fbpx
 

ঈদ কেনাকাটা: জনস্রোতে বেচাকেনার ধুম যমুনা ফিউচার পার্কে

Pub: শনিবার, মে ২৫, ২০১৯ ৫:১৯ পূর্বাহ্ণ   |   Upd: শনিবার, মে ২৫, ২০১৯ ৫:১৯ পূর্বাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

যেদিকে তাকানো যায় সেদিকেই শুধু মানুষ আর মানুষ। হাতে হাতে ব্যাগ। কেউ কিনেছেন পোশাক, কেউ জুতো, কেউ প্রসাধনী। কেউ বা সবকিছুই। সকাল থেকে রাত অবধি একই চিত্র। শপিং করতে করতে অনেকে পরিশ্রান্ত হয়ে একটু বিশ্রাম করে নিচ্ছেন। তারপর আবার শুরু। শুধু শপিং আর শপিং। জনস্রোতে চলছে বেচাকেনার ধুম। চিত্রটা দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম শপিং মল যমুনা ফিউচার পার্কের।

শুক্রবার সকাল থেকেই যমুনা ফিউচার পার্ক শপিং মল লোকে লোকারণ্য। আর জুমার নামাজ শেষ হওয়ার পরপর দেখা গেল অন্যরকম এক চিত্র। হাজার হাজার গাড়ি প্রবেশ করছে। বিকাল সাড়ে পাঁচটা নাগাদ এত গাড়ি এসেছে যে পার্কিংয়ের জায়গা দিতে কর্মরতদের রীতিমতো হিমশিম খেতে হয়। আর এমনটা হবে এটাই তো স্বাভাবিক।

নিরবচ্ছিন্ন এবং স্বাচ্ছন্দ্যময় কেনাকাটায় যমুনা ফিউচার পার্ক শপিং মল অদ্বিতীয়। এখানে একই ছাদের নিচে পোশাক, প্রসাধনী, জুতো, অলংকার, ইলেকট্রনিক্স থেকে শুরু করে সবকিছু পাওয়া যাচ্ছে হাতের নাগালে। দেশি-বিদেশি নামি-দামি সব ব্র্যান্ডের শোরুমের সমাহার যমুনা ফিউচার পার্ককে করেছে ঈদ শপিংয়ের অনন্য স্থান।

শুধু ঢাকা নয়, ঢাকার বাইরে থেকেও ঈদ কেনাকাটা করতে অনেকেই ছুটে আসছেন যমুনা ফিউচার পার্কে। শুক্রবার তেমনটাই দেখা গেল। আর ইতিমধ্যেই বিভিন্ন পেশার মানুষের হাতে চলে এসেছে ঈদ বোনাস। তাই এখন ঈদের কেনাকাটা তুঙ্গে।

বিকালে আড়ংয়ের শোরুমে প্রবেশ করে দেখা গেল বিক্রয়কর্মীরা দম ফেলার ফুরসত পাচ্ছেন না। লাইন দিয়ে দিয়ে পছন্দের পোশাক থ্রি-পিস, শাড়ি, পাঞ্জাবি, শার্ট কিনছেন।

আড়ংয়ের ব্রাঞ্চ ম্যানেজার পারভীন শায়লা মিতা যুগান্তরকে বলেন, আমরা রোজার আগ থেকেই পোশাকের ডিসপ্লে শুরু করেছি। আর আজকের যে উপচে পড়া ভিড় সেটা চাঁদরাত পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। আর বেশিরভাগ চাকরিজীবী ইতিমধ্যে বোনাস পেয়েছেন। তাই যে যার বাজেটের মধ্যে প্রিয় জিনিসটি কিনছেন।

যমুনা ফিউচার পার্কের ইনফিনিটি, কে ক্রাফট, অঞ্জনস, ইয়েলো, ফ্রিল্যান্ড, রেড, সিক্স লাইফ স্টাইল, লা রিভ, প্লাস পয়েন্টসহ প্রায় সব ব্র্যান্ডের শোরুম ঘুরে দেখা গেল সব জায়গায়ই ধুমছে চলছে বিকিকিনি।

গুলশান থেকে মোহাম্মদ হোসেন মিরন এসেছিলেন সপরিবারে। তিনি যুগান্তরকে বলেন, এখন থেকে প্রায় প্রতিদিনই আমাদের আসা হবে যমুনা ফিউচার পার্কে। নিজেদের কেনাকাটার পাশাপাশি আত্মীয়স্বজনকেও উপহারে দেব। তাই আমরা সবাই একসঙ্গে এসেছি। এত এত মানুষ এসেছে শপিং মলে কিন্তু তার পরও আমরা কেনোরকম বিড়ম্বনা ছাড়াই আরামদায়ক পরিবেশে শপিং করছি।

রুকিসের শোরুম উদ্বোধনে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা : বাংলাদেশের ফ্যাশন শিল্পে নতুন মাত্রা যোগ করার লক্ষ্যে ঢাকায় সর্বপ্রথম আউটলেট স্থাপন করেছে বিশ্বে সুপরিচিত ডেনিম ব্র্যান্ড ‘রুকিস’। সেটাও যমুনা ফিউচার পার্ক শপিং মলে।

ঈদুল ফিতরের পর রুকিস জাঁকজমকপূর্ণভাবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করবে। তার আগে ফ্ল্যাগশিপ আউলেটের পরিচিতীকরণমূলক একটি আয়োজন হয় শুক্রবার বিকালে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ক্রিকেট দলের তারকা খেলোয়াড়রা। যার মধ্যে মেহরাব হোসেন অপি, তাসকিন আহমেদ, ইমরুল কায়েস, আবদুর রাজ্জাক, নাসির হোসেনসহ আরও অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া রুকিজ বিডি লি.-এর কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ