মার খেয়েও দায়িত্বে অটল নারী সাংবাদিক, ছবি ভাইরাল

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ভারতের কেরালায় বিক্ষোভ ও সহিংসতায় উত্তাল। ওই রাজ্যের শবরীমালা মন্দিরে দুই নারীর প্রবেশের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই সহিংসতার সূত্রপাত ঘটে। এমন উত্তাল সময়ে সহিংসতার খরব সংগ্রহ করতে গিয়ে মারধরের শিকার হন একজন নারী সাংবাদিক। তবুও অশ্রুসিক্ত চোখে নিজের দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছিলেন তিনি। ওই সময়ের একটি ছবি অনলাইনে ভাইরাল হয়ে যায়।

ছবিতে দেখা যায় চ্যানেল ‘কাইরালি টেলিভিশন’র ক্যামেরাপারসন শাজিলা আব্দুলরেহমান ক্যামেরায় চোখ রেখে ভিডিও ধারণ চালিয়ে যাচ্ছে। তার অন্য চোখ থেকে পানি গড়িয়ে পড়ছে।

বুধবার (০২ জানুয়ারি) ভোরে শবরীমালা মন্দিরে ঋতুমতী দুই নারী প্রবেশের ঘটনায় কেরলার বিভিন্ন শহরে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে।

ভারতের এই মন্দিরটিতে প্রথম থেকেই ঋতুমতী (১০ থেকে ৫০ বছর বয়স্ক) নারীদের প্রবেশ নিষেধ।

কর্তৃপক্ষের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে বুধবার ভোরে ৪০ বছরের বিন্দু আম্মিনি ও ৩৯ বছরের কনকা দুর্গা মন্দিরে ঢোকেন। তারপরই রাজ্য জুড়ে ছড়িয়ে পরে বিক্ষোভ।

ওই ঘটনায় প্রাদেশিক রাজধানী থিরুভানান্থাপুরামে একটি ‘সঙ্গ পরিবারের’ বিক্ষোভের ছবি সংগ্রহ করতে গিয়ে শাজিলা বিক্ষোভকারীদের হামলার শিকার হন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে শাজিলা বলেন, ‘কেউ একজন আমার পিঠে সজোরে লাথি মারে। বুঝতে পারিনি কোথা থেকে লাথি মারা হয়েছে। আমি ব্যথায় নিচু হয়ে পড়লে হামলাকারীরা আমার ক্যামেরা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু আমি সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে সেটা আঁকড়ে ধরে থাকি। টানাছেঁড়ার কারনে আমি ঘাড়ে আঘাত পেয়েছি।’

আহত শাজিলাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এরিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘সাহস ও পেশাদারিত্বের’ জন্য শাজিলা ঝড় শুরু হয়ে গেছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ফোনঃ +৪৪-৭৫৩৬-৫৭৪৪৪১
Email: [email protected]
স্বত্বাধিকারী কর্তৃক sheershakhobor.com এর সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত