আইসিটি খাতের ৫ বিলিয়ন ডলার লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে প্রবাসীরা সহযোগিতা করবে

Pub: সোমবার, আগস্ট ২৭, ২০১৮ ১২:৩৮ অপরাহ্ণ   |   Upd: সোমবার, আগস্ট ২৭, ২০১৮ ১২:৩৮ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

মাঈনুল ইসলাম নাসিম: ২০২১ সাল নাগাদ আইসিটি খাত থেকে ৫ বিলিয়ন ডলার আয়ের যে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ সরকার, তা অর্জনে বিশ্বব্যাপী প্রবাসী বাংলাদেশি আইটি বিশেষজ্ঞদের অভিজ্ঞতা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে প্যারিস ভিত্তিক ‘বিশ্ব বাংলাদেশ সংস্থা’ তথা ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ অর্গানাইজেশন (ডব্লিউবিও)। ২৬ আগস্ট রবিবার কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এবং ডব্লিউবিও’র সহযোগিতায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত তথ্যপ্রযুক্তি খাতের গুরুত্বপূর্ণ এক সেমিনারে জানানো হয়, প্রবাসী আইটি এক্সপার্টদের মেধা, যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতাকে বাংলাদেশ সরকার যথাযথভাবে কাজে লাগালে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ ত্বরান্বিত হবে।

“ফ্রিল্যান্সিং এন্ড আউটসোর্সিং অপরচুনিটিজ ইন বাংলাদেশ” শীর্ষক আন্তর্জাতিক সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব রিচমন্ডের সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং ডিরেক্টর শেখ গালিব রহমান। ইউএস প্রেসিডেন্ট এক্সিকিউটিভ অফিস এবং ইউএস ডিপার্টমেন্ট অব হোমল্যান্ড সিকিউরিটির পাশাপাশি আইবিএম এবং মাইক্রোসফটে কাজ করার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন এই মেধাবী বাংলাদেশি তার কী-নোট স্পিচে বাংলাদেশে ফ্রিল্যান্সিং ও আউটসোর্সিং কাজে নিয়োজিত জনবলের দক্ষতা বিশ্বমানে নিয়ে যেতে কী কী করণীয় তা সবিস্তারে তুলে ধরেন। অত্যন্ত আকর্ষণীয় এই খাতে প্রতিবেশী দেশ ভারতের আকাশচুম্বী সাফল্যের নেপথ্যের তথ্য-বিশ্লেষন উঠে আসে শেখ গালিবের পাওয়ার পয়েন্টের প্রেজেন্টেশনে।

কুমিল্লার জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. আবুল ফজল মীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জনাকীর্ণ সেমিনারে আলোচনায় অংশ নেন ওয়াশিংটন প্রবাসী ইউএস নেভির সাবেক আইটি কনসালটিং ইঞ্জিনিয়ার রেদওয়ান চৌধুরী, ঢাকাস্থ ইনোভেশন হাব বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ইমরান ফাহাদ, কুমিল্লা কোটবাড়ীস্থ বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমীর (বার্ড) ডেপুটি ডিরেক্টর (ডেভেলপমেন্ট কমিউনিকেশন) কাজী সোনিয়া রহমান, কুমিল্লাস্থ স্কুল অব ফ্রিল্যান্সিংয়ের প্রতিষ্ঠাতা এস কে চৌধুরী মাসুম, কুমিল্লা সচেতন নাগরিক কমিটির (সনাক) সভাপতি বদরুল হুদা জেনু এবং ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ অর্গানাইজেশনের (ডব্লিউবিও) নির্বাহী কর্মকর্তা মাঈনুল ইসলাম নাসিম। জেলা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

কুমিল্লা জেলার ৫ হাজার তরুণ-তরুণীকে ফ্রিল্যান্সিং এবং আউটসোর্সিং প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে অনলাইনে ভালো আয় উপার্জন করার যোগ্য হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে জেলা প্রশাসন কর্তৃক গৃহীত ব্যাপক কর্মযজ্ঞের অংশ হিসেবে উক্ত সেমিনার আয়োজন করে জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীরের নিজস্ব উদ্যোগ ও আন্তরিকতার ফসল হিসেবে ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসন ভবনেই নির্মাণ করা হয়েছে একটি অত্যাধুনিক ফ্রিল্যান্সার ডেভেলপমেন্ট হাব, যেখানে একসাথে ৪০ জন ফ্রিল্যান্সিং করার পাশাপাশি প্রশিক্ষণেরও সুযোগ পাবেন। জেলা প্রশাসক জানান, ‘পথিকৃৎ’ কুমিল্লাকে একটি সাইবার নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে আমরা বদ্ধপরিকর। বাংলাদেশের উন্নয়নে ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ অর্গানাইজেশনের (ডব্লিউবিও) সৃষ্টিশীল কর্মকান্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেন জেলা প্রশাসক।

Print

শীর্ষ খবর/আ আ

সংবাদটি পড়া হয়েছে 1055 বার

আজকে

  • ৯ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
  • ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
  • ১৩ই মুহাররম, ১৪৪০ হিজরী
 

সোশ্যাল নেটওয়ার্ক

 
 
 
 
 
আগষ্ট ২০১৮
রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
« জুলাই   সেপ্টেম্বর »
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
 
 
 
 
WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com