লেবাননের রাজনৈতিক দলগুলির সাথে দেখা করার জন্য একটি প্রতিনিধি দল গঠন করে মতবিনিময় আলোচনায় পাঠাবেন তিনি।
তার ধারাবাহিকতায় এদিকে ম্যারাডা আন্দোলনের নেতা স্লেমান ফ্রাঞ্জিহ এর সাথে এমপি বাহিয়া হারিরির
নেতৃত্বে ফিউচার মুভমেন্টের একটি প্রতিনিধি দলের সাথে বৈঠক হয়।বৈঠক শেষে স্লেমান ফ্রাঞ্জিহ বলেন,এই সপ্তাহের শেষের দিকে অনুষ্ঠিত সংসদীয় পরামর্শকালে পরবর্তী সরকার প্রধানের জন্য প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরিকে তাঁর সমর্থন এবং মনোনীত করবেন।তিনি আশা ব্যক্ত করে বলেন, এমন সংকটময় সময়ে সবাই সহযোগিতায় এগিয়ে এসে সরকার গঠনের কাজটি সুষ্ঠুভাবে করবেন।

যাহা ফরাসী সংস্কার সংক্রান্ত কাগজ বাস্তবায়নের জন্য উপযুক্ত ব্যক্তির নেতৃত্বে একটি যোগ্য সরকার গঠনের প্রয়োজন।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রন বিস্ফোরণের পর দুইবার বৈরুত সফর আসেন।সে সময় লেবাননের সংসদীয় দল গুলিকে সংস্কারের একটি রোড ম্যাপ সহকারে উপস্থাপন করেছেন এবং বিশেষাজ্ঞদের দিয়ে একটি নতুন সরকার গঠন করা হলে এবং তার সংস্কার পরিকল্পনা বাস্তবায়নে কাজ করার সুযোগ পেলে বৈরুতের সংকট এবং ক্ষতবিক্ষত পূর্ণনির্মানের জন্য তহবিল সংগ্রহে একটি আন্তর্জাতিক দাতা সম্মেলন করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তিনি।

ফিউচার মুভমেন্টের প্রতিনিধি দলটি তাশনাগ পার্টির নেতা হাগোপ পাক্রাডউনিয়ান এবং লেবানিজ ফোর্সেসের প্রধান সমির জাজার সাথেও পৃথকভাবে বৈঠক করার কথা রয়েছে।

অন্যদিকে লেবানন সংসদের স্পিকার নবিল বারী এর সাথেও বৈঠক করেন হারিরি।সে সময় নবিল বারী ফরাসী উদ্যোগকে সমর্থন করেন বলে জানান তিনি।

হারিরি পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য পর্যাপ্ত আইন প্রণেতাদের সমর্থনে জিতবেন কিনা, বা তিনি ফরাসী উদ্যোগের সমস্ত দলকে সফলভাবে ঐক্যবদ্ধ করতে পারবেন কিনা তা এখনও পরিষ্কার নয়।
আর সাদ হারিরি সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করে সফলতা আনতে পারেন তাহলেই আগামীর প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্বে আশ্বিন হবেন।

তবে আজও বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে জনগণ সোগানে দূর্নীতি বা হারামি পার্লামেন্ট আখ্যায়িত করে সকলের পদত্যাগ দাবি করেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
নিউজটি পড়া হয়েছে 130 বার

Print

শীর্ষ খবর/আ আ